যে কারণে ইউরোপীয় ৩ কূটনীতিককে বহিষ্কার করল রাশিয়া
jugantor
যে কারণে ইউরোপীয় ৩ কূটনীতিককে বহিষ্কার করল রাশিয়া

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:৫৬:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

তিন ইউরোপীয় দেশের কূটনীতিককে বহিষ্কার করার কারণ হিসেবে রাশিয়া জানিয়েছে, অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় ওই তিন দেশ সুইডেন, পোল্যান্ড ও জার্মানির পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার ঘোষণা করেছে, সেদেশের সরকারবিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনির সমর্থনে মস্কোয় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করার অভিযোগে তিন ইউরোপীয় দেশের তিন কূটনীতিককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ওই তিন কূটনীতিককে রাশিয়ায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে এবং তাদেরকে অবিলম্বে রাশিয়া ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা জোসেপ বোরেল মস্কো সফরে গিয়ে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার পর রাশিয়া এ কথা জানিয়েছে।

জোসেপ বোরেলের এটি প্রথম মস্কো সফর। তিনি শুক্রবার ল্যাভরভের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অ্যালেক্সেই নাভালনিকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানান।

ইউরোপীয় কূটনীতিকদের বহিষ্কারাদেশের ব্যাপারে এক প্রতিক্রিয়ায় সুইডেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, রাশিয়ার এ পদক্ষেপের কোনো ব্যাখ্যা থাকতে পারে না এবং মস্কোর বিরুদ্ধে পাল্টা পদক্ষেপ নেয়ার অধিকার আছে স্টকহোমের।

পোল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, রাশিয়ার এ পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় ওয়ারশ থেকে একজন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করা হবে।

অন্যদিকে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল তার দেশের কূটনীতিক বহিষ্কারের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এ ধরনের সিদ্ধান্ত আইনের শাসনেরপরিপন্থী।

রাশিয়ার একটি আদালত গত মঙ্গলবার দেশটির সরকারবিরোধী নেতাকে জামিনে মুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করার দায়ে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

যে কারণে ইউরোপীয় ৩ কূটনীতিককে বহিষ্কার করল রাশিয়া

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:৫৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তিন ইউরোপীয় দেশের কূটনীতিককে বহিষ্কার করার কারণ হিসেবে রাশিয়া জানিয়েছে, অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় ওই তিন দেশ সুইডেন, পোল্যান্ড ও জার্মানির পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার ঘোষণা করেছে, সেদেশের সরকারবিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনির সমর্থনে মস্কোয় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করার অভিযোগে তিন ইউরোপীয় দেশের তিন কূটনীতিককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ওই তিন কূটনীতিককে রাশিয়ায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে এবং তাদেরকে অবিলম্বে রাশিয়া ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা জোসেপ বোরেল মস্কো সফরে গিয়ে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার পর রাশিয়া এ কথা জানিয়েছে।

জোসেপ বোরেলের এটি প্রথম মস্কো সফর। তিনি শুক্রবার ল্যাভরভের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অ্যালেক্সেই নাভালনিকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানান।

ইউরোপীয় কূটনীতিকদের বহিষ্কারাদেশের ব্যাপারে এক প্রতিক্রিয়ায় সুইডেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, রাশিয়ার এ পদক্ষেপের কোনো ব্যাখ্যা থাকতে পারে না এবং মস্কোর বিরুদ্ধে পাল্টা পদক্ষেপ নেয়ার অধিকার আছে স্টকহোমের।

পোল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, রাশিয়ার এ পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় ওয়ারশ থেকে একজন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করা হবে।

অন্যদিকে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল তার দেশের কূটনীতিক বহিষ্কারের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এ ধরনের সিদ্ধান্ত আইনের শাসনেরপরিপন্থী।

রাশিয়ার একটি আদালত গত মঙ্গলবার দেশটির সরকারবিরোধী নেতাকে জামিনে মুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করার দায়ে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন