ফ্রান্সে এরদোগানপন্থিদের স্থান হবে না: ম্যাক্রোঁ
jugantor
ফ্রান্সে এরদোগানপন্থিদের স্থান হবে না: ম্যাক্রোঁ

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ এপ্রিল ২০২১, ১৬:১৪:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সে মুসলমানদের জন্য নতুন বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে কথা বলায় তুরস্কের মুসলমানদের ওপর চটেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

এ জন্য তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে দায়ী করে কঠোর সমালোচনা করেছেন ম্যাক্রোঁ।খবর আরব নিউজের।

চার্টার অফ রিপাবলিকান ভ্যালুস নামে ওই নির্দেশপত্র ফরাসি ইমামদের মেনে চলার নিদেশ দেয় ফরাসি সরকার।খবর আরব নিউজের।

কিন্তু এটিকে মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে চরম আঘাত হিসেবে অবহিত করে প্রথম থেকেই কয়েকটি মুসলিম সংগঠন প্রত্যাখ্যান করে আসছিল।

এর মধ্যে অন্যতম ফ্রান্সে বসবাসকারী তুরস্কের মুসলমানদের সংগঠন মিল্লি গোরাস অ্যাসোসিয়েশন।

সম্প্রতি ফরাসি এক টেলিভিষণকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ম্যাক্রোঁ দাবি করেছেন, তুর্কি এ সংগঠনটি দিয়ে ২০২২ সালে অনুষ্ঠেয় জাতীয় নির্বাচনে প্রভাব খাটাতে চান এরদোগান।

তিনি কঠোর হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে এরদোগানপন্থিদের স্থান হবে না ফ্রান্সে।

গত বছর ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ফ্রেঞ্চ কাউন্সিল অফ দ্য মুসলিম ফেইথ (সিএফসিএম)-এর কয়েকজন বিশিষ্ট সদস্যকে নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন ম্যাক্রোঁ। সেখানেই চার্টারের দিক নিয়ে আলোচনা করে চার্টারটি প্রকাশ করে ফরাসি সরকার।

এতে বলা হয়, মুসলিম নেতা এবং ইমামদের প্রত্যেককে এখন থেকে একটি সার্টিফিকেট বা অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড দেওয়া হবে। যাদের কাছে ওই কার্ড থাকবে, তারাই একমাত্র ইমাম হিসেবে কাজ করতে পারবেন। যে কোনো সময় ওই কার্ড কেড়ে নেওয়ার অধিকার থাকবে রাষ্ট্রের।

ফ্রান্সে এরদোগানপন্থিদের স্থান হবে না: ম্যাক্রোঁ

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ এপ্রিল ২০২১, ০৪:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সে মুসলমানদের জন্য নতুন বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে কথা বলায় তুরস্কের মুসলমানদের ওপর চটেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

এ জন্য তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে দায়ী করে কঠোর সমালোচনা করেছেন ম্যাক্রোঁ।খবর আরব নিউজের।

চার্টার অফ রিপাবলিকান ভ্যালুস নামে ওই নির্দেশপত্র ফরাসি ইমামদের মেনে চলার নিদেশ দেয় ফরাসি সরকার।খবর আরব নিউজের।

কিন্তু এটিকে মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে চরম আঘাত হিসেবে অবহিত করে প্রথম থেকেই কয়েকটি মুসলিম সংগঠন প্রত্যাখ্যান করে আসছিল।

এর মধ্যে অন্যতম ফ্রান্সে বসবাসকারী তুরস্কের মুসলমানদের সংগঠন মিল্লি গোরাস অ্যাসোসিয়েশন।

সম্প্রতি ফরাসি এক টেলিভিষণকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ম্যাক্রোঁ দাবি করেছেন, তুর্কি এ সংগঠনটি দিয়ে ২০২২ সালে অনুষ্ঠেয় জাতীয় নির্বাচনে প্রভাব খাটাতে চান এরদোগান।

তিনি কঠোর হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে এরদোগানপন্থিদের স্থান হবে না ফ্রান্সে।

গত বছর ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ফ্রেঞ্চ কাউন্সিল অফ দ্য মুসলিম ফেইথ (সিএফসিএম)-এর কয়েকজন বিশিষ্ট সদস্যকে নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন ম্যাক্রোঁ। সেখানেই চার্টারের দিক নিয়ে আলোচনা করে চার্টারটি প্রকাশ করে ফরাসি সরকার।

এতে বলা হয়, মুসলিম নেতা এবং ইমামদের প্রত্যেককে এখন থেকে একটি সার্টিফিকেট বা অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড দেওয়া হবে। যাদের কাছে ওই কার্ড থাকবে, তারাই একমাত্র ইমাম হিসেবে কাজ করতে পারবেন। যে কোনো সময় ওই কার্ড কেড়ে নেওয়ার অধিকার থাকবে রাষ্ট্রের।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর