সাংবাদিকদের সম্মানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের লরেঞ্জো নাতালি পুরস্কার
jugantor
সাংবাদিকদের সম্মানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের লরেঞ্জো নাতালি পুরস্কার

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

০২ মার্চ ২০২১, ২২:০৩:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সাংবাদিকদের সম্মান এবং উৎসাহ প্রদান করার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নে লরেঞ্জো নাতালি পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।

ইউরোপিয়ান কমিশনের ডিরেক্টরেট ফর ইন্টারন্যাশনাল পার্টনারশিপ (ডিজি-আইএনটিপিএ) ১৯৯২ সালে লরেঞ্জো নাতালি মিডিয়া পুরস্কার ঘোষণা করেন, যা প্রতি বছর কৃতিত্বপূর্ণ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে তুলে নিয়ে আসছেন অসমতা, দারিদ্র্য, শিক্ষা, টেকসই উন্নয়ন, পরিবেশ, জীববৈচিত্র্য, আবহাওয়া সংক্রান্ত, ডিজিটাল, চাকরি এবং কর্মসংস্থান, শিক্ষা এবং দক্ষতার উন্নয়ন, অভিবাসন, স্বাস্থ্য, শান্তি, গণতন্ত্র এবং মানবাধিকার সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো।

তিনটি ক্যাটাগরিতে আবেদন করা যাবে। প্রথমটি হলো (১) গ্র্যান্ড প্রাইজ: উন্নয়ন এবং সহযোগিতা নিয়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অন্যতম অংশীদার দেশের মিডিয়াভিত্তিক প্রকাশিত প্রতিবেদন; (২) ইউরোপ প্রাইজ: ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ভিত্তিক মিডিয়া দ্বারা প্রকাশিত প্রতিবেদন (যুক্তরাজ্য বাদে) ও (৩) সেরা উদীয়মান সাংবাদিক পুরস্কার: ৩০ বছরের কমবয়সী সাংবাদিকদের জন্য যাদের রিপোর্ট ইউনিয়নভিত্তিক মিডিয়া দ্বারা প্রকাশিত হয়েছিল বা উন্নয়ন এবং সহযোগিতার বিষয়ে এর অংশীদার দেশগুলোর একটিতে।

১ মার্চ থেকে আবেদন শুরু হয়েছে; যা চলবে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশের সাংবাদিকরা এখানে অনলাইন ফরম লিংক https://form.jotform.com/210472443345349 পূরণ করে আবেদন করতে পারবেন। প্রতিটি ক্যাটাগরিতে বিজয়ী ১০ হাজার ইউরো পুরস্কার পাবেন এবং উদীয়মান সেরা সাংবাদিক ক্যাটাগরির বিজয়ীকে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে কাজ করার সুযোগ দেয়া হবে।

যার নামে এই পুরস্কার, সেই লরেঞ্জো নাতালির জন্ম ১৯২২ সালের ২ অক্টোবর ইতালির ফ্লোরেন্স শহরে। ইতালির একজন দক্ষ রাজনীতিবিদ ছিলেন তিনি। ১৯৭৭ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত তিনি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের একজন প্রাক্তন কমিশনার এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতা গণতন্ত্র মানবাধিকার ও উন্নয়নের কট্টর একজন রক্ষক। তিনি মৃত্যুবরণ করেন ১৯৮৯ সালের ২৯ আগস্ট ইতালির রোম শহরে।

গত বছরের সংস্করণটিতে বিজয়ীরা হলেন- দ্যু জাং-গ্র্যান্ড প্রাইজ বিভাগের অধীনে- হংকংয়ের প্রতিবাদের ২০১৯ সালের একটি রিপোর্টের জন্য, সিসিল শিলিস গাল্লেগো এবং মেরিওন গুয়েগান-ইউরোপ প্রাইজ- খনির রিপোর্টের প্রতিবেদনে সাংবাদিকরা যে প্রতিকূল পরিবেশের মুখোমুখি হয়েছিল তা দেখানোর জন্য ও সেরা উদীয়মান সাংবাদিক হিসাবে সাংবাদিক হিসেবে শোলা লয়াল আফ্রিকা অভিবাসীদের উত্তর আমেরিকা পৌঁছানোর জন্য যে বিপজ্জনক পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছে সে সম্পর্কে রিপোর্ট করার জন্য।

সাংবাদিকদের সম্মানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের লরেঞ্জো নাতালি পুরস্কার

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
০২ মার্চ ২০২১, ১০:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সাংবাদিকদের সম্মান এবং উৎসাহ প্রদান করার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নে লরেঞ্জো নাতালি পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।

ইউরোপিয়ান কমিশনের ডিরেক্টরেট ফর ইন্টারন্যাশনাল পার্টনারশিপ (ডিজি-আইএনটিপিএ) ১৯৯২ সালে লরেঞ্জো নাতালি মিডিয়া পুরস্কার ঘোষণা করেন, যা প্রতি বছর কৃতিত্বপূর্ণ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে তুলে নিয়ে আসছেন অসমতা, দারিদ্র্য, শিক্ষা, টেকসই উন্নয়ন, পরিবেশ, জীববৈচিত্র্য, আবহাওয়া সংক্রান্ত, ডিজিটাল, চাকরি এবং কর্মসংস্থান, শিক্ষা এবং দক্ষতার উন্নয়ন, অভিবাসন, স্বাস্থ্য, শান্তি, গণতন্ত্র এবং মানবাধিকার সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো।

তিনটি ক্যাটাগরিতে আবেদন করা যাবে। প্রথমটি হলো (১) গ্র্যান্ড প্রাইজ: উন্নয়ন এবং সহযোগিতা নিয়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অন্যতম অংশীদার দেশের মিডিয়াভিত্তিক প্রকাশিত প্রতিবেদন; (২) ইউরোপ প্রাইজ: ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ভিত্তিক মিডিয়া দ্বারা প্রকাশিত প্রতিবেদন (যুক্তরাজ্য বাদে) ও (৩) সেরা উদীয়মান সাংবাদিক পুরস্কার: ৩০ বছরের কমবয়সী সাংবাদিকদের জন্য যাদের রিপোর্ট ইউনিয়নভিত্তিক মিডিয়া দ্বারা প্রকাশিত হয়েছিল বা উন্নয়ন এবং সহযোগিতার বিষয়ে এর অংশীদার দেশগুলোর একটিতে।

১ মার্চ থেকে আবেদন শুরু হয়েছে; যা চলবে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশের সাংবাদিকরা এখানে অনলাইন ফরম লিংক https://form.jotform.com/210472443345349 পূরণ করে আবেদন করতে পারবেন। প্রতিটি ক্যাটাগরিতে বিজয়ী ১০ হাজার ইউরো পুরস্কার পাবেন এবং উদীয়মান সেরা সাংবাদিক ক্যাটাগরির বিজয়ীকে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে কাজ করার সুযোগ দেয়া হবে।

যার নামে এই পুরস্কার, সেই লরেঞ্জো নাতালির জন্ম ১৯২২ সালের ২ অক্টোবর ইতালির ফ্লোরেন্স শহরে। ইতালির একজন দক্ষ রাজনীতিবিদ ছিলেন তিনি। ১৯৭৭ থেকে ১৯৮৯ সাল পর্যন্ত তিনি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের একজন প্রাক্তন কমিশনার এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতা গণতন্ত্র মানবাধিকার ও উন্নয়নের কট্টর একজন রক্ষক। তিনি মৃত্যুবরণ করেন ১৯৮৯ সালের ২৯ আগস্ট ইতালির রোম শহরে।

গত বছরের সংস্করণটিতে বিজয়ীরা হলেন- দ্যু জাং-গ্র্যান্ড প্রাইজ বিভাগের অধীনে- হংকংয়ের প্রতিবাদের ২০১৯ সালের একটি রিপোর্টের জন্য, সিসিল শিলিস গাল্লেগো এবং মেরিওন গুয়েগান-ইউরোপ প্রাইজ- খনির রিপোর্টের প্রতিবেদনে সাংবাদিকরা যে প্রতিকূল পরিবেশের মুখোমুখি হয়েছিল তা দেখানোর জন্য ও সেরা উদীয়মান সাংবাদিক হিসাবে সাংবাদিক হিসেবে শোলা লয়াল আফ্রিকা অভিবাসীদের উত্তর আমেরিকা পৌঁছানোর জন্য যে বিপজ্জনক পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছে সে সম্পর্কে রিপোর্ট করার জন্য।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন