ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণে চিকিৎসকের মৃত্যু
jugantor
ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণে চিকিৎসকের মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৪১:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ফাইজার

ফাইজারের টিকা নেওয়ার ১৬ দিন পরমস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে মারা গেছেন যুক্তরাষ্ট্রের একজন চিকিৎসক। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে ফাইজার কর্তৃপক্ষ।

নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, গ্রেগরি মাইকেল (৫৬) নামের ওই ধাত্রীবিদ্যাবিশারদ (গাইনোকলজিস্ট) ফ্লোরিডার মায়ামিতে কর্মরত ছিলেন।

২০২০ সালের ১৮ ডিসেম্বর তিনি ফাইজারের করোনা টিকা গ্রহণ করেছিলেন। তার স্ত্রী হিদি নেকলম্যান ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়ে দাবি করেন, টিকা নেওয়ার সময় সুস্থ ছিলেন গ্রেগরি। এমনকি তার কোনো রোগ প্রতিরোধ বিষয়ক বিশৃঙ্খলাও ছিল না। তবে টিকা নেওয়ার পর তিনি ইডিওপ্যাথিক থ্রোমবোসাইটোপেনিক পারপুরা (আইটিপি) জনিত স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। এ সময় তার রক্তে প্লেটিলেটসের ঘাটতিও দেখা দেয়।

হিদি নেকলম্যানের দাবি, এই টিকার কারণেই তার স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। এই মৃত্যুর পেছনে আর অন্য কোনো কারণ থাকতে পারে না।

একই সঙ্গে গ্রেগরির মৃত্যুর বিষয়ে তদন্ত করছেফ্লোরিডার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ফেডারেল সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

ফাইজারের দাবি, তারা মনে করেন না টিকা নেওয়ার সঙ্গে ওই ডাক্তারের মৃত্যুর কোনো সম্পর্ক আছে।

ফাইজার বলছে, এখন পর্যন্ত কয়েক লাখ মানুষকে এই টিকা দেয়া হয়েছে। টিকা নেওয়ার পর ব্যক্তিবিশেষের ক্ষেত্রে কোনো বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় কিনা তা ঘনিষ্ঠভাবে তারা পর্যবেক্ষণ করছে।

এদিকে গত বুধবার মাইকেলের দেহ থেকে ময়নাতদন্তের সময় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তা এদিইন পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে সিডিসিতে।

ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণে চিকিৎসকের মৃত্যু

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ জানুয়ারি ২০২১, ০৫:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফাইজার
ফাইল ছবি

ফাইজারের টিকা নেওয়ার ১৬ দিন পর মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণে মারা গেছেন যুক্তরাষ্ট্রের একজন চিকিৎসক। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে ফাইজার কর্তৃপক্ষ।

নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, গ্রেগরি মাইকেল (৫৬) নামের ওই ধাত্রীবিদ্যাবিশারদ (গাইনোকলজিস্ট) ফ্লোরিডার মায়ামিতে কর্মরত ছিলেন।

২০২০ সালের ১৮ ডিসেম্বর তিনি ফাইজারের করোনা টিকা গ্রহণ করেছিলেন। তার স্ত্রী হিদি নেকলম্যান ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়ে দাবি করেন, টিকা নেওয়ার সময় সুস্থ ছিলেন গ্রেগরি। এমনকি তার কোনো রোগ প্রতিরোধ বিষয়ক বিশৃঙ্খলাও ছিল না। তবে টিকা নেওয়ার পর তিনি ইডিওপ্যাথিক থ্রোমবোসাইটোপেনিক পারপুরা (আইটিপি) জনিত স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। এ সময় তার রক্তে প্লেটিলেটসের ঘাটতিও দেখা দেয়।

হিদি নেকলম্যানের দাবি, এই টিকার কারণেই তার স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। এই মৃত্যুর পেছনে আর অন্য কোনো কারণ থাকতে পারে না।

একই সঙ্গে গ্রেগরির মৃত্যুর বিষয়ে তদন্ত করছে ফ্লোরিডার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ফেডারেল সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

ফাইজারের দাবি, তারা মনে করেন না টিকা নেওয়ার সঙ্গে ওই ডাক্তারের মৃত্যুর কোনো সম্পর্ক আছে। 

ফাইজার বলছে, এখন পর্যন্ত কয়েক লাখ মানুষকে এই টিকা দেয়া হয়েছে। টিকা নেওয়ার পর ব্যক্তিবিশেষের ক্ষেত্রে কোনো বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় কিনা তা ঘনিষ্ঠভাবে তারা পর্যবেক্ষণ করছে। 

এদিকে গত বুধবার মাইকেলের দেহ থেকে ময়নাতদন্তের সময় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তা এদিইন পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে সিডিসিতে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস