কলকাতাকে ভারতের রাজধানী করার দাবি মমতার
jugantor
কলকাতাকে ভারতের রাজধানী করার দাবি মমতার

  অনলাইন ডেস্ক  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৫৪:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

মমতা ব্যানার্জি। ফাইল ছবি

কলকাতাকে ভারতের অন্যতম রাজধানী করার দাবি জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

তিনি বলেন,দেশের চার প্রান্তে ৪টি রাজধানী হোক। দিল্লিতে সবাই বহিরাগত, তাহলে দিল্লি থেকেই কেন সমস্ত কাজ হবে। সংসদ বসুক দেশের চার প্রান্তেই। কলকাতাকেও অন্যতম রাজধানী করা হোক।

শনিবার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মজয়ন্তীতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এদিকে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মদিনকে জাতীয় ছুটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। সুভাষচন্দ্র বসুর অন্তর্ধান বা মৃত্যুরহস্য প্রকাশ্যে আনারও দাবি করেছেন তৃণমূল নেত্রী।

উইকিপিডিয়াতে পাওয়া তথ্যমতে, নেতাজি সোভিয়েত রাশিয়ার কাছে বন্দি অবস্থায়, সাইবেরিয়াতে মৃত্যুবরণ করেন। আর একটি মতে, বর্তমানে রেনকোজি মন্দিরে রাখা নেতাজির চিতাভস্ম পরীক্ষা করে জানা গিয়েছে -ওই চিতাভস্ম নেতাজির নয়। আসলে ভারতবর্ষে নেতাজির তুমুল জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একদল উঁচুতলার ভারতীয় নেতা (জওহরলাল নেহেরু) এবং ইংরেজ সরকার মিলিতভাবে ষড়যন্ত্র করে নেতাজিকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেয়। তাই ভারতীয় সরকার কখনো নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর প্রকৃত মৃত্যুর কারণ জনসমক্ষে আনেননি। অনেকের মতে ফৈজাবাদের ভগবান জি ওরফে গুমনামি বাবা হলেন নেতাজি। কিন্তু এ ব্যাপারটি আজও স্পষ্ট নয়। কারো কারো মতে নেতাজি নাকি আজো ও জীবিত রয়েছে।

বিজেপির সমালোচনাকরে পশ্চিমবঙ্গেরমুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিবলেন, নেতাজি দেশকে টুকরো করার কথা বলেননি। আজাদ হিন্দ বাহিনী ছিল বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যের প্রতীক।

কলকাতাকে ভারতের রাজধানী করার দাবি মমতার

 অনলাইন ডেস্ক 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৪:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মমতা ব্যানার্জি। ফাইল ছবি
মমতা ব্যানার্জি। ফাইল ছবি

কলকাতাকে ভারতের অন্যতম রাজধানী করার দাবি জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। 

তিনি বলেন, দেশের চার প্রান্তে ৪টি রাজধানী হোক। দিল্লিতে সবাই বহিরাগত, তাহলে দিল্লি থেকেই কেন সমস্ত কাজ হবে। সংসদ বসুক দেশের চার প্রান্তেই। কলকাতাকেও অন্যতম রাজধানী করা হোক। 

শনিবার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মজয়ন্তীতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 

এদিকে নেতাজি  সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মদিনকে জাতীয় ছুটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। সুভাষচন্দ্র বসুর অন্তর্ধান বা মৃত্যু রহস্য প্রকাশ্যে আনারও দাবি করেছেন তৃণমূল নেত্রী।

উইকিপিডিয়াতে পাওয়া তথ্যমতে, নেতাজি সোভিয়েত রাশিয়ার কাছে বন্দি অবস্থায়, সাইবেরিয়াতে মৃত্যুবরণ করেন। আর একটি মতে, বর্তমানে রেনকোজি মন্দিরে রাখা নেতাজির চিতাভস্ম পরীক্ষা করে জানা গিয়েছে -ওই চিতাভস্ম নেতাজির নয়। আসলে ভারতবর্ষে নেতাজির তুমুল জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একদল উঁচুতলার ভারতীয় নেতা (জওহরলাল নেহেরু) এবং ইংরেজ সরকার মিলিতভাবে ষড়যন্ত্র করে নেতাজিকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেয়। তাই ভারতীয় সরকার কখনো নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর প্রকৃত মৃত্যুর কারণ জনসমক্ষে আনেননি। অনেকের মতে ফৈজাবাদের ভগবান জি ওরফে গুমনামি বাবা হলেন নেতাজি। কিন্তু এ ব্যাপারটি আজও স্পষ্ট নয়। কারো কারো মতে নেতাজি নাকি আজো ও জীবিত রয়েছে।

বিজেপির সমালোচনা করে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, নেতাজি দেশকে টুকরো করার কথা বলেননি। আজাদ হিন্দ বাহিনী ছিল বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যের প্রতীক।