আটক সেনাকে ফেরত চায় চীন, ভারতকে কড়া হুশিয়ারি
jugantor
আটক সেনাকে ফেরত চায় চীন, ভারতকে কড়া হুশিয়ারি

  অনলাইন ডেস্ক  

১০ জানুয়ারি ২০২১, ২০:৫৩:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ করা চীনা সেনাকে ফেরত চাইছে বেইজিং। শুক্রবার লাদাখে প্যাংগং তসোর দক্ষিণ প্রান্তে ঢোকে পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) একটি দল। সেই দলের একজনকে আটক করে ভারতীয় বাহিনী। শনিবার ভারতের পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়। এরপরই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনার পারদ বাড়তে থাকে।

চীনের সামরিক বাহিনীর ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, আটক সেনা ভুল করে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছে। রাতের অন্ধকারে ভৌগলিক অবস্থান বুঝতে পারেনি। এ কারণেই তার ভুল হয়েছে।

চীনা কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা আশা করছিল ভারতীয় সেনাবাহিনী ওই জওয়ানকে খুঁজতে সাহায্য করবে। পরে তারা জানতে পারে ভারতীয় সেনাদের হাতেই আটক হয়েছে ওই সৈনিক।

ভারতীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, প্রায় ২ ঘণ্টা পর ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে আটকের খবর নিশ্চিত করা হয়। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতির পরই সেই সেনাকে ফিরিয়ে দেওয়া হবে চীনের হাতে।

এরপরই চীনের পক্ষ থেকে ভারতকে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের সমঝোতা অনুযায়ী কাজ করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি আটক সেনা সদস্যকে দ্রুত ফিরিয়ে দিতে বলা হয়েছে।

সীমান্তে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় সীমান্তে উত্তেজনা দেখা দিতে পারে বলে হুশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

চীনের সরকারি সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস বলছে, ভারত-চীন দুপক্ষই সেনা হস্তান্তর নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন দুপক্ষই।

এর আগে গতবছর ১৯ অক্টোবর এক চীনা সেনাকে অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। পরে চশুল সীমান্তে প্রোটোকল মেনে পরে চীনের হাতে ফিরিয়ে দেয় ভারত।

আটক সেনাকে ফেরত চায় চীন, ভারতকে কড়া হুশিয়ারি

 অনলাইন ডেস্ক 
১০ জানুয়ারি ২০২১, ০৮:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ করা চীনা সেনাকে ফেরত চাইছে বেইজিং। শুক্রবার লাদাখে প্যাংগং তসোর দক্ষিণ প্রান্তে ঢোকে পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) একটি দল। সেই দলের একজনকে আটক করে ভারতীয় বাহিনী। শনিবার ভারতের পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়। এরপরই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনার পারদ বাড়তে থাকে। 

চীনের সামরিক বাহিনীর ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, আটক সেনা ভুল করে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছে। রাতের অন্ধকারে ভৌগলিক অবস্থান বুঝতে পারেনি।  এ কারণেই তার ভুল হয়েছে। 

চীনা কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা আশা করছিল ভারতীয় সেনাবাহিনী ওই জওয়ানকে খুঁজতে সাহায্য করবে। পরে তারা জানতে পারে ভারতীয় সেনাদের হাতেই আটক হয়েছে ওই সৈনিক। 

ভারতীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, প্রায় ২ ঘণ্টা পর ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে আটকের খবর নিশ্চিত করা হয়।  ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতির পরই সেই সেনাকে ফিরিয়ে দেওয়া হবে চীনের হাতে।

এরপরই চীনের পক্ষ থেকে ভারতকে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের সমঝোতা অনুযায়ী কাজ করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি আটক সেনা সদস্যকে দ্রুত ফিরিয়ে দিতে বলা হয়েছে। 

সীমান্তে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় সীমান্তে উত্তেজনা দেখা দিতে পারে বলে হুশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। 

চীনের সরকারি সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস বলছে, ভারত-চীন দুপক্ষই সেনা হস্তান্তর নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন দুপক্ষই।

এর আগে গতবছর ১৯ অক্টোবর এক চীনা সেনাকে অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক করে ভারতীয় সেনাবাহিনী। পরে চশুল সীমান্তে প্রোটোকল মেনে পরে চীনের হাতে ফিরিয়ে দেয় ভারত। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা