কার পার্কে সেনাদের ঠাঁই, ক্ষমা চাইলেন বাইডেন
jugantor
কার পার্কে সেনাদের ঠাঁই, ক্ষমা চাইলেন বাইডেন

  অনলাইন ডেস্ক  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:০৫:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কার পার্কে সেনাদের ঠাঁই, ক্ষমা চাইলেন বাইডেন

অভিষেক অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাজধানী ওয়াশিংটনে আসা ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের কার পার্কে বিশ্রাম নিতে বাধ্য করার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন সদ্যশপথ নেয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

বুধবার প্রেসিডেন্ট বাইডেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে সারা দেশ থেকে ওয়াশিংটন ডিসিতে ২৫ হাজারের বেশি সেনা মোতায়েন করা হয়েছিল।

পরদিন বৃহস্পতিবার অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া কিছু ছবিতে দেখা যায় ন্যাশনাল গার্ডের বেশ কয়েকজন সদস্য অনুষ্ঠান স্থলের কাছের একটি গাড়ি রাখার গ্যারেজে শুয়ে আছেন।

এ ঘটনায় রাজনীতিকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কয়েকটি রাজ্যের গভর্নর নিজ নিজ সেনাদের ডেকে পাঠিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন শুক্রবার ন্যাশনাল গার্ড ব্যুরোর প্রধানকে ডেকে ক্ষমা চেয়েছেন এবং এ বিষয়ে তিনি কী করতে পারেন তা জানতে চেয়েছেন।

ফার্স্টলেডি জিল বাইডেন নিজে সেনাদের সঙ্গে দেখা করে তাদের ধন্যবাদ দিয়েছেন। তিনি সেনাদের জন্য উপহার হিসেবে হোয়াইট হাউস থেকে বিস্কুট নিয়ে যান।

ফার্স্টলেডি বলেন, আপনারা আমাকে এবং আমার পরিবারকে সুরক্ষিত রেখেছেন। আমি আজ এখানে এসেছি আপনাদের ধন্যবাদ দিতে।

কার পার্কে সেনাদের ঠাঁই, ক্ষমা চাইলেন বাইডেন

 অনলাইন ডেস্ক 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৪:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কার পার্কে সেনাদের ঠাঁই, ক্ষমা চাইলেন বাইডেন
ছবি: সংগৃহীত

অভিষেক অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাজধানী ওয়াশিংটনে আসা ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের কার পার্কে বিশ্রাম নিতে বাধ্য করার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন সদ্যশপথ নেয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। 

বুধবার প্রেসিডেন্ট বাইডেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে সারা দেশ থেকে ওয়াশিংটন ডিসিতে ২৫ হাজারের বেশি সেনা মোতায়েন করা হয়েছিল।

পরদিন বৃহস্পতিবার অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া কিছু ছবিতে দেখা যায় ন্যাশনাল গার্ডের বেশ কয়েকজন সদস্য অনুষ্ঠান স্থলের কাছের একটি গাড়ি রাখার গ্যারেজে শুয়ে আছেন।

এ ঘটনায় রাজনীতিকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কয়েকটি রাজ্যের গভর্নর নিজ নিজ সেনাদের ডেকে পাঠিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন শুক্রবার ন্যাশনাল গার্ড ব্যুরোর প্রধানকে ডেকে ক্ষমা চেয়েছেন এবং এ বিষয়ে তিনি কী করতে পারেন তা জানতে চেয়েছেন।

ফার্স্টলেডি জিল বাইডেন নিজে সেনাদের সঙ্গে দেখা করে তাদের ধন্যবাদ দিয়েছেন। তিনি সেনাদের জন্য উপহার হিসেবে হোয়াইট  হাউস থেকে বিস্কুট নিয়ে যান।

ফার্স্টলেডি বলেন, আপনারা আমাকে এবং আমার পরিবারকে সুরক্ষিত রেখেছেন। আমি আজ এখানে এসেছি আপনাদের ধন্যবাদ দিতে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০