সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে হুতিদের হামলা
jugantor
সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে হুতিদের হামলা

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৮ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৪৭:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে হুতিদের হামলা

সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা। দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আসির প্রদেশের এ বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালানো হয়।

হুতি আন্দোলনের মুখপাত্র ইয়াহয়া সারির বরাতে শনিবার আল-মাসিরাহ টেলিভিশন জানায়, ইয়েমেনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন দিয়ে কিং খালিদ বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে হুতি বিদ্রোহীরা। এ হামলায় একাধিক ড্রোন অংশ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ইয়াহয়া সারি।

রয়টার্স জানিয়েছে, এ বিষয়ে সৌদি আরব সরকার তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি। তবে ১৪-১৫ এপ্রিল দেশটির জাযান প্রদেশের বিভিন্ন বেসামরিক লক্ষ্যে হুতিদের বেশ কয়েকটি হামলা প্রতিরোধের দাবি করেছে সৌদি বাহিনী।

সৌদি জোট বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তুর্কি আল মালকি বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় ও বৃহস্পতিবার সকালে রাজকীয় সৌদি বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী (ইয়েমেনের) সাদাহ প্রদেশ থেকে জাযানের উদ্দেশ্যে হুতিদের ছোড়া চারটি ইউএভি (ড্রোন) ও পাঁচটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ করে ধ্বংস করেছে।

ড্রোনের কিছু ধ্বংসাবশেষ জাযান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে পড়ে ছোট একটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলেও জানান তিনি।

ইরানি মদদপুষ্ট হুতি বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করার পর দেশটির সৌদি সমর্থিত প্রেসিডেন্ট আব্দে রাব্বি মানসুর হাদিকে ক্ষমতাচ্যুত করে। পরে আব্দে রাব্বি মানসুর দেশ ছেড়ে পালিয়ে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে চলে যান।

এরপর ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হস্তক্ষেপ করে সৌদি সামরিক জোট। কয়েকদিন পরপরই সৌদি শহরগুলোতে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা করে ইরানের মিত্র হুতিরা।

সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে হুতিদের হামলা

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৮ এপ্রিল ২০২১, ০২:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে হুতিদের হামলা
ছবি: এএফপি

সৌদি আরবের কিং খালেদ বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা। দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আসির প্রদেশের এ বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালানো হয়।

হুতি আন্দোলনের মুখপাত্র ইয়াহয়া সারির বরাতে শনিবার আল-মাসিরাহ টেলিভিশন জানায়, ইয়েমেনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন দিয়ে কিং খালিদ বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে হুতি বিদ্রোহীরা। এ হামলায় একাধিক ড্রোন অংশ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ইয়াহয়া সারি। 

রয়টার্স জানিয়েছে, এ বিষয়ে সৌদি আরব সরকার তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি। তবে ১৪-১৫ এপ্রিল দেশটির জাযান প্রদেশের বিভিন্ন বেসামরিক লক্ষ্যে হুতিদের বেশ কয়েকটি হামলা প্রতিরোধের দাবি করেছে সৌদি বাহিনী। 

সৌদি জোট বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তুর্কি আল মালকি বলেন, বুধবার সন্ধ্যায় ও বৃহস্পতিবার সকালে রাজকীয় সৌদি বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী (ইয়েমেনের) সাদাহ প্রদেশ থেকে জাযানের উদ্দেশ্যে হুতিদের ছোড়া চারটি ইউএভি (ড্রোন) ও পাঁচটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ করে ধ্বংস করেছে। 

ড্রোনের কিছু ধ্বংসাবশেষ জাযান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে পড়ে ছোট একটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলেও জানান তিনি। 

ইরানি মদদপুষ্ট হুতি বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করার পর দেশটির সৌদি সমর্থিত প্রেসিডেন্ট আব্দে রাব্বি মানসুর হাদিকে ক্ষমতাচ্যুত করে। পরে আব্দে রাব্বি মানসুর দেশ ছেড়ে পালিয়ে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে চলে যান।

এরপর ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হস্তক্ষেপ করে সৌদি সামরিক জোট। কয়েকদিন পরপরই সৌদি শহরগুলোতে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা করে ইরানের মিত্র হুতিরা।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ইয়ামেনে সংঘাত