সৌদির সাবেক তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি আর নেই
jugantor
সৌদির সাবেক তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি আর নেই

  অনলাইন ডেস্ক  

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:৩০:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদির সাবেক তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি আর নেই

সৌদি আরবের দীর্ঘদিনের তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি ইয়েমেনি যুক্তরাজ্যের লন্ডনে মারা গেছেন। মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

১৯৭৩ সালে তেল সংকটের সময় তিনি সৌদি আরবের নেতৃত্ব দেন। দেশটির তেল কোম্পানি তার হাত ধরেই জাতীয়করণ হয়েছে। কাতারভিত্তিক আলজাজিরা এমন খবর দিয়েছে।

তবে কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে সৌদির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে তা প্রকাশ করা হয়নি। পবিত্র শহর মক্কায় তাকে দাফন করা হবে।

পশ্চিমা-ধাঁচের ব্যবসায়িক স্যুট পরার জন্য তার পরিচিত ছিল। কথা বলতেন অত্যন্ত নরম ভাষায়। পেট্রোলিয়াম রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেক প্রতিষ্ঠায় সৌদি আরবের আধিপত্য বিস্তারে তিনি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছিলেন।

সংগঠনটিতে সৌদি আরব এখনো সেই ধারা বহাল রেখেছে। তেল শিল্পে সৌদি আরবের সিদ্ধান্তই সবচেয়ে বেশি প্রভাব বিস্তারি হয়।

১৯৬২ সালে ইয়েমেনে প্রথম তেলমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত তিনি এই পদে বহাল ছিলেন। ১৯৬১ সালে ওপেকের বোর্ড অব গভর্নরসে তিনিই প্রথম সৌদি প্রতিনিধি ছিলেন।

১৯৩০ সালে মক্কায় জন্ম নেওয়া ইয়েমেনির বাবা ও দাদা ছিলেন ধর্মীয় শিক্ষক। কিন্তু তিনি নিউইয়র্ক ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন। দুবার বিয়ে করেছেন এবং বহু সন্তান-সন্ততি রেখে গেছেন।

সৌদির সাবেক তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি আর নেই

 অনলাইন ডেস্ক 
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৩:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সৌদির সাবেক তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি আর নেই
ছবি: আল-জাজিরা

সৌদি আরবের দীর্ঘদিনের তেলমন্ত্রী আহমেদ জাকি ইয়েমেনি যুক্তরাজ্যের লন্ডনে মারা গেছেন। মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

১৯৭৩ সালে তেল সংকটের সময় তিনি সৌদি আরবের নেতৃত্ব দেন। দেশটির তেল কোম্পানি তার হাত ধরেই জাতীয়করণ হয়েছে। কাতারভিত্তিক আলজাজিরা এমন খবর দিয়েছে।

তবে কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে সৌদির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে তা প্রকাশ করা হয়নি। পবিত্র শহর মক্কায় তাকে দাফন করা হবে।

পশ্চিমা-ধাঁচের ব্যবসায়িক স্যুট পরার জন্য তার পরিচিত ছিল। কথা বলতেন অত্যন্ত নরম ভাষায়। পেট্রোলিয়াম রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেক প্রতিষ্ঠায় সৌদি আরবের আধিপত্য বিস্তারে তিনি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছিলেন।

সংগঠনটিতে সৌদি আরব এখনো সেই ধারা বহাল রেখেছে। তেল শিল্পে সৌদি আরবের সিদ্ধান্তই সবচেয়ে বেশি প্রভাব বিস্তারি হয়।

১৯৬২ সালে ইয়েমেনে প্রথম তেলমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত তিনি এই পদে বহাল ছিলেন। ১৯৬১ সালে ওপেকের বোর্ড অব গভর্নরসে তিনিই প্রথম সৌদি প্রতিনিধি ছিলেন।

১৯৩০ সালে মক্কায় জন্ম নেওয়া ইয়েমেনির বাবা ও দাদা ছিলেন ধর্মীয় শিক্ষক। কিন্তু তিনি  নিউইয়র্ক ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন। দুবার বিয়ে করেছেন এবং বহু সন্তান-সন্ততি রেখে গেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন