২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে প্রচার বন্ধের প্রস্তাব বিজেপির! 
jugantor
২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে প্রচার বন্ধের প্রস্তাব বিজেপির! 

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ এপ্রিল ২০২১, ২২:২২:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নির্বাচনী প্রচারণায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে এবার নতুন অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি নানাভাবে নির্বাচনকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

মমতা বলেন, ‘বিজেপি বলছে, এই নে টাকাটা নিয়ে নে, প্রচারে নামবি না। ২৫ কোটি টাকা নে। আবার শুনছি তৃণমূল প্রার্থীদেরও বলছে, তোমাদের টাকা লাগবে? নিয়ে নাও পরে শোধ দিয়ে দিও। মানে পরে ওদের সঙ্গে যেও। টাকা দিয়ে গদ্দারদের কিনে নিচ্ছে বিজেপি। তৃণমূল প্রার্থীদের মধ্যেও বিজেপি টাকা ছড়াচ্ছে।

তৃণমূলেও কিছু গাদ্দার রয়েছে বলে সন্দেহ মমতার।

বৃহস্পতিবার চতুর্থ দফার ভোটপ্রচারের শেষ দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘সব হোটেলে ভর্তি ভর্তি টাকা। সব্বাইকে টাকা দিয়ে কিনে নিচ্ছে। অনেক রাজনৈতিক নেতাকে টাকায় কিনেছে। এতো সব টাকায় বিক্রি হয়েছে, গাদ্দাররা। কটা নাম বলবো, অনেক গাদ্দার– মীরজাফর বিক্রি হয়েছে টাকায়।’

মমতা বলেন, ‘বলছে, এই নে টাকাটা নিয়ে নে প্রচারে নামবি না। ২৫ কোটি টাকা নে। আবার শুনছি তৃণমূল প্রার্থীদেরও বলছে, তোমাদের টাকা লাগবে? নিয়ে নাও পরে শোধ দিয়ে দিও। মানে পরে ওদের সঙ্গে যেও।’

২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে প্রচার বন্ধের প্রস্তাব বিজেপির! 

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নির্বাচনী প্রচারণায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।
নির্বাচনী প্রচারণায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ফাইল ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে এবার নতুন অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি নানাভাবে নির্বাচনকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।  

মমতা বলেন, ‘বিজেপি বলছে, এই নে টাকাটা নিয়ে নে, প্রচারে নামবি না। ২৫ কোটি টাকা নে। আবার শুনছি তৃণমূল প্রার্থীদেরও বলছে, তোমাদের টাকা লাগবে? নিয়ে নাও পরে শোধ দিয়ে দিও। মানে পরে ওদের সঙ্গে যেও। টাকা দিয়ে গদ্দারদের কিনে নিচ্ছে বিজেপি। তৃণমূল প্রার্থীদের মধ্যেও বিজেপি টাকা ছড়াচ্ছে। 

তৃণমূলেও কিছু গাদ্দার রয়েছে বলে সন্দেহ মমতার। 

বৃহস্পতিবার চতুর্থ দফার ভোটপ্রচারের শেষ দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘সব হোটেলে ভর্তি ভর্তি টাকা। সব্বাইকে টাকা দিয়ে কিনে নিচ্ছে। অনেক রাজনৈতিক নেতাকে টাকায় কিনেছে। এতো সব টাকায় বিক্রি হয়েছে, গাদ্দাররা। কটা নাম বলবো, অনেক গাদ্দার– মীরজাফর বিক্রি হয়েছে টাকায়।’

মমতা বলেন, ‘বলছে, এই নে টাকাটা নিয়ে নে প্রচারে নামবি না। ২৫ কোটি টাকা নে। আবার শুনছি তৃণমূল প্রার্থীদেরও বলছে, তোমাদের টাকা লাগবে? নিয়ে নাও পরে শোধ দিয়ে দিও। মানে পরে ওদের সঙ্গে যেও।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১