সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা
jugantor
সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা

  যুগান্তর ডেস্ক  

০২ মার্চ ২০২১, ২০:২৫:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা

সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জার্মানির একটি আদালতে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার (আরএসএফ) নামে একটি সংস্থার করা ফৌজদারি মামলায় সৌদির আরও চারজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও অভিযোগ করা হয়েছে।

আল জাজিরা জানিয়েছে, জার্মানির আন্তর্জাতিক এখতিয়ার আইনের অধীনে প্রসিকিউটরদের তদন্তের দাবি করা এই অভিযোগটিতে আরও কয়েক ডজন সাংবাদিককে নির্যাতনের অভিযোগ করা হয়েছে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে।

এক বিবৃতিতে আরএসএফের সেক্রেটারি জেনারেল ক্রিস্টোফি দেলোইরে বলেছেন, কেউ আন্তর্জাতিক আইনের ঊর্ধ্বে নয়। আমরা জার্মান প্রসিকিউটরদের এমন একটি অবস্থান নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছি।

খাসোগি হত্যার নির্দেশদাতা হিসেবে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জড়িত ছিলেন বলে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশের চার দিন পর এই মামলা হলো।

২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে খাশোগিকে হত্যা করে যুবরাজের গুপ্তচররা। পরে তার শরীর কেটে টুকরো টুকরো করে রাসায়নিক দিয়ে গলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় যুবরাজকে দায়ী করে শুক্রবার গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাইডেন প্রশাসন। ৩৫ বছর বয়সী এমবিএসকে শাস্তির আওতায় না রাখলেও ৭৬ সৌদি নাগরিকের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা

 যুগান্তর ডেস্ক 
০২ মার্চ ২০২১, ০৮:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা
ফাইল ছবি

সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জার্মানির একটি আদালতে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। 

মঙ্গলবার রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার (আরএসএফ) নামে একটি সংস্থার করা ফৌজদারি মামলায় সৌদির আরও চারজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও অভিযোগ করা হয়েছে। 

আল জাজিরা জানিয়েছে, জার্মানির আন্তর্জাতিক এখতিয়ার আইনের অধীনে প্রসিকিউটরদের তদন্তের দাবি করা এই অভিযোগটিতে আরও কয়েক ডজন সাংবাদিককে নির্যাতনের অভিযোগ করা হয়েছে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে।

এক বিবৃতিতে আরএসএফের সেক্রেটারি জেনারেল ক্রিস্টোফি দেলোইরে বলেছেন, কেউ আন্তর্জাতিক আইনের ঊর্ধ্বে নয়। আমরা জার্মান প্রসিকিউটরদের এমন একটি অবস্থান নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছি। 

খাসোগি হত্যার নির্দেশদাতা হিসেবে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জড়িত ছিলেন বলে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশের চার দিন পর এই মামলা হলো।

২০১৮ সালের ২ অক্টোবর ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে খাশোগিকে হত্যা করে যুবরাজের গুপ্তচররা। পরে তার শরীর কেটে টুকরো টুকরো করে রাসায়নিক দিয়ে গলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় যুবরাজকে দায়ী করে শুক্রবার গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাইডেন প্রশাসন। ৩৫ বছর বয়সী এমবিএসকে শাস্তির আওতায় না রাখলেও ৭৬ সৌদি নাগরিকের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজ