নাভালনিকে বিষপ্রয়োগ: রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র
jugantor
নাভালনিকে বিষপ্রয়োগ: রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

  অনলাইন ডেস্ক  

০২ মার্চ ২০২১, ১২:০২:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্রেমলিনের সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনিকে বিষপ্রয়োগের ঘটনায় রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবারই এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হতে পারে।কয়েকটি সূত্রের বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের এমন সিদ্ধান্ত পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে রাশিয়ার প্রতি তার কঠোর অবস্থানেরই প্রতিফলন বলে মনে করা হচ্ছে।

গত আগস্টে নাভালনিকে বিষপ্রয়োগ করা হলে রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি ট্রাম্পকে।

তখন সাইবেরিয়া যাওয়ার পথে বিমানে অসুস্থ হয়ে পড়েন নাভালনি। পরে চিকিৎসার জন্য তাকে জার্মানিতে নিয়ে যাওয়া হয়। এই রুশ রাজনীতিবিদকে বিষাক্ত নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করা হয়েছিল বলে সেখানকার চিকিৎসকেরা সিদ্ধান্তে এসেছেন।

তবে তার অসুস্থতার ঘটনায় কোনো ভূমিকা থাকার কথা অস্বীকার করে ক্রেমলিন। বলা হয়, তাকে বিষপ্রয়োগ করার কোনো প্রমাণ নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্র সোমবার জানায়, দুটি নির্বাহী আদেশের অধীন নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নেবে যুক্তরাষ্ট্র। প্রথমটি ১৩৬৬১, ক্রিমিয়ায় রাশিয়ার হস্তক্ষেপের পর এটি ইস্যু করা হয়েছিল। রুশ কর্মকর্তাদের লক্ষ্যবস্তু বানাতে এতে ব্যাপক কর্তৃত্ব দেওয়া হয়েছিল।

দ্বিতীয়টি ১৩৩৮২, ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্র সম্প্রসারণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ২০০৫ সালে এটি ইস্যু করা হয়।

দুটি আদেশেই ওই ব্যক্তিদের মার্কিন সম্পদ জব্দ ও তাদের সঙ্গে যে কোনো কার্যক্রম চালিয়ে যেতে মার্কিন কোম্পানি এবং ব্যক্তিদের নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ১৯৯১ সালের মার্কিন রাসায়নিক ও জৈব অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ এবং যুদ্ধবিগ্রহ নিয়ন্ত্রণ আইনের অধীন পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনা আছে বাইডেন প্রশাসনের।

মঙ্গলবার আরোপ করতে যাওয়া নিষেধাজ্ঞায় বেশ কয়েক ব্যক্তিকে লক্ষ্যবস্তু করা হবে। কিন্তু কাদের ওপর আরোপ করা হবে; তা জানা সম্ভব হয়নি।

তবে এ নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তৃতীয় একটি সূত্র জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সমন্বয়ে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মঙ্গলবার নাগাদ আরোপ করা হতে পারে।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ চার রুশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে গত ২২ ফেব্রুয়ারি একমত হয়েছিলেন ইউরোপীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা।

জার্মানিতে চিকিৎসা শেষে গত জানুয়ারিতে রাশিয়া ফিরে যান নাভালনি। পরে তাকে গ্রেফতার করে প্যারোলের শর্ত লঙ্ঘনের ঘটনায় আড়াই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

নাভালনিকে বিষপ্রয়োগ: রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

 অনলাইন ডেস্ক 
০২ মার্চ ২০২১, ১২:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্রেমলিনের সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনিকে বিষপ্রয়োগের ঘটনায় রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবারই এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হতে পারে। কয়েকটি সূত্রের বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন খবর দিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের এমন সিদ্ধান্ত পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে রাশিয়ার প্রতি তার কঠোর অবস্থানেরই প্রতিফলন বলে মনে করা হচ্ছে।

গত আগস্টে নাভালনিকে বিষপ্রয়োগ করা হলে রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি ট্রাম্পকে।

তখন সাইবেরিয়া যাওয়ার পথে বিমানে অসুস্থ হয়ে পড়েন নাভালনি। পরে চিকিৎসার জন্য তাকে জার্মানিতে নিয়ে যাওয়া হয়। এই রুশ রাজনীতিবিদকে বিষাক্ত নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগ করা হয়েছিল বলে সেখানকার চিকিৎসকেরা সিদ্ধান্তে এসেছেন।

তবে তার অসুস্থতার ঘটনায় কোনো ভূমিকা থাকার কথা অস্বীকার করে ক্রেমলিন। বলা হয়, তাকে বিষপ্রয়োগ করার কোনো প্রমাণ নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্র সোমবার জানায়, দুটি নির্বাহী আদেশের অধীন নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নেবে যুক্তরাষ্ট্র। প্রথমটি ১৩৬৬১, ক্রিমিয়ায় রাশিয়ার হস্তক্ষেপের পর এটি ইস্যু করা হয়েছিল। রুশ কর্মকর্তাদের লক্ষ্যবস্তু বানাতে এতে ব্যাপক কর্তৃত্ব দেওয়া হয়েছিল। 

দ্বিতীয়টি ১৩৩৮২, ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্র সম্প্রসারণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ২০০৫ সালে এটি ইস্যু করা হয়।

দুটি আদেশেই ওই ব্যক্তিদের মার্কিন সম্পদ জব্দ ও তাদের সঙ্গে যে কোনো কার্যক্রম চালিয়ে যেতে মার্কিন কোম্পানি এবং ব্যক্তিদের নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ১৯৯১ সালের মার্কিন রাসায়নিক ও জৈব অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ এবং যুদ্ধবিগ্রহ নিয়ন্ত্রণ আইনের অধীন পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনা আছে বাইডেন প্রশাসনের।

মঙ্গলবার আরোপ করতে যাওয়া নিষেধাজ্ঞায় বেশ কয়েক ব্যক্তিকে লক্ষ্যবস্তু করা হবে। কিন্তু কাদের ওপর আরোপ করা হবে; তা জানা সম্ভব হয়নি।

তবে এ নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তৃতীয় একটি সূত্র জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সমন্বয়ে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মঙ্গলবার নাগাদ আরোপ করা হতে পারে। 

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ চার রুশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে গত ২২ ফেব্রুয়ারি একমত হয়েছিলেন ইউরোপীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা।

জার্মানিতে চিকিৎসা শেষে গত জানুয়ারিতে রাশিয়া ফিরে যান নাভালনি। পরে তাকে গ্রেফতার করে প্যারোলের শর্ত লঙ্ঘনের ঘটনায় আড়াই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : নাভালনি