মিয়ানমারের বড় পরিসরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা আন্দোলনকারীদের
jugantor
মিয়ানমারের বড় পরিসরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা আন্দোলনকারীদের

  অনলাইন ডেস্ক  

০৪ মার্চ ২০২১, ১৫:৫৩:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ৩৮ জন নিহতের পরদিন বৃহস্পতিবার আরও বড় পরিসরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা করছে মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী আন্দোলনকারীরা।

সামরিক জান্তার রক্তচক্ষু উপেক্ষা করেই রাজপথে নামছেন তারা। বৃহস্পতিবার আন্দোলনকারীরা আগের দিনের চেয়েও বড় আকারে মিছিল-সমাবেশের আয়োজন করেছেন। খবর রয়টার্স।

আন্দোলনকারীদের একজন মাউং সাউংখা বলেন, আমরা জানি যে কোনও মুহূর্তেই আমরা গুলিবিদ্ধ কিংবা খুন হতে পারি। তারপরও সামরিক জান্তার অধীনে বেঁচে থাকার কোনও মানে নেই। এ কারণেই এই পথ বেছে নিয়েছি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বৃহস্পতিবার ইয়াঙ্গুনে অন্তত দুটি বিক্ষোভের পরিকল্পনার কথা জানানো হয়েছে।

এরআগে বুধবার সেনাশাসনের অবসান দাবিতে মিয়ানমারের বিভিন্ন শহরে গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালিয়ে কমপক্ষে ৩৮ জনকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

পুলিশ-সেনা বাহিনীর এই তাণ্ডবে আহত হয়েছেন অনেকে। আটক করা হয়েছে তিন শতাধিক মানুষকে। এক মাসের চলমান বিক্ষোভে এক দিনে নিহতের সংখ্যা এটাই সর্বোচ্চ।

গত এক মাসের বিক্ষোভে ৫০ জনের বেশি মানুষকে হত্যা ও দেড় সহস্রাধিক মানুষকে আটক করেছে সেনা-পুলিশ।

মিয়ানমারের বড় পরিসরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা আন্দোলনকারীদের

 অনলাইন ডেস্ক 
০৪ মার্চ ২০২১, ০৩:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ৩৮ জন নিহতের পরদিন বৃহস্পতিবার আরও বড় পরিসরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা করছে মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী আন্দোলনকারীরা।

সামরিক জান্তার রক্তচক্ষু উপেক্ষা করেই রাজপথে নামছেন তারা। বৃহস্পতিবার আন্দোলনকারীরা আগের দিনের চেয়েও বড় আকারে মিছিল-সমাবেশের আয়োজন করেছেন। খবর রয়টার্স।

আন্দোলনকারীদের একজন মাউং সাউংখা বলেন, আমরা জানি যে কোনও মুহূর্তেই আমরা গুলিবিদ্ধ কিংবা খুন হতে পারি। তারপরও সামরিক জান্তার অধীনে বেঁচে থাকার কোনও মানে নেই। এ কারণেই এই পথ বেছে নিয়েছি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বৃহস্পতিবার ইয়াঙ্গুনে অন্তত দুটি বিক্ষোভের পরিকল্পনার কথা জানানো হয়েছে।

এরআগে বুধবার সেনাশাসনের অবসান দাবিতে মিয়ানমারের বিভিন্ন শহরে গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালিয়ে কমপক্ষে ৩৮ জনকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

পুলিশ-সেনা বাহিনীর এই তাণ্ডবে আহত হয়েছেন অনেকে। আটক করা হয়েছে তিন শতাধিক মানুষকে। এক মাসের চলমান বিক্ষোভে এক দিনে নিহতের সংখ্যা এটাই সর্বোচ্চ।

গত এক মাসের বিক্ষোভে ৫০ জনের বেশি মানুষকে হত্যা ও দেড় সহস্রাধিক মানুষকে আটক করেছে সেনা-পুলিশ।

 

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : অং সান সু চি আটক