ইসরাইলি জাহাজে ইরানের হামলা!
jugantor
ইসরাইলি জাহাজে ইরানের হামলা!

  অনলাইন ডেস্ক  

০১ মার্চ ২০২১, ১৪:১১:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ওমান উপকূলে ইসরাইলি জাহাজ এমভি হিলিয়াস রেতে হামলার কথা কেউ আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার না করলেও ইরানের একটি কট্টরপন্থি পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে– তেহরানই ওই হামলা চালিয়েছে।

ওমান থেকে জাহাজটি গত বৃহস্পতিবার সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটে। এতে জাহাজটিতে একাধিক ফুটো হয়। খবর আরব নিউজের।

ইরানের কট্টরপন্থি দৈনিক কায়হানের একটি খবরে রোববার বলা হয়, আরব উপসাগরে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর জাহাজটি গুপ্তচরবৃত্তির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছিল। এ কারণে এতে ইরান হামলা চালায়।

জাহাজটি বর্তমানে মেরামতের জন্য দুবাই বন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে। ইরানের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের জলসীমায় নানা উত্তেজনার মধ্যে ইসরাইলি জাহাজে এই বিস্ফোরণ জল্পনা-কল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

ইসরাইলি জাহাজটি রোববার দুবাইয়ের রাশিদ বন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে।

মার্কিন সামরিক সূত্রে জানা গেছে, বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও জাহাজটির কোনো ক্রু হতাহত হয়নি। বন্দরের দিকে অংশ দুটা গর্ত দেখা গেছে জাহাজের গায়ে এবং পানির দিকে অংশে দুটা।

বন্দরে ইসরাইলি জাহাজটির নোঙর করা নিয়ে আমিরাতের কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেনি।

শনিবার ইসরাইলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গানৎজ জানান, প্রাথমিক অনুসন্ধানে পাওয়া গেছে, জাহাজটিতে বিস্ফোরণের জন্য ইরানই দায়ী।

ইসরাইলি জাহাজে ইরানের হামলা!

 অনলাইন ডেস্ক 
০১ মার্চ ২০২১, ০২:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ওমান উপকূলে ইসরাইলি জাহাজ এমভি হিলিয়াস রেতে হামলার কথা কেউ আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার না করলেও ইরানের একটি কট্টরপন্থি পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে– তেহরানই ওই হামলা চালিয়েছে।

ওমান থেকে জাহাজটি গত বৃহস্পতিবার সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটে। এতে জাহাজটিতে একাধিক ফুটো হয়। খবর আরব নিউজের।

ইরানের কট্টরপন্থি দৈনিক কায়হানের একটি খবরে রোববার বলা হয়, আরব উপসাগরে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর জাহাজটি গুপ্তচরবৃত্তির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছিল। এ কারণে এতে ইরান হামলা চালায়।
 
জাহাজটি বর্তমানে মেরামতের জন্য দুবাই বন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে। ইরানের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের জলসীমায় নানা উত্তেজনার মধ্যে ইসরাইলি জাহাজে এই বিস্ফোরণ জল্পনা-কল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

ইসরাইলি জাহাজটি রোববার দুবাইয়ের রাশিদ বন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে।

মার্কিন সামরিক সূত্রে জানা গেছে, বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও জাহাজটির কোনো ক্রু হতাহত হয়নি। বন্দরের দিকে অংশ দুটা গর্ত দেখা গেছে জাহাজের গায়ে এবং পানির দিকে অংশে দুটা।

বন্দরে ইসরাইলি জাহাজটির নোঙর করা নিয়ে আমিরাতের কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেনি।

শনিবার ইসরাইলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গানৎজ জানান, প্রাথমিক অনুসন্ধানে পাওয়া গেছে, জাহাজটিতে বিস্ফোরণের জন্য ইরানই দায়ী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ইরাকে মার্কিন-ইরান ছায়াযুদ্ধ

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১