দুই বছর পর আলোচনার টেবিলে ভারত-পাকিস্তান
jugantor
দুই বছর পর আলোচনার টেবিলে ভারত-পাকিস্তান

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৩ মার্চ ২০২১, ১৬:৪৯:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

দুই বছর পর আলোচনার টেবিলে ভারত-পাকিস্তান

দুই বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসতে যাচ্ছে ভারত ও পাকিস্তান।

মঙ্গলবার সিন্ধু পানিবণ্টন চুক্তি নিয়ে নয়াদিল্লিতে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়, এদিন দিল্লিতে ‘স্থায়ী সিন্ধু কমিশন’ এর দু'দিনের বৈঠক শুরু হতে যাচ্ছে। ওই বৈঠকে অংশ নিতে পাকিস্তানের সাত সদস্যের একটি টিম সোমবারই নয়াদিল্লি পৌঁছেছে ।

সিন্ধু কমিশনার সৈয়দ মুহাম্মদ মেহের আলির নেতৃত্বে ওই টিম ভারতে পৌঁছেছে। ভারতীয় প্রতিনিধি ও পাকিস্তানের সিন্ধু কমিশনের বিশেষ টিম মঙ্গলবার মুখোমুখি বৈঠকে বসবেন বলে জানানো হয়েছে।

ভারতীয় সিন্ধু কমিশনের টিমকে নেতৃত্ব দেবেন পি কে সাক্সেনা। তার সঙ্গে বৈঠকে থাকবেন সেন্ট্রাল ওয়াটার কমিশনের উপদেষ্টা, সেন্ট্রাল ইলেকট্রিসিটি অথরিটি ও ন্যাশনাল হাইড্রোইলেকট্রিক পাওয়ার কর্পোরেশনের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

১৯৬০ সালে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ‘সিন্ধু পানি চুক্তি’ হয়। দুই দেশের মধ্য দিয়ে অভিন্নভাবে প্রবাহিত নদীগুলোর পানিবণ্টন নিয়ে দ্বন্দের অবসানে ওই বছর গঠন করা হয় ‘স্থায়ী সিন্ধু কমিশন’।

চুক্তি অনুযায়ী, দু’দেশের প্রতিনিধিদের পানিবণ্টন নিয়ে আলোচনার জন্য বছরে অন্তত একবার বৈঠক করার কথা থাকলেও গত কয়েক বছরে তা হয়নি। সিন্ধু জলবন্টন চুক্তি নিয়ে শেষবার দুই দেশ বৈঠকে বসেছিল ২০১৮ সালের আগষ্ট মাসে।

২০১৯ সালে সংবিধানের ৩৭০ নং অনুচ্ছেদ বাতিলের মাধ্যমে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ জম্মু-কাশ্মীরের ওপর থেকে বিশেষ সুবিধা তুলে নেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক দেশ অন্য দেশ থেকে নিজেদের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে নেয়।

সাম্প্রতিক সময়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার সম্পর্ককে ঘিরে কৌতূহল রয়েছে বিশ্বজুড়েই। দীর্ঘদিনের বিদ্যমান টানাপোড়েনের সম্পর্কে বিভিন্ন উন্নতিও দেখা গেছে।

দুই বছর পর আলোচনার টেবিলে ভারত-পাকিস্তান

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৩ মার্চ ২০২১, ০৪:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দুই বছর পর আলোচনার টেবিলে ভারত-পাকিস্তান
ফাইল ছবি

দুই বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো বৈঠকে বসতে যাচ্ছে ভারত ও পাকিস্তান। 

মঙ্গলবার সিন্ধু পানিবণ্টন চুক্তি নিয়ে নয়াদিল্লিতে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে।  

খবরে বলা হয়, এদিন দিল্লিতে ‘স্থায়ী সিন্ধু কমিশন’ এর দু'দিনের বৈঠক শুরু হতে যাচ্ছে। ওই বৈঠকে অংশ নিতে পাকিস্তানের সাত সদস্যের একটি টিম সোমবারই নয়াদিল্লি পৌঁছেছে । 

সিন্ধু কমিশনার সৈয়দ মুহাম্মদ মেহের আলির নেতৃত্বে ওই টিম ভারতে পৌঁছেছে। ভারতীয় প্রতিনিধি ও পাকিস্তানের সিন্ধু কমিশনের বিশেষ টিম মঙ্গলবার মুখোমুখি বৈঠকে বসবেন বলে জানানো হয়েছে।

ভারতীয় সিন্ধু কমিশনের টিমকে নেতৃত্ব দেবেন পি কে সাক্সেনা। তার সঙ্গে বৈঠকে থাকবেন সেন্ট্রাল ওয়াটার কমিশনের উপদেষ্টা, সেন্ট্রাল ইলেকট্রিসিটি অথরিটি ও ন্যাশনাল হাইড্রোইলেকট্রিক পাওয়ার কর্পোরেশনের শীর্ষ কর্মকর্তারা।  

১৯৬০ সালে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ‘সিন্ধু পানি চুক্তি’ হয়। দুই দেশের মধ্য দিয়ে অভিন্নভাবে প্রবাহিত নদীগুলোর পানিবণ্টন নিয়ে দ্বন্দের অবসানে ওই বছর গঠন করা হয় ‘স্থায়ী সিন্ধু কমিশন’। 

চুক্তি অনুযায়ী, দু’দেশের প্রতিনিধিদের পানিবণ্টন নিয়ে আলোচনার জন্য বছরে অন্তত একবার বৈঠক করার কথা থাকলেও গত কয়েক বছরে তা হয়নি। সিন্ধু জলবন্টন চুক্তি নিয়ে শেষবার দুই দেশ বৈঠকে বসেছিল ২০১৮ সালের আগষ্ট মাসে।

২০১৯ সালে সংবিধানের ৩৭০ নং অনুচ্ছেদ বাতিলের মাধ্যমে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ জম্মু-কাশ্মীরের ওপর থেকে বিশেষ সুবিধা তুলে নেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক দেশ অন্য দেশ থেকে নিজেদের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে নেয়।

সাম্প্রতিক সময়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার সম্পর্ককে ঘিরে কৌতূহল রয়েছে বিশ্বজুড়েই। দীর্ঘদিনের বিদ্যমান টানাপোড়েনের সম্পর্কে বিভিন্ন উন্নতিও দেখা গেছে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট