বাসায় বোমা বানিয়ে স্কুলে নিয়ে গেল ছাত্র, অতঃপর...
jugantor
বাসায় বোমা বানিয়ে স্কুলে নিয়ে গেল ছাত্র, অতঃপর...

  অনলাইন ডেস্ক  

০৯ মার্চ ২০২১, ১৫:৩৭:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

বোমা

বাড়িতে বোমা বানিয়ে স্কুলে নিয়ে গিয়েছিল এক ছাত্র। শ্রেণিকক্ষের মধ্যেই হঠাৎ বোমাটি বিস্ফোরণ হয়। এতে ওই ছাত্রসহ তার চার সহপাঠী আহত হয়।

স্থানীয় সময় সোমবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে নিওয়েগো হাইস্কুলে এ ঘটনা ঘটে। খবর সিএনএন।

মিশিগানের পুলিশ এক টুইটবার্তায় জানিয়েছে, বিস্ফোরণের খবর পেয়ে সকাল ৮টা ৫২ মিনিটে পশ্চিম-মধ্য মিশিগানের ওই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে যায় পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে তারা জানতে পারেন, বাড়িতে বানানো বিস্ফোরকটি শ্রেণিকক্ষে নিয়ে এসেছিল ১৬ বছর বয়সী ওই ছাত্র। কিন্তু দুর্ঘটনাবশত সেটি ফেটে যায়।

এ সময় ওই ছাত্র ও তার আশপাশে থাকা চার সহপাঠী আহত হয়। বিস্ফোরণের পর জরুরি সহায়তা নম্বরে স্কুল কর্তৃপক্ষের ফোন পেয়ে দ্রুত স্কুলে হাজির হন উদ্ধারকর্মীরা। তারা বাকি শিক্ষার্থীদের স্কুলের গ্যারেজে নিয়ে যান।

বিস্ফোরণের পর পরই নিওয়েগো কাউন্টির সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। তবে কিছুক্ষণ পর স্কুলগুলো খুলে দেওয়া হয়।

মিশিগান রাজ্য পুলিশের মুখপাত্র মিশেল রবিনসন বলেন, ওই শিক্ষার্থীর কোনো ‘অসৎ’ ইচ্ছা ছিল না। ইচ্ছাকৃতভাবে এ ঘটনা সে ঘটায়নি।

তবে কোন ধরনের উপাদান ব্যবহার করে বোমাটি বানানো হয়েছে, সেটি তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বাসায় বোমা বানিয়ে স্কুলে নিয়ে গেল ছাত্র, অতঃপর...

 অনলাইন ডেস্ক 
০৯ মার্চ ২০২১, ০৩:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বোমা
প্রতীকী ছবি

বাড়িতে বোমা বানিয়ে স্কুলে নিয়ে গিয়েছিল এক ছাত্র। শ্রেণিকক্ষের মধ্যেই হঠাৎ বোমাটি বিস্ফোরণ হয়। এতে ওই ছাত্রসহ তার চার সহপাঠী আহত হয়।

স্থানীয় সময় সোমবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে নিওয়েগো হাইস্কুলে এ ঘটনা ঘটে। খবর সিএনএন।  

মিশিগানের পুলিশ এক টুইটবার্তায় জানিয়েছে, বিস্ফোরণের খবর পেয়ে সকাল ৮টা ৫২ মিনিটে পশ্চিম-মধ্য মিশিগানের ওই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে যায় পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে তারা জানতে পারেন, বাড়িতে বানানো বিস্ফোরকটি শ্রেণিকক্ষে নিয়ে এসেছিল ১৬ বছর বয়সী ওই ছাত্র। কিন্তু দুর্ঘটনাবশত সেটি ফেটে যায়। 

এ সময় ওই ছাত্র ও তার আশপাশে থাকা চার সহপাঠী আহত হয়। বিস্ফোরণের পর জরুরি সহায়তা নম্বরে স্কুল কর্তৃপক্ষের ফোন পেয়ে দ্রুত স্কুলে হাজির হন উদ্ধারকর্মীরা। তারা বাকি শিক্ষার্থীদের স্কুলের গ্যারেজে নিয়ে যান। 

বিস্ফোরণের পর পরই নিওয়েগো কাউন্টির সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। তবে কিছুক্ষণ পর স্কুলগুলো খুলে দেওয়া হয়।

মিশিগান রাজ্য পুলিশের মুখপাত্র মিশেল রবিনসন বলেন, ওই শিক্ষার্থীর কোনো ‘অসৎ’ ইচ্ছা ছিল না। ইচ্ছাকৃতভাবে এ ঘটনা সে ঘটায়নি।

তবে কোন ধরনের উপাদান ব্যবহার করে বোমাটি বানানো হয়েছে, সেটি তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন