নির্বাচনী প্রচারের জন্য আমাকে হত্যা করতে চেয়েছিল ট্রাম্প: নাসরুল্লাহ
jugantor
নির্বাচনী প্রচারের জন্য আমাকে হত্যা করতে চেয়েছিল ট্রাম্প: নাসরুল্লাহ
'আমেরিকা ইসরাইল ও সৌদি একজোট হয়ে সোলাইমানিকে হত্যা করছে'

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ ডিসেম্বর ২০২০, ১৩:৫১:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

আমেরিকা, ইহুদিবাদী ইসরাইল ও সৌদি আরব সম্মিলিতভাবে ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলায়মানিকে হত্যা করেছে বলে দাবি করেছেন লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়েদ নাসরুল্লাহ।

রোববার রাতে আল-মায়াদিন টিভি চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সাইয়েদ হাসান নাসরুল্লাহ এ কথা বলেন। খবর তাসনিম নিউজের।

তিনি আরও বলেন, ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার কাসেম সোলায়মানিকে হত্যার আগে থেকেই আমাকে হত্যার চেষ্টা করে আসছে ওয়াশিংটন, তেল আবিব ও রিয়াদ।

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়েদ হাসান নাসরুল্লাহকে হত্যা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। এ তথ্য ফাঁস করেছেন খোদ সাইয়েদ নাসরুল্লাহ।

বিভিন্ন সূত্র থেকে তাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে এই হত্যা প্রচেষ্টা তীব্রতর হয় জানিয়ে সাইয়েদ নাসরুল্লাহ বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প আমাকে হত্যা করে বিষয়টি নির্বাচনি প্রচারের কাজে ব্যবহার করতে চেয়েছিল।

এমনকি সৌদি যুবরাজ বিন সালমান আমেরিকা সফরে গিয়ে তার স্বার্থে হলেও এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করার জন্য মার্কিন কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেছে বলে জানান হিজবুল্লাহর মহাসচিব।

তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের নেতৃত্বাধীন ইসরাইলবিরোধী প্রতিরোধ শক্তি এবং এর নেতা ও কমান্ডারদের হত্যা করার এই ষড়যন্ত্র এখনও চলছে।

কিন্তু অতীতে যেমন এ ধরনের হত্যাকাণ্ড চালিয়ে প্রতিরোধ আন্দোলন দমন করা যায়নি, তেমনি ভবিষ্যতেও যাবে না বলে হুশিয়ার করেন হিজবুল্লাহ মহাসচিব।

নির্বাচনী প্রচারের জন্য আমাকে হত্যা করতে চেয়েছিল ট্রাম্প: নাসরুল্লাহ

'আমেরিকা ইসরাইল ও সৌদি একজোট হয়ে সোলাইমানিকে হত্যা করছে'
 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আমেরিকা, ইহুদিবাদী ইসরাইল ও সৌদি আরব সম্মিলিতভাবে ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলায়মানিকে হত্যা করেছে বলে দাবি করেছেন লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়েদ নাসরুল্লাহ।

রোববার রাতে আল-মায়াদিন টিভি চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সাইয়েদ হাসান নাসরুল্লাহ এ কথা বলেন। খবর তাসনিম নিউজের।

তিনি আরও বলেন, ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার কাসেম সোলায়মানিকে হত্যার আগে থেকেই আমাকে হত্যার চেষ্টা করে আসছে ওয়াশিংটন, তেল আবিব ও রিয়াদ।

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর মহাসচিব সাইয়েদ হাসান নাসরুল্লাহকে হত্যা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। এ তথ্য ফাঁস করেছেন খোদ সাইয়েদ নাসরুল্লাহ।

বিভিন্ন সূত্র থেকে তাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে এই হত্যা প্রচেষ্টা তীব্রতর হয় জানিয়ে সাইয়েদ নাসরুল্লাহ বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প আমাকে হত্যা করে বিষয়টি নির্বাচনি প্রচারের কাজে ব্যবহার করতে চেয়েছিল।

এমনকি সৌদি যুবরাজ বিন সালমান আমেরিকা সফরে গিয়ে তার স্বার্থে হলেও এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করার জন্য মার্কিন কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেছে বলে জানান হিজবুল্লাহর মহাসচিব।

তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের নেতৃত্বাধীন ইসরাইলবিরোধী প্রতিরোধ শক্তি এবং এর নেতা ও কমান্ডারদের হত্যা করার এই ষড়যন্ত্র এখনও চলছে।

কিন্তু অতীতে যেমন এ ধরনের হত্যাকাণ্ড চালিয়ে প্রতিরোধ আন্দোলন দমন করা যায়নি, তেমনি ভবিষ্যতেও যাবে না বলে হুশিয়ার করেন হিজবুল্লাহ মহাসচিব।

 

ঘটনাপ্রবাহ : লেবাননে বিস্ফোরণ