পর্তুগালে পর্যটক ও ট্যুরিজম সমস্যা সমাধানে ডিজিটাল পদ্ধতি
jugantor
পর্তুগালে পর্যটক ও ট্যুরিজম সমস্যা সমাধানে ডিজিটাল পদ্ধতি

  ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে  

০৪ মার্চ ২০২১, ২২:৫৪:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগাল একটি পর্যটন অধ্যুষিত দেশ। প্রতি বছর লাখ লাখ পর্যটক পর্তুগাল ভ্রমণ করেন। বিভিন্ন সময় ভ্রমণকারীর বিভিন্ন সেবা বাতিল হয় অর্থাৎ হোটেল বুকিং, পরিবহন ভাড়া তাছাড়া বিভিন্ন স্থান ভ্রমণের পরিষেবাসমূহ বাতিল হয়। বাতিলকৃত এ ভ্রমণসংশ্লিষ্ট পরিষেবার প্রদেয় অর্থ ফেরত পাওয়ার জন্য ভ্রমণকারীকে অনেক জটিলতা পোহাতে হয়।

এমন পরিস্থিতিতে ভ্রমণকারীর আত্মবিশ্বাস তৈরিতে সিমপ্লেক্স প্লাস প্রোগ্রামের আওতায় একটি অনলাইন প্লাটফর্ম চালু করেছে; যাতে ভ্রমণকারী এবং সংশ্লিষ্ট এজেন্ট বা ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠান তাদের বাতিল ভ্রমণের অর্থ ফেরত না পেলে আর্বিট্রেশন হিসেবে এখানে আবেদন করতে পারবেন এবং ট্যুরিজম ডে পর্তুগাল আবেদনকারীর পক্ষে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ ফেরতের ব্যবস্থা করবে।

এক বিবৃতিতে পর্তুগালের পর্যটনমন্ত্রী রিতা মার্কেস বলেন, এ প্ল্যাটফর্মটি পর্যটন সেবার মানকে বাড়িয়ে তুলবে এবং একটি শৃঙ্খলা বজায় করা সম্ভব হবে ফলে দ্রুত সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে; যা পর্যটকদেরকে উৎসাহিত করবে।

উল্লেখ্য, পর্তুগালের মোট অর্থনীতির ১৮ শতাংশ পর্যটন খাত থেকে আসে। তাছাড়া আমাদের বাংলাদেশের সব প্রবাসী সাধারণত বলতে গেলে ৯৫ ভাগই পর্যটন খাতের সাথে জীবন-জীবিকা জড়িত। করোনা মহামারিতে পর্তুগালের পর্যটন খাত মুখথুবড়ে পড়েছে। পর্তুগিস সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের মাধ্যমে পর্যটন খাতকে শক্তিশালী করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

পর্তুগালে পর্যটক ও ট্যুরিজম সমস্যা সমাধানে ডিজিটাল পদ্ধতি

 ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী, পর্তুগাল থেকে 
০৪ মার্চ ২০২১, ১০:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পর্তুগাল একটি পর্যটন অধ্যুষিত দেশ। প্রতি বছর লাখ লাখ পর্যটক পর্তুগাল ভ্রমণ করেন। বিভিন্ন সময় ভ্রমণকারীর বিভিন্ন সেবা বাতিল হয় অর্থাৎ হোটেল বুকিং, পরিবহন ভাড়া তাছাড়া বিভিন্ন স্থান ভ্রমণের পরিষেবাসমূহ বাতিল হয়। বাতিলকৃত এ ভ্রমণসংশ্লিষ্ট পরিষেবার প্রদেয় অর্থ ফেরত পাওয়ার জন্য ভ্রমণকারীকে অনেক জটিলতা পোহাতে হয়।

এমন পরিস্থিতিতে ভ্রমণকারীর আত্মবিশ্বাস তৈরিতে সিমপ্লেক্স প্লাস প্রোগ্রামের আওতায় একটি অনলাইন প্লাটফর্ম চালু করেছে; যাতে ভ্রমণকারী এবং সংশ্লিষ্ট এজেন্ট বা ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠান তাদের বাতিল ভ্রমণের অর্থ ফেরত না পেলে আর্বিট্রেশন হিসেবে এখানে আবেদন করতে পারবেন এবং ট্যুরিজম ডে পর্তুগাল আবেদনকারীর পক্ষে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ ফেরতের ব্যবস্থা করবে।

এক বিবৃতিতে পর্তুগালের পর্যটনমন্ত্রী রিতা মার্কেস বলেন, এ প্ল্যাটফর্মটি পর্যটন সেবার মানকে বাড়িয়ে তুলবে এবং একটি শৃঙ্খলা বজায় করা সম্ভব হবে ফলে দ্রুত সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে; যা পর্যটকদেরকে উৎসাহিত করবে। 

উল্লেখ্য, পর্তুগালের মোট অর্থনীতির ১৮ শতাংশ পর্যটন খাত থেকে আসে। তাছাড়া আমাদের বাংলাদেশের সব প্রবাসী সাধারণত বলতে গেলে ৯৫ ভাগই পর্যটন খাতের সাথে জীবন-জীবিকা জড়িত। করোনা মহামারিতে পর্তুগালের পর্যটন খাত মুখথুবড়ে পড়েছে। পর্তুগিস সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের মাধ্যমে পর্যটন খাতকে শক্তিশালী করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন