ওয়েব সিরিজের নামে পর্নোগ্রাফি দেখানো হচ্ছে: ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট
jugantor
ওয়েব সিরিজের নামে পর্নোগ্রাফি দেখানো হচ্ছে: ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৪ মার্চ ২০২১, ১৬:৪৭:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

ওয়েব সিরিজের নামে পর্নোগ্রাফি দেখানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেনভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট।

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে কী দেখানো হবে, তার নির্দেশনা দিতে গিয়ে বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি অশোক ভূষণ বলেছেন, ‘এখন এই ধরনের মাধ্যমে সিনেমা বা সিরিজ খুবই পরিচিত। কিন্তু এর ওপর নজরদারির দরকার আছে। কারণ এখানে পর্নোগ্রাফিও দেখানো হয়।’ খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

পরে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে কী দেখানো হবে, তা নিয়ন্ত্রণের নীতিমালা করার নির্দেশ দেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ওটিটি প্ল্যাটফর্মের গোটা বিষয়টিতে কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট।

রায়ে বলা হয়েছে, ওটিটিপর্নোগ্রাফির মতো ছবিও এসব মাধ্যমগুলিতে দেখানো হচ্ছে। ফলে এদের ওপর বিশেষ নজরদারির প্রয়োজন আছে।

হালে ওয়েব-মাধ্যমে দেখানো সিরিজ ‘তাণ্ডব’ নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হয়েছে। যে প্ল্যাটফর্মে সিরিজটি দেখানো হয়, সেই আমাজনের ভারতীয় প্রধান অপর্ণা পুরোহিতের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের হয়। অপর্ণা তার প্রেক্ষিতে আগাম জামিনের আবেদন করেন। সেই আবেদন ইলাহাবাদ হাইকোর্টে খারিজ হয়ে যায়। অপর্ণা তার প্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

এই ওয়েব-মাধ্যমের ওপর নজরদারির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফেও দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এই বিষয়ে একটি কমিটি তৈরি করার পরিকল্পনাও রয়েছে। অভিযোগ, করোনার কারণে যেহেতু সিনেমা হলগুলি দীর্ঘদিন ছবি দেখাতে পারেনি, তাই এই মাধ্যমগুলি অবাধে ছবির মুক্তি ঘটিয়েছে। আর সেন্সরশিপের কোনও তোয়াক্কা না করে দেদার দেখিয়েছে নানা ধরনের ছবি। ফলে এদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে উঠেপড়ে লেগেছে সরকার।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের পর সরকারের জন্য কাজটি সহজ হয়ে গেছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ওয়েব সিরিজের নামে পর্নোগ্রাফি দেখানো হচ্ছে: ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৪ মার্চ ২০২১, ০৪:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি
ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

ওয়েব সিরিজের নামে পর্নোগ্রাফি দেখানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট। 

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে কী দেখানো হবে, তার নির্দেশনা দিতে গিয়ে বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি অশোক ভূষণ বলেছেন, ‘এখন এই ধরনের মাধ্যমে সিনেমা বা সিরিজ খুবই পরিচিত। কিন্তু এর ওপর নজরদারির দরকার আছে। কারণ এখানে পর্নোগ্রাফিও দেখানো হয়।’ খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

পরে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে কী দেখানো হবে, তা নিয়ন্ত্রণের নীতিমালা করার নির্দেশ দেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ওটিটি প্ল্যাটফর্মের গোটা বিষয়টিতে কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট। 

রায়ে বলা হয়েছে, ওটিটি  পর্নোগ্রাফির মতো ছবিও এসব মাধ্যমগুলিতে দেখানো হচ্ছে। ফলে এদের ওপর বিশেষ নজরদারির প্রয়োজন আছে।

হালে ওয়েব-মাধ্যমে দেখানো সিরিজ ‘তাণ্ডব’ নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হয়েছে। যে প্ল্যাটফর্মে সিরিজটি দেখানো হয়, সেই আমাজনের ভারতীয় প্রধান অপর্ণা পুরোহিতের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের হয়। অপর্ণা তার প্রেক্ষিতে আগাম জামিনের আবেদন করেন। সেই আবেদন ইলাহাবাদ হাইকোর্টে খারিজ হয়ে যায়। অপর্ণা তার প্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

এই ওয়েব-মাধ্যমের ওপর নজরদারির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফেও দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এই বিষয়ে একটি কমিটি তৈরি করার পরিকল্পনাও রয়েছে। অভিযোগ, করোনার কারণে যেহেতু সিনেমা হলগুলি দীর্ঘদিন ছবি দেখাতে পারেনি, তাই এই মাধ্যমগুলি অবাধে ছবির মুক্তি ঘটিয়েছে। আর সেন্সরশিপের কোনও তোয়াক্কা না করে দেদার দেখিয়েছে নানা ধরনের ছবি। ফলে এদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে উঠেপড়ে লেগেছে সরকার। 

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের পর সরকারের জন্য কাজটি সহজ হয়ে গেছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন