কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া
jugantor
কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৫ জানুয়ারি ২০২১, ১৩:২১:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া

পরিকল্পনা অনুসারে এক জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক তেহরান সফরে যাবেন কিনা; তা পর্যালোচনা করে দেখার কথা জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

এর আগে উপসাগরীয় জলসীমা থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকাবাহী একটি রাসায়নিকবাহী ট্যাংকার জব্দ করে ক্রুদের আটক করেছে ইরান।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যাংকে ইরানি তহবিল জব্দের ঘটনার পর দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যায়।-খবর রয়টার্সের

সরকারি কর্মকর্তাদের বরাতে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, জব্দ করা ৭০০ কোটি ডলার ইরান ফেরত চাইলে সিউলের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চোই জোং-কুন এ নিয়ে আলোচনায় আছেন বলে দাবি করা হয়।

সিউলির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, চোইয়ের ভ্রমণের বিষয়টি এখন পরিষ্কার না।

সোমবার ইরানি গণমাধ্যম বলেছে, দূষণসংক্রান্ত নীতি লঙ্ঘনের দায়ে হ্যাংকুক ক্যামি নামের একটি ট্যাংকার জব্দ করেছে ইরানের বিপ্লবী গার্ডস বাহিনী। নৌযানটি সাত হাজার ২০০ টন ইথানল বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল।

দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ট্যাংকারটির মুক্ত করতে কূটনৈতিক চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। ইরানি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদেহ বলেন, দূষণ ছড়ানোর দায়ে জাহাজটি জব্দ করা হয়েছে।

অন্যান্য দেশের মতো এসব বিষয়ে ইরানও স্পর্শকাতর। বিশেষ করে সমুদ্রের পরিবেশ নিয়ে ইরান খুবই সতর্ক। জাহাজটিতে দক্ষিণ কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম ও মিয়ানমারের ক্রুরা রয়েছেন।

কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৫ জানুয়ারি ২০২১, ০১:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কূটনৈতিক দ্বন্দ্বে ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া
ছবি: সংগৃহীত

পরিকল্পনা অনুসারে এক জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক তেহরান সফরে যাবেন কিনা; তা পর্যালোচনা করে দেখার কথা জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। 

এর আগে উপসাগরীয় জলসীমা থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকাবাহী একটি রাসায়নিকবাহী ট্যাংকার জব্দ করে ক্রুদের আটক করেছে ইরান।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যাংকে ইরানি তহবিল জব্দের ঘটনার পর দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যায়।-খবর রয়টার্সের

সরকারি কর্মকর্তাদের বরাতে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, জব্দ করা ৭০০ কোটি ডলার ইরান ফেরত চাইলে সিউলের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চোই জোং-কুন এ নিয়ে আলোচনায় আছেন বলে দাবি করা হয়।

সিউলির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, চোইয়ের ভ্রমণের বিষয়টি এখন পরিষ্কার না।

সোমবার ইরানি গণমাধ্যম বলেছে, দূষণসংক্রান্ত নীতি লঙ্ঘনের দায়ে হ্যাংকুক ক্যামি নামের একটি ট্যাংকার জব্দ করেছে ইরানের বিপ্লবী গার্ডস বাহিনী। নৌযানটি সাত হাজার ২০০ টন ইথানল বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল।

দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ট্যাংকারটির মুক্ত করতে কূটনৈতিক চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। ইরানি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদেহ বলেন, দূষণ ছড়ানোর দায়ে জাহাজটি জব্দ করা হয়েছে।

অন্যান্য দেশের মতো এসব বিষয়ে ইরানও স্পর্শকাতর। বিশেষ করে সমুদ্রের পরিবেশ নিয়ে ইরান খুবই সতর্ক। জাহাজটিতে দক্ষিণ কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম ও মিয়ানমারের ক্রুরা রয়েছেন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-ইরান সংকট

আরও খবর