যে কারণে সিরিয়ায় ইরানপন্থী সেনাঘাঁটিতে মার্কিন হামলা
jugantor
যে কারণে সিরিয়ায় ইরানপন্থী সেনাঘাঁটিতে মার্কিন হামলা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:২৬:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর প্রথমবারের মতো গত বৃহস্পতিবার বিকালে সিরিয়ায় ইরানপন্থী সেনাঘাঁটিতে হামলা চালায় মার্কিন বাহিনী।

এতে কমপক্ষে ১৭ সেনা নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়। ইরানসমর্থিত এসব বাহিনীর ব্যবহৃত অবকাঠামোগুলোর ওপর কয়েক দফা বিমান হামলা চালানো হয়েছে। খবর রয়টার্সের।

ইরাক-সীমান্ত সংলগ্ন এইসব অবকাঠামো ব্যবহার করে ইরাকের পপুলার মবিলাইজেশন ইউনিট বা হাশদ্‌ আশ শাবির যোদ্ধারা এবং কাতাইব হিজবুল্লাহ ও কাতাইব সাইয়্যিদুশ শুহাদা নামের সশস্ত্র গ্রুপের যোদ্ধারা।

সম্প্রতি ইরাকে মার্কিন বাহিনী ও তার মিত্রদের অবস্থানে রকেট হামলার জবাবে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে পেন্টাগনের মুখপাত্র দাবি করেছেন।

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগন জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নির্দেশে ইরাক সীমান্তবর্তী পূর্ব সিরিয়ায় সন্ত্রাসবিরোধী ইরাকি বাহিনীগুলোর কয়েকটি অবস্থানের ওপর বোমা বর্ষণ করেছে মার্কিন বাহিনী।


রাশিয়া এই হামলার নিন্দা জানিয়ে একে অবৈধ ও বিপজ্জনক বলে মন্তব্য করেছে এবং এর ফলে উত্তেজনা বৃদ্ধি ছাড়াও এ অঞ্চলে বড় ধরনের সংঘাত সৃষ্টি হতে পারে বলে হুশিয়ারি দিয়েছে।

ইরবিলে মার্কিন বিমান ঘাঁটিতে সম্প্রতি যে রকেট হামলা হয়েছে তা ইরানসমর্থিত ইরাকি গোষ্ঠীগুলোর কাজ বলে মার্কিন সরকার দাবি করে এবং এর কঠোর জবাব দেওয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছিল ওয়াশিংটন।

অথচ ইরান ওই হামলার নিন্দা জানিয়েছিল এবং ইরাকে মার্কিন সেনা উপস্থিতি অব্যাহত রাখার অজুহাত তৈরি করতেই সন্দেহজনক ওই হামলা চালানো হয়েছে বলে তেহরান উল্লেখ করেছে।

যে কারণে সিরিয়ায় ইরানপন্থী সেনাঘাঁটিতে মার্কিন হামলা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:২৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর প্রথমবারের মতো গত বৃহস্পতিবার বিকালে সিরিয়ায় ইরানপন্থী সেনাঘাঁটিতে হামলা চালায় মার্কিন বাহিনী।

এতে কমপক্ষে ১৭ সেনা নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়। ইরানসমর্থিত এসব বাহিনীর ব্যবহৃত অবকাঠামোগুলোর ওপর কয়েক দফা বিমান হামলা চালানো হয়েছে। খবর রয়টার্সের।

ইরাক-সীমান্ত সংলগ্ন এইসব অবকাঠামো ব্যবহার করে ইরাকের পপুলার মবিলাইজেশন ইউনিট বা হাশদ্‌ আশ শাবির যোদ্ধারা এবং কাতাইব হিজবুল্লাহ ও কাতাইব সাইয়্যিদুশ শুহাদা নামের সশস্ত্র গ্রুপের যোদ্ধারা।

সম্প্রতি ইরাকে মার্কিন বাহিনী ও তার মিত্রদের অবস্থানে রকেট হামলার জবাবে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে পেন্টাগনের মুখপাত্র দাবি করেছেন।

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগন জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নির্দেশে ইরাক সীমান্তবর্তী পূর্ব সিরিয়ায় সন্ত্রাসবিরোধী ইরাকি বাহিনীগুলোর কয়েকটি অবস্থানের ওপর বোমা বর্ষণ করেছে মার্কিন বাহিনী।


রাশিয়া এই হামলার নিন্দা জানিয়ে একে অবৈধ ও বিপজ্জনক বলে মন্তব্য করেছে এবং এর ফলে উত্তেজনা বৃদ্ধি ছাড়াও এ অঞ্চলে বড় ধরনের সংঘাত সৃষ্টি হতে পারে বলে হুশিয়ারি দিয়েছে।

ইরবিলে মার্কিন বিমান ঘাঁটিতে সম্প্রতি যে রকেট হামলা হয়েছে তা ইরানসমর্থিত ইরাকি গোষ্ঠীগুলোর কাজ বলে মার্কিন সরকার দাবি করে এবং এর কঠোর জবাব দেওয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছিল ওয়াশিংটন।

অথচ ইরান ওই হামলার নিন্দা জানিয়েছিল এবং ইরাকে মার্কিন সেনা উপস্থিতি অব্যাহত রাখার অজুহাত তৈরি করতেই সন্দেহজনক ওই হামলা চালানো হয়েছে বলে তেহরান উল্লেখ করেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সিরিয়া যুদ্ধ