‘নারী ও শিশুদের অপহরণের ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি’
jugantor
‘নারী ও শিশুদের অপহরণের ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি’

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৪০:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

‘নন্দীগ্রামে নারী ও শিশুদের অপহরণের ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি’

নন্দীগ্রামে ভোটের সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীর মদদে বিজেপির গুণ্ডারা বাড়ির মেয়ে এবং শিশুদের অপহরণ করার ভয় দেখিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শনিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার রায়দিঘির সভায় তিনি বলেন, বিজেপি থেকে সাবধান, ওদের হাতে আছে স্টেনগান।

এদিন নরেন্দ্র মোদির নাম না নিয়ে মমতা আরও বলেন, বিধানসভা ভোটের আগে গুণ্ডা আমদানি করতেই বাংলাদেশ সফরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

রায়দিঘির তৃণমূল প্রার্থী অলক জলাদাতার সমর্থনে স্টেডিয়াম মাঠে আয়োজিত সভায় মমতা বলেন, গত পরশু নন্দীগ্রামের একটি গ্রামে গিয়েছি। রবীন মান্নার বউ আমাকে বলছে, ‘দিদি, আমার মেয়েকে বলছে তুলে নিয়ে যাবে। দিদি আমার বাচ্চাটাকে বলছে কিডন্যাপ করবে।’ আমি বললাম তোমরা আছো কোথায়?

মমতার দাবি, বিজেপির বহিরাগত গুণ্ডাদের ভয়ে ওই নারীকে স্থানীয় একটি সংখ্যালঘু পরিবারের কাছে আশ্রয় নিতে হয়েছে।

ভোটের আগে সীমান্ত এলাকার গ্রামে গ্রামে ভয় দেখানো হবে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এরপরই মোদির নাম না নিয়ে মমতার মন্তব্য, উনি বাংলাদেশ ঘুরে এসেছেন। ওখান থেকেও মনে হয় কিছু আমদানি করছেন। করতেই পারেন। কারণ হচ্ছে, অন্য সময় বলে মমতা অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে আসছে। আর ইলেকশনের সময় ভোট চাইতে গিয়েছে। গুণ্ডা আমদানি করতে গিয়েছে।

আগামী ৬ এপ্রিল তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে রায়দিঘিতে। শনিবার সেখানকার ভোটদাতাদের উদ্দেশে মমতার সতর্কবাণী, ভোটের ৪৮ ঘণ্টা আগে থেকে ওরা দিল্লির পুলিশ নিয়ে গিয়ে থ্রেট টেট (হুমকি) করবে। ভয় পাবেন না। চুপচাপ বলবেন, ঠিক আছে আছে। আর নিজের ভোটটা নিজে সকাল সকাল গিয়ে দিয়ে আসবেন।

‘নারী ও শিশুদের অপহরণের ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি’

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘নন্দীগ্রামে নারী ও শিশুদের অপহরণের ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি’
ছবি: আনন্দবাজার পত্রিকা

নন্দীগ্রামে ভোটের সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীর মদদে বিজেপির গুণ্ডারা বাড়ির মেয়ে এবং শিশুদের অপহরণ করার ভয় দেখিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

শনিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার রায়দিঘির সভায় তিনি বলেন, বিজেপি থেকে সাবধান, ওদের হাতে আছে স্টেনগান।

এদিন নরেন্দ্র মোদির নাম না নিয়ে মমতা আরও বলেন, বিধানসভা ভোটের আগে গুণ্ডা আমদানি করতেই বাংলাদেশ সফরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।  

রায়দিঘির তৃণমূল প্রার্থী অলক জলাদাতার সমর্থনে স্টেডিয়াম মাঠে আয়োজিত সভায় মমতা বলেন, গত পরশু নন্দীগ্রামের একটি গ্রামে গিয়েছি। রবীন মান্নার বউ আমাকে বলছে, ‘দিদি, আমার মেয়েকে বলছে তুলে নিয়ে যাবে। দিদি আমার বাচ্চাটাকে বলছে কিডন্যাপ করবে।’ আমি বললাম তোমরা আছো কোথায়? 

মমতার দাবি, বিজেপির বহিরাগত গুণ্ডাদের ভয়ে ওই নারীকে স্থানীয় একটি সংখ্যালঘু পরিবারের কাছে আশ্রয় নিতে হয়েছে।

ভোটের আগে সীমান্ত এলাকার গ্রামে গ্রামে ভয় দেখানো হবে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। 

এরপরই মোদির নাম না নিয়ে মমতার মন্তব্য, উনি বাংলাদেশ ঘুরে এসেছেন। ওখান থেকেও মনে হয় কিছু আমদানি করছেন। করতেই পারেন। কারণ হচ্ছে, অন্য সময় বলে মমতা অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে আসছে। আর ইলেকশনের সময় ভোট চাইতে গিয়েছে। গুণ্ডা আমদানি করতে গিয়েছে।

আগামী ৬ এপ্রিল তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে রায়দিঘিতে। শনিবার সেখানকার ভোটদাতাদের উদ্দেশে মমতার সতর্কবাণী, ভোটের ৪৮ ঘণ্টা আগে থেকে ওরা দিল্লির পুলিশ নিয়ে গিয়ে থ্রেট টেট (হুমকি) করবে। ভয় পাবেন না। চুপচাপ বলবেন, ঠিক আছে আছে। আর নিজের ভোটটা নিজে সকাল সকাল গিয়ে দিয়ে আসবেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১