কাতারের অবরোধ প্রত্যাহার নিয়ে কী ভাবছে তুরস্ক?
jugantor
কাতারের অবরোধ প্রত্যাহার নিয়ে কী ভাবছে তুরস্ক?

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:০৬:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবে জিসিসি শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে গেলে বিমানবন্দরে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানিকে (বামে)স্বাগত জানান সৌদি যুবরাজ মোহামেদ বিন সালমান। ছবি: বিবিসি

সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন চার দেশ কাতার থেকে অবরোধ প্রত্যাহার করা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তুরস্ক। সামরিক শক্তির দিক দিয়েমুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশেরপ্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেছেন, তাদের সম্পর্ক পুনঃস্থাপন খুবই লাভজনক হবে। বিশেষ করে উপসাগরীয় অঞ্চলের জন্য এটা খুবই উপকার হবে।

শুক্রবার ইস্তান্বুলে জুমার নামাজ আদায়ের পর সাংবাদিকদেরমুখোমুখি হয়ে এসব কথা বলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

তিনি বলেন, অবরোধ প্রত্যাহার খুবই যথাযথ হয়েছে। বিশেষ করে উপসাগরীয় অঞ্চলের জন্য এটা খুবই উপকার হবে। আমাদের পক্ষ থেকে আশাবাদ হলো, উপসাগরীয় দেশগুলোর মাঝে আবারও পারস্পারিক সহযোগিতা পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হবে। এতে উপসাগরীয় অঞ্চলের সহযোগিতা আরও দৃঢ় হবে।

এদিকে মার্কিন কংগ্রেসে (ক্যাপিটল হিল) ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান বলেন, গণতন্ত্রের তথাকথিত সূতিকাগার যুক্তরাষ্ট্রের এ পরিস্থিতিতিতে মানবজাতি ব্যথিত। এ ঘটনাগণতন্ত্রের জন্য লজ্জা।

তিনি বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটরা একই ধরনের। আমি আশা করি, ট্রাম্পের বিবৃতি অনুযায়ী, মি. বাইডেন সুন্দরভাবে আগামী ২০ জানুয়ারি ট্রাম্পের কাছ থেকে ক্ষমতা গ্রহণ করবেন।

নিহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করে এরদোগান আশা করেন তারা দ্রুত মর্মান্তিক পরিস্থিতি থেকে শোক কাটিয়ে উঠবেন।

কাতারের অবরোধ প্রত্যাহার নিয়ে কী ভাবছে তুরস্ক?

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৭:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সৌদি আরবে জিসিসি শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে গেলে বিমানবন্দরে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানিকে (বামে)স্বাগত জানান সৌদি যুবরাজ মোহামেদ বিন সালমান। ছবি: বিবিসি
সৌদি আরবে জিসিসি শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে গেলে বিমানবন্দরে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানিকে (বামে)স্বাগত জানান সৌদি যুবরাজ মোহামেদ বিন সালমান। ছবি: বিবিসি

সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন চার দেশ কাতার থেকে অবরোধ প্রত্যাহার করা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তুরস্ক। সামরিক শক্তির দিক দিয়ে মুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশের প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেছেন, তাদের সম্পর্ক পুনঃস্থাপন খুবই লাভজনক হবে। বিশেষ করে উপসাগরীয় অঞ্চলের জন্য এটা খুবই উপকার হবে।  

শুক্রবার ইস্তান্বুলে জুমার নামাজ আদায়ের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এসব কথা বলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

তিনি বলেন, অবরোধ প্রত্যাহার খুবই যথাযথ হয়েছে। বিশেষ করে উপসাগরীয় অঞ্চলের জন্য এটা খুবই উপকার হবে। আমাদের পক্ষ থেকে আশাবাদ হলো, উপসাগরীয় দেশগুলোর মাঝে আবারও পারস্পারিক সহযোগিতা পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হবে।  এতে উপসাগরীয় অঞ্চলের সহযোগিতা আরও দৃঢ় হবে। 

এদিকে মার্কিন কংগ্রেসে (ক্যাপিটল হিল) ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান বলেন, গণতন্ত্রের তথাকথিত সূতিকাগার যুক্তরাষ্ট্রের এ পরিস্থিতিতিতে মানবজাতি ব্যথিত। এ ঘটনা গণতন্ত্রের জন্য লজ্জা। 

তিনি বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটরা একই ধরনের।  আমি আশা করি, ট্রাম্পের বিবৃতি অনুযায়ী, মি. বাইডেন সুন্দরভাবে আগামী ২০ জানুয়ারি ট্রাম্পের কাছ থেকে ক্ষমতা গ্রহণ করবেন।

নিহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করে এরদোগান আশা করেন তারা দ্রুত  মর্মান্তিক পরিস্থিতি থেকে শোক কাটিয়ে উঠবেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সৌদি-কাতার সংকট

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২