এরদোগানের সঙ্গে বৈঠকে চেয়ার পাননি ইইউ কমিশন প্রেসিডেন্ট (ভিডিও)
jugantor
এরদোগানের সঙ্গে বৈঠকে চেয়ার পাননি ইইউ কমিশন প্রেসিডেন্ট (ভিডিও)

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ এপ্রিল ২০২১, ২১:৩৭:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চেয়ার পাননি ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন। এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

বুধবার তুরস্কে সফরে যান উরসুলা ভন ডার লিয়েন ও ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মিচেল। তাদের সফরের উদ্দেশ্য ছিল তুরস্কের সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক।

সেখানে একটি হল রুমে তিনজনের বৈঠকে বসার কথা। ভিডিওতে দেখা গেছে, সেখানে চেয়ার ছিল মাত্র দুটি। আর তাতেই বসে পড়েন মিচেল ও এরদোগান। ঘরে ঢুকে তখন দাঁড়িয়ে আছেন উরসুলা।

এরপরই দুজনকে চেয়ার দখল করে বসে পড়তে দেখে কিছুটা ক্ষুব্ধ এবং ইতস্তত হন উরসুলা।

চেয়ারে বসার ব্যবস্থা না দেখে বাধ্য হয়ে পাশের একটি বড় সোফায় বসে পড়েন উরসুলা। তিনজনের মধ্যে এই বৈঠক চলে আড়াই ঘণ্টা।

এই বিষয়ে কমিশনের মুখপাত্র এরিক মামের পরে বলেন, আসলে তিনজনকেই মুখোমুখি বসতে হত। কিন্তু ঘরে দুটি মাত্র চেয়ার ছিল। এই বন্দোবস্ত দেখেই কিছুটা অবাক হয়েছেন কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা।

বিড়ম্বনা না বাড়িয়ে প্রোটোকল অনুযায়ী, তিনি সোফায় বসলেও পরে নিজের টিমকে নির্দেশ দেন, ভবিষ্যতে যাতে এমন বিড়ম্বনায় না পড়তে সেদিকে যেন নজর রাখা হয়।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভাসগ্লু বলেছেন, প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য ইউরোপিয়ানদের চাহিদা অনুযায়ী প্রটোকল সাজানো হয়েছে। তাদের পরামর্শ ও চাহিদা অনুযায়ী বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি।

এরদোগানের সঙ্গে বৈঠকে চেয়ার পাননি ইইউ কমিশন প্রেসিডেন্ট (ভিডিও)

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চেয়ার পাননি ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন। এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। 

বুধবার তুরস্কে সফরে যান উরসুলা ভন ডার লিয়েন ও ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মিচেল। তাদের সফরের উদ্দেশ্য ছিল তুরস্কের সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক। 

সেখানে একটি হল রুমে তিনজনের বৈঠকে বসার কথা। ভিডিওতে দেখা গেছে,  সেখানে চেয়ার ছিল মাত্র দুটি। আর তাতেই বসে পড়েন মিচেল ও এরদোগান। ঘরে ঢুকে তখন দাঁড়িয়ে আছেন উরসুলা।

এরপরই দুজনকে চেয়ার দখল করে বসে পড়তে দেখে কিছুটা ক্ষুব্ধ এবং ইতস্তত হন উরসুলা। 

চেয়ারে বসার ব্যবস্থা না দেখে বাধ্য হয়ে পাশের একটি বড় সোফায় বসে পড়েন উরসুলা। তিনজনের মধ্যে এই বৈঠক চলে আড়াই ঘণ্টা। 

এই বিষয়ে কমিশনের মুখপাত্র এরিক মামের পরে বলেন, আসলে তিনজনকেই মুখোমুখি বসতে হত। কিন্তু ঘরে দুটি মাত্র চেয়ার ছিল। এই বন্দোবস্ত দেখেই কিছুটা অবাক হয়েছেন কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা।

বিড়ম্বনা না বাড়িয়ে প্রোটোকল অনুযায়ী, তিনি সোফায় বসলেও পরে নিজের টিমকে নির্দেশ দেন, ভবিষ্যতে যাতে এমন বিড়ম্বনায় না পড়তে সেদিকে যেন নজর রাখা হয়।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভাসগ্লু বলেছেন, প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য ইউরোপিয়ানদের চাহিদা অনুযায়ী প্রটোকল সাজানো হয়েছে। তাদের পরামর্শ ও চাহিদা অনুযায়ী বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

সূত্র: বিবিসি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন