প্রতিযোগিতার মঞ্চে দুই সুন্দরীর চুলোচুলি!
jugantor
প্রতিযোগিতার মঞ্চে দুই সুন্দরীর চুলোচুলি!

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৫:২৩:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার সবচেয়ে বড় সুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে হুলস্থুল কাণ্ড ঘটেছে। গত রোববার দেশটির জাতীয় টেলিভিশনের এক অনুষ্ঠানে ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’ খেতাব জেতেন বিউটি কুইন পুষ্পিকা ডি সিলভা। কিন্তু প্রকাশ্যেই তার মাথা থেকে মুকুট খুলে নেওয়া হয়।

পুষ্পিকাকে বিজয়ী ঘোষণার কয়েক মুহূর্ত পর একই মঞ্চে উপস্থিত ওই প্রতিযোগিতার গত আসরের বিজয়ী ক্যারোলিন জুরি দাবি করেন, পুষ্পিকা পুরস্কার পাওয়ার অযোগ্য, কারণ তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে।

এরপর পুষ্পিকার মাথার মুকুট নিয়ে নেন ওই সাবেক ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’। ওই সময় মঞ্চে দুজনের মধ্যে চুলোচুলির ঘটনাও ঘটে।

কী ঘটেছিল সেদিন

গত রোববার কলম্বোর নীলম পোকুনা মহিন্দা রাজাপক্ষ থিয়েটারে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্যায়ের ফলাফল ঘোষণা হয়। বিচারকেরা পুষ্পিকা ডি সিলভাকে ২০২১ সালের বিজয়ী ঘোষণা করেন।

নাম ঘোষণা হওয়ার পর নিয়মমাফিক পুষ্পিকার মাথায় মুকুটও ওঠে। নিজে হাতে তা পুষ্পিকার মাথায় তুলে দেন ২০১৯ সালের বিজয়ী ক্যারোলিন জুরি। তার পর মাইক হাতে বক্তৃতা করার সময় পুষ্পিকাকে আক্রমণ করতে শুরু করেন তিনি।

ক্যারোলিন জুরি অভিযোগ করেন, পুষ্পিকা প্রতিযোগিতার শর্ত ভঙ্গ করেছেন। কারণ, নিয়ম অনুযায়ী প্রতিযোগীকে বিবাহিত হতে হবে এবং বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়া কেউ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন না। এরপর পুষ্পিকার মাথায় পরানো মুকুট নিয়ে নেন ক্যারোলিন জুরি।

এরপরই কার্যত চুলোচুলি শুরু করে দেন ক্যারোলিনা। মাইক রেখে পুষ্পিকার দিকে এগিয়ে যান তিনি। পুষ্পিকার মাথার মুকুট ধরে টানাটানি শুরু করে দেন। চুল ধরে টেনে হিঁচড়ে শেষমেশ মুকুটটি পুষ্পিকার মাথা থেকে খুলে নেন তিনি।

এরপর রানার-আপ প্রতিযোগীকে বিজয়ীর মুকুট পরিয়ে দেন ক্যারোলিন জুরি। আর অশ্রুসজল চোখে মঞ্চ থেকে নেমে যান পুষ্পিকা ডি সিলভা।

তবে পুষ্পিকা জানান, তিনি তার স্বামীর সঙ্গে থাকছেন না, তবে তাদের বিবাহ-বিচ্ছেদ হয়নি। এ বিষয়ে তিনি আইনি পদক্ষেপ নেবেন বলেও জানিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি, আনন্দবাজার।

প্রতিযোগিতার মঞ্চে দুই সুন্দরীর চুলোচুলি!

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শ্রীলংকার সবচেয়ে বড় সুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে হুলস্থুল কাণ্ড ঘটেছে। গত রোববার দেশটির জাতীয় টেলিভিশনের এক অনুষ্ঠানে ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’ খেতাব জেতেন বিউটি কুইন পুষ্পিকা ডি সিলভা। কিন্তু প্রকাশ্যেই তার মাথা থেকে মুকুট খুলে নেওয়া হয়। 

পুষ্পিকাকে বিজয়ী ঘোষণার কয়েক মুহূর্ত পর একই মঞ্চে উপস্থিত ওই প্রতিযোগিতার গত আসরের বিজয়ী ক্যারোলিন জুরি দাবি করেন, পুষ্পিকা পুরস্কার পাওয়ার অযোগ্য, কারণ তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। 

এরপর পুষ্পিকার মাথার মুকুট নিয়ে নেন ওই সাবেক ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’। ওই সময় মঞ্চে দুজনের মধ্যে চুলোচুলির ঘটনাও ঘটে। 

কী ঘটেছিল সেদিন

গত রোববার কলম্বোর নীলম পোকুনা মহিন্দা রাজাপক্ষ থিয়েটারে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্যায়ের ফলাফল ঘোষণা হয়। বিচারকেরা পুষ্পিকা ডি সিলভাকে ২০২১ সালের বিজয়ী ঘোষণা করেন।

নাম ঘোষণা হওয়ার পর নিয়মমাফিক পুষ্পিকার মাথায় মুকুটও ওঠে। নিজে হাতে তা পুষ্পিকার মাথায় তুলে দেন ২০১৯ সালের বিজয়ী ক্যারোলিন জুরি। তার পর মাইক হাতে বক্তৃতা করার সময় পুষ্পিকাকে আক্রমণ করতে শুরু করেন তিনি।

ক্যারোলিন জুরি অভিযোগ করেন, পুষ্পিকা প্রতিযোগিতার শর্ত ভঙ্গ করেছেন। কারণ, নিয়ম অনুযায়ী প্রতিযোগীকে বিবাহিত হতে হবে এবং বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়া কেউ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন না। এরপর পুষ্পিকার মাথায় পরানো মুকুট নিয়ে নেন ক্যারোলিন জুরি।

এরপরই কার্যত চুলোচুলি শুরু করে দেন ক্যারোলিনা। মাইক রেখে পুষ্পিকার দিকে এগিয়ে যান তিনি। পুষ্পিকার মাথার মুকুট ধরে টানাটানি শুরু করে দেন। চুল ধরে টেনে হিঁচড়ে শেষমেশ মুকুটটি পুষ্পিকার মাথা থেকে খুলে নেন তিনি। 

এরপর রানার-আপ প্রতিযোগীকে বিজয়ীর মুকুট পরিয়ে দেন ক্যারোলিন জুরি। আর অশ্রুসজল চোখে মঞ্চ থেকে নেমে যান পুষ্পিকা ডি সিলভা।

তবে পুষ্পিকা জানান, তিনি তার স্বামীর সঙ্গে থাকছেন না, তবে তাদের বিবাহ-বিচ্ছেদ হয়নি। এ বিষয়ে তিনি আইনি পদক্ষেপ নেবেন বলেও জানিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি, আনন্দবাজার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন