কুয়েতে  যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
jugantor
কুয়েতে  যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

  সাদেক রিপন, কুয়েত থেকে  

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২৩:০২:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

যথাযোগ্য মর্যাদায় ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করেছে কুয়েতের বাংলাদেশ দূতাবাস।

দিবসটি উপলক্ষে কুয়েত নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জ্মানের নেতৃত্বে দূতাবাস প্রাঙ্গণে রোববার সকাল ৮টায় জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতের মধ্য দিয়ে দিবসটির কার্যক্রম শুরু হয়।

দূতাবাস প্রাঙ্গণে অস্থায়ী নির্মিত শহিদ বেদিতে ফুল দিয়ে '৫২-এর ভাষা আন্দোলনে ২১ ফেব্রুয়ারি নিহত শহিদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাষ্ট্রদূতসহ দূতাবাসের অফিসার ও কর্মকর্তারা।

কুয়েতে করোনা পরিস্থিতি স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনা করে দূতাবাসে অত্যন্ত সীমিত পরিসরে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ভার্চুয়াল আলোচনা সভা। এরপর রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আবু নাসের, প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন মোহাম্মদ আবুল হোসেন, কাউন্সেলর (শ্রম) পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন জহিরুল ইসলাম খান, কাউন্সিলর (পাসপোর্ট ও ভিসা) পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন দ্বিতীয় সচিব হাসান মনিরুল মহিউদ্দিন।

ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি অংশগ্রহণ করেন। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইউনির্ভাসিটি অব প্রফেশনালস অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। এছাড়াও কুয়েত বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতারা ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

কুয়েতে  যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

 সাদেক রিপন, কুয়েত থেকে 
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যথাযোগ্য মর্যাদায় ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করেছে কুয়েতের বাংলাদেশ দূতাবাস। 

দিবসটি উপলক্ষে কুয়েত নিযুক্ত বাংলাদেশি  রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জ্মানের নেতৃত্বে দূতাবাস প্রাঙ্গণে রোববার সকাল ৮টায় জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতের মধ্য দিয়ে দিবসটির কার্যক্রম শুরু হয়।

দূতাবাস প্রাঙ্গণে অস্থায়ী নির্মিত শহিদ বেদিতে ফুল দিয়ে '৫২-এর ভাষা আন্দোলনে ২১ ফেব্রুয়ারি নিহত শহিদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাষ্ট্রদূতসহ দূতাবাসের অফিসার ও কর্মকর্তারা। 

কুয়েতে করোনা পরিস্থিতি স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনা করে দূতাবাসে অত্যন্ত সীমিত পরিসরে অনুষ্ঠানের আয়োজন  করা হয়।
কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ভার্চুয়াল আলোচনা সভা। এরপর রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আবু নাসের,  প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন মোহাম্মদ আবুল হোসেন, কাউন্সেলর (শ্রম) পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন জহিরুল ইসলাম খান, কাউন্সিলর (পাসপোর্ট ও ভিসা)  পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন দ্বিতীয় সচিব হাসান মনিরুল মহিউদ্দিন।

ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি অংশগ্রহণ করেন। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইউনির্ভাসিটি অব প্রফেশনালস অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান। এছাড়াও কুয়েত বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতারা ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।