এবার ব্রাজিলের তিন বাহিনীর প্রধানের পদত্যাগ
jugantor
এবার ব্রাজিলের তিন বাহিনীর প্রধানের পদত্যাগ

  অনলাইন ডেস্ক  

৩১ মার্চ ২০২১, ১০:৪৩:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাজিলের সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর প্রধান পদত্যাগ করেছেন। তারা এমন একসময় সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন, যখন নিজের নেতৃত্ব টিকিয়ে রাখতে এক ধরনের হাবুডুবু খেতে হচ্ছে দেশটির প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোকে।

সামরিক বাহিনীর ওপর বলসোনারো অযাচিত নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চাচ্ছেন বলে পদত্যাগী তিন প্রতিরক্ষা প্রধানের অভিযোগ। বিবিসি ও গার্ডিয়ান এমন খবর দিয়েছে।

এর আগে ব্রাজিলের পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী পদত্যাগ করলে মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল করতে বাধ্য হন দেশটির প্রেসিডেন্ট। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ব্যর্থতার দরুণ ইতোমধ্যে তার জনপ্রিয়তা তলানিতে গিয়ে নেমেছে।

বছর দুয়েক আগে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়লেও তিনি কোয়ারেন্টিনের বিরোধিতা করেন। তার যুক্তি হচ্ছে— কোভিড-১৯ রোগে যে পরিমাণ ক্ষতি হচ্ছে, কোয়ারেন্টিনে তার চেয়ে বেশি খেসারত দিতে হচ্ছে।

কাজেই পরিস্থিতির চরম অবনতি হলেও ব্রাজিলের নাগরিকদের ‘ঘ্যানর ঘ্যানর’ করতে বারণ করেছেন এই উগ্র-ডানপন্থি প্রেসিডেন্ট।

মহামারিতে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে তিন লাখ ১৪ হাজারের মতো মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক কোটি ২৫ লাখের বেশি।

প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মতপার্থক্যের দরুণ ব্রাজিলে তিন বাহিনীর প্রধানদের পদত্যাগের ঘটনা এটিই প্রথম। মঙ্গলবার সেনাপ্রধান জেনারেল লিল পুজোল, নৌবাহিনীপ্রধান অ্যাডমিরাল ইলকুইস বারবোসা ও বিমানবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অ্যান্তনিও কালোস বেরমুডেজ নিজেদের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছেন।

বিবিসির দক্ষিণ আমেরিকার প্রতিনিধি উইল গ্রান্ট বলেন, ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে দায়িত্ব গ্রহণের পর সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক সংকটে পড়েছেন বলসোনারো।

এর আগে করোনার টিকা নিয়ে সন্দেহ পোষণের কথা জানিয়েছেন তিনি। এমনকি করোনা চিকিৎসায় এমন ওষুধের পক্ষে তিনি সাফাই গেয়েছেন, যার কার্যকারিতা প্রমাণিত না।

এবার ব্রাজিলের তিন বাহিনীর প্রধানের পদত্যাগ

 অনলাইন ডেস্ক 
৩১ মার্চ ২০২১, ১০:৪৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ব্রাজিলের সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর প্রধান পদত্যাগ করেছেন। তারা এমন একসময় সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন, যখন নিজের নেতৃত্ব টিকিয়ে রাখতে এক ধরনের হাবুডুবু খেতে হচ্ছে দেশটির প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোকে।

সামরিক বাহিনীর ওপর বলসোনারো অযাচিত নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চাচ্ছেন বলে পদত্যাগী তিন প্রতিরক্ষা প্রধানের অভিযোগ। বিবিসি ও গার্ডিয়ান এমন খবর দিয়েছে।

এর আগে ব্রাজিলের পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী পদত্যাগ করলে মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের রদবদল করতে বাধ্য হন দেশটির প্রেসিডেন্ট। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ব্যর্থতার দরুণ ইতোমধ্যে তার জনপ্রিয়তা তলানিতে গিয়ে নেমেছে।

বছর দুয়েক আগে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়লেও তিনি কোয়ারেন্টিনের বিরোধিতা করেন। তার যুক্তি হচ্ছে— কোভিড-১৯ রোগে যে পরিমাণ ক্ষতি হচ্ছে, কোয়ারেন্টিনে তার চেয়ে বেশি খেসারত দিতে হচ্ছে।

কাজেই পরিস্থিতির চরম অবনতি হলেও ব্রাজিলের নাগরিকদের ‘ঘ্যানর ঘ্যানর’ করতে বারণ করেছেন এই উগ্র-ডানপন্থি প্রেসিডেন্ট।

মহামারিতে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে তিন লাখ ১৪ হাজারের মতো মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক কোটি ২৫ লাখের বেশি।

প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মতপার্থক্যের দরুণ ব্রাজিলে তিন বাহিনীর প্রধানদের পদত্যাগের ঘটনা এটিই প্রথম। মঙ্গলবার সেনাপ্রধান জেনারেল লিল পুজোল, নৌবাহিনীপ্রধান অ্যাডমিরাল ইলকুইস বারবোসা ও বিমানবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অ্যান্তনিও কালোস বেরমুডেজ নিজেদের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছেন।

বিবিসির দক্ষিণ আমেরিকার প্রতিনিধি উইল গ্রান্ট বলেন, ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে দায়িত্ব গ্রহণের পর সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক সংকটে পড়েছেন বলসোনারো।

এর আগে করোনার টিকা নিয়ে সন্দেহ পোষণের কথা জানিয়েছেন তিনি। এমনকি করোনা চিকিৎসায় এমন ওষুধের পক্ষে তিনি সাফাই গেয়েছেন, যার কার্যকারিতা প্রমাণিত না।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর