খাশোগি হত্যার জাতিসংঘের তদন্তকারীকে প্রাণনাশের হুমকি দেন সৌদি কর্মকর্তা!
jugantor
খাশোগি হত্যার জাতিসংঘের তদন্তকারীকে প্রাণনাশের হুমকি দেন সৌদি কর্মকর্তা!

  অনলাইন ডেস্ক  

২৪ মার্চ ২০২১, ১২:২৯:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতিসংঘের তদন্তকারীকে হত্যার হুমকি দেন সৌদি কর্মকর্তারা!

জাতিসংঘের বিদায়ী তদন্ত কর্মকর্তা অ্যাগনেস কল্যামার্ডকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন সৌদি আরবের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা।ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার ঘটনায় তার জোরালো তদন্তের জেরে এ হুমকি এসেছে।

মঙ্গলবার ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান ও মিডল ইস্ট আই এমন খবর দিয়েছে।

অ্যাগনেস ক্যালামার্ড একজন স্বাধীন মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ। ২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে জামাল খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তিনি তদন্ত করেন।

এর এক বছর পর তিনি ১০০ পাতার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন, যাতে এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ও দেশটির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা রয়েছেন বলে বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ থাকার কথা জানিয়েছেন।

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডবিষয়ক এই বিশেষ দূত চলতি মাসে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মহাসচিবের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, জাতিসংঘের একজন সহকর্মী তাকে সতর্ক করে দিয়েছেন যে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে সৌদি আরবের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা তাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন।

জেনেভায় জাতিসংঘের অন্যান্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠককালে এই হুমকি দেওয়া হয়। এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে জ্যেষ্ঠ সৌদি কর্মকর্তারা বলেন, যদি জাতিসংঘ তাকে (ক্যালামার্ড) না থামায়, তবে তাকে দেখে নেওয়া হবে।

খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এই মানবাধিকারকর্মীর কাজের ব্যাপক সমালোচনা করেছেন সৌদি কর্মকর্তারা।

জাতিসংঘের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সফররত সৌদি কর্মকর্তা ও জেনোভাভিত্তিক সৌদি কূটনীতিকদের বৈঠকে তাকে হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি তার কাজ নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

ক্যালামার্ড তার প্রতিবেদনে খাশোগি হত্যাকে ‘আন্তর্জাতিক হত্যাকাণ্ড’ বলে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি বলেন, আমি কাতারের কাছ থেকে অর্থ নিয়েছি বলে মিথ্যা অভিযোগও দেওয়া হয়েছে। যদিও তার কোনো সত্যিকারের প্রমাণ তারা দিতে পারেনি।

খাশোগি হত্যার জাতিসংঘের তদন্তকারীকে প্রাণনাশের হুমকি দেন সৌদি কর্মকর্তা!

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ মার্চ ২০২১, ১২:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জাতিসংঘের তদন্তকারীকে হত্যার হুমকি দেন সৌদি কর্মকর্তারা!
ছবি: সংগৃহীত

জাতিসংঘের বিদায়ী তদন্ত কর্মকর্তা অ্যাগনেস কল্যামার্ডকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন সৌদি আরবের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা। ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার ঘটনায় তার জোরালো তদন্তের জেরে এ হুমকি এসেছে। 

মঙ্গলবার ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান ও মিডল ইস্ট আই এমন খবর দিয়েছে।

অ্যাগনেস ক্যালামার্ড একজন স্বাধীন মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ। ২০১৮ সালের অক্টোবরে ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে জামাল খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তিনি তদন্ত করেন।

এর এক বছর পর তিনি ১০০ পাতার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন, যাতে এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ও দেশটির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা রয়েছেন বলে বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ থাকার কথা জানিয়েছেন।

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডবিষয়ক এই বিশেষ দূত চলতি মাসে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মহাসচিবের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন। 

তিনি বলেন, জাতিসংঘের একজন সহকর্মী তাকে সতর্ক করে দিয়েছেন যে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে সৌদি আরবের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা তাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন।

জেনেভায় জাতিসংঘের অন্যান্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠককালে এই হুমকি দেওয়া হয়। এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে জ্যেষ্ঠ সৌদি কর্মকর্তারা বলেন, যদি জাতিসংঘ তাকে (ক্যালামার্ড) না থামায়, তবে তাকে দেখে নেওয়া হবে।

খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এই মানবাধিকারকর্মীর কাজের ব্যাপক সমালোচনা করেছেন সৌদি কর্মকর্তারা। 

জাতিসংঘের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সফররত সৌদি কর্মকর্তা ও জেনোভাভিত্তিক সৌদি কূটনীতিকদের বৈঠকে তাকে হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি তার কাজ নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

ক্যালামার্ড তার প্রতিবেদনে খাশোগি হত্যাকে ‘আন্তর্জাতিক হত্যাকাণ্ড’ বলে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি বলেন, আমি কাতারের কাছ থেকে অর্থ নিয়েছি বলে মিথ্যা অভিযোগও দেওয়া হয়েছে। যদিও তার কোনো সত্যিকারের প্রমাণ তারা দিতে পারেনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজ