শতাধিক রাষ্ট্রদূতকে মিয়ানমারে ফেরার নির্দেশ জান্তার
jugantor
শতাধিক রাষ্ট্রদূতকে মিয়ানমারে ফেরার নির্দেশ জান্তার

  যুগান্তর ডেস্ক  

০১ মার্চ ২০২১, ১৮:৪০:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

শতাধিক রাষ্ট্রদূতকে মিয়ানমারে ফেরার নির্দেশ জান্তার

বিদেশি মিশনে দায়িত্বরত মিয়ানমারের শতাধিক কর্মকর্তাকে দেশে ফেরার নির্দেশ দিয়েছে সদ্য দায়িত্ব নেওয়া সেনা কর্তৃপক্ষ।

জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুনের সেনাবিরোধী বিদ্রোহের পরই অন্তত ১৯টি দেশে সু চিপন্থি স্টাফদের এই নির্দেশ দেওয়া হয়।

সেই সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রায় অর্ধশতাধিক কর্মকর্তাকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিষয়টি দেশটির জান্তা সরকার গোপন করতে চাইলেও এ সম্পর্কিত বেশ কিছু নথি ফাঁস হয়ে গেছে। সোমবার এসব নথির বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে দ্য ইরাবতী।

খবরে বলা হয়, রোববার এক নির্দেশনায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়বিষয়ক উপদেষ্টা ও সচিবসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের ডেকে পাঠায় সামরিক জান্তা সরকার।

সেই সঙ্গে দেশে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয় বিদেশি মিশনে কর্মরত প্রায় শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীকে।

এসব কর্মকর্তা যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, অস্ট্রিয়া, ব্রাজিল, ফ্রান্স, নরওয়ে, বেলজিয়াম, সার্বিয়া, চীনা, জাপান, ভারত, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও ফিলিপাইনের মতো ১৯ দেশে কর্মরত রয়েছেন।

নথির বরাতে খবরে আরও বলা হয়, রাজধানী নেপিদোয় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ব্যাপক রদবদল করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের শতাধিক কর্মকর্তাকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান ও অবৈধ ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে প্রায় এক মাস ধরে অব্যাহত রয়েছে বিক্ষোভ-আন্দোলন। সেনা সরকারের ব্যাপক দমনপীড়ন, ধরপাকড় ও গুলি করে একের পর এক হত্যার পরও এই আন্দোলন প্রতিদিনই জোরালো হচ্ছে।

জান্তার বিরুদ্ধে এই গণঅভ্যুত্থানের মধ্যে ক্ষমতাচ্যুত দল এনএলডির প্রতি আনুগত্য প্রকাশ ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক অবস্থান নেন জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুন।

শুধু তাই নয়, চলমান বিক্ষোভ-আন্দোলনে সমর্থন প্রকাশ করে প্রতিবাদের জনপ্রিয় প্রতীক ‘থ্রি ফিঙ্গার সেল্যুট’ (তিন আঙুলে সালাম) দেন তিনি।

শুক্রবার ১৯৩ সদস্যের সাধারণ পরিষদে ক্ষমতাচ্যুত সু চি সরকারের পক্ষে কথা বলেন তিনি। সেই সঙ্গে তিনি সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং দেশটির জনগণের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান তুন।

সেনাবিরোধী অবস্থান ও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য দেওয়ায় ওই রাষ্ট্রদূতকে বরখাস্ত করা হয়েছে। রোববার মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, কিয়াউ মো তুনকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

শতাধিক রাষ্ট্রদূতকে মিয়ানমারে ফেরার নির্দেশ জান্তার

 যুগান্তর ডেস্ক 
০১ মার্চ ২০২১, ০৬:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শতাধিক রাষ্ট্রদূতকে মিয়ানমারে ফেরার নির্দেশ জান্তার
সামরিক অভ্যুত্থানের পর রোববার সবচেয়ে রক্তাক্ত দিন পার করেছে মিয়ানমার।

বিদেশি মিশনে দায়িত্বরত মিয়ানমারের শতাধিক কর্মকর্তাকে দেশে ফেরার নির্দেশ দিয়েছে সদ্য দায়িত্ব নেওয়া সেনা কর্তৃপক্ষ। 

জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুনের সেনাবিরোধী বিদ্রোহের পরই অন্তত ১৯টি দেশে সু চিপন্থি স্টাফদের এই নির্দেশ দেওয়া হয়। 

সেই সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রায় অর্ধশতাধিক কর্মকর্তাকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

বিষয়টি দেশটির জান্তা সরকার গোপন করতে চাইলেও এ সম্পর্কিত বেশ কিছু নথি ফাঁস হয়ে গেছে। সোমবার এসব নথির বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে দ্য ইরাবতী।  

খবরে বলা হয়, রোববার এক নির্দেশনায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়বিষয়ক উপদেষ্টা ও সচিবসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের ডেকে পাঠায় সামরিক জান্তা সরকার। 

সেই সঙ্গে দেশে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয় বিদেশি মিশনে কর্মরত প্রায় শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীকে। 

এসব কর্মকর্তা যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, অস্ট্রিয়া, ব্রাজিল, ফ্রান্স, নরওয়ে, বেলজিয়াম, সার্বিয়া, চীনা, জাপান, ভারত, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও ফিলিপাইনের মতো ১৯ দেশে কর্মরত রয়েছেন। 

নথির বরাতে খবরে আরও বলা হয়, রাজধানী নেপিদোয় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ব্যাপক রদবদল করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের শতাধিক কর্মকর্তাকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান ও অবৈধ ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে প্রায় এক মাস ধরে অব্যাহত রয়েছে বিক্ষোভ-আন্দোলন। সেনা সরকারের ব্যাপক দমনপীড়ন, ধরপাকড় ও গুলি করে একের পর এক হত্যার পরও এই আন্দোলন প্রতিদিনই জোরালো হচ্ছে। 

জান্তার বিরুদ্ধে এই গণঅভ্যুত্থানের মধ্যে ক্ষমতাচ্যুত দল এনএলডির প্রতি আনুগত্য প্রকাশ ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক অবস্থান নেন জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুন। 

শুধু তাই নয়, চলমান বিক্ষোভ-আন্দোলনে সমর্থন প্রকাশ করে প্রতিবাদের জনপ্রিয় প্রতীক ‘থ্রি ফিঙ্গার সেল্যুট’ (তিন আঙুলে সালাম) দেন তিনি। 

শুক্রবার ১৯৩ সদস্যের সাধারণ পরিষদে ক্ষমতাচ্যুত সু চি সরকারের পক্ষে কথা বলেন তিনি। সেই সঙ্গে তিনি সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং দেশটির জনগণের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান তুন। 

সেনাবিরোধী অবস্থান ও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য দেওয়ায় ওই রাষ্ট্রদূতকে বরখাস্ত করা হয়েছে। রোববার মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, কিয়াউ মো তুনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : অং সান সু চি আটক