টিকা রপ্তানির অনিশ্চয়তার কথা জানাল সেরাম
jugantor
টিকা রপ্তানির অনিশ্চয়তার কথা জানাল সেরাম

  অনলাইন ডেস্ক  

২১ এপ্রিল ২০২১, ২০:৩১:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

সেরাম

ভারতে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে স্বাস্থ্য সেবা বিপর্যস্ত।দেশটিতে প্রায় প্রতি দিন আক্রান্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড ভাঙ্গছে। পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠেছে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে। এ অবস্থায় গত মাসের শেষদিকে দেশের বাইরে করোনার টিকা রফতানি স্থগিত করে ভারতীয় সরকার। এ নিয়ে বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানালেও আগামী তিন মাসের মধ্যে এই পরিস্থিতি পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন বিশ্বের বৃহত্তম টিকা উৎপাদনকারী ভারতীয় প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী আদর পুনেওয়ালা।

বুধবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, টিকা রফতানির কোনো নিশ্চয়তা নেই এবং এই মুহূর্তে আমরাও মনে করছি, এমন সংক্রমণের সময়ে আগামী দুই মাসের মধ্যে আমাদের রফতানির দিকে তাকানো উচিত হবে না।

সেরাম সিইও বলেন, হতে পারে জুন-জুলাইয়ে আমরা আবারও সামান্য পরিমাণে টিকা রফতানি শুরু করতে পারি। তবে এই মুহূর্তে আমরা দেশকেই অগ্রাধিকার দেব।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ২ লাখ ৯৫ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একদিনে আক্রান্তের হিসাবে এই সংখ্যা শুধুমাত্র ভারতে নয় বিশ্বেও সর্বোচ্চ।

এ বছর ৮ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে আক্রান্ত হয়েছিলেন ২ লাখ ৮৯ হাজার ১৯৫ জন। দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে বুধবার নতুন রের্কড গড়ল ভারত।

দৈনিক মৃত্যুর নিরিখেও দেশটিতে বুধবার তৈরি হল নতুন রের্কড। দেশে এই প্রথম একদিনে মৃত্যু ২ হাজার ছাড়িয়ে গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ২৩ জনের। করোনাভাইরাসের ছোবলে দেশে এখনও অবধি প্রাণ হারিয়েছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ৫৫৩ জন।

টিকা রপ্তানির অনিশ্চয়তার কথা জানাল সেরাম

 অনলাইন ডেস্ক 
২১ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সেরাম
সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী আদর পুনেওয়ালা। ফাইল ছবি

ভারতে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে স্বাস্থ্য সেবা বিপর্যস্ত।দেশটিতে প্রায় প্রতি দিন আক্রান্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড ভাঙ্গছে। পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠেছে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে। এ অবস্থায় গত মাসের শেষদিকে দেশের বাইরে করোনার টিকা রফতানি স্থগিত করে ভারতীয় সরকার। এ নিয়ে বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানালেও আগামী তিন মাসের মধ্যে এই পরিস্থিতি পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন বিশ্বের বৃহত্তম টিকা উৎপাদনকারী ভারতীয় প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী আদর পুনেওয়ালা।

বুধবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, টিকা রফতানির কোনো নিশ্চয়তা নেই এবং এই মুহূর্তে আমরাও মনে করছি, এমন সংক্রমণের সময়ে আগামী দুই মাসের মধ্যে আমাদের রফতানির দিকে তাকানো উচিত হবে না।

সেরাম সিইও বলেন, হতে পারে জুন-জুলাইয়ে আমরা আবারও সামান্য পরিমাণে টিকা রফতানি শুরু করতে পারি। তবে এই মুহূর্তে আমরা দেশকেই অগ্রাধিকার দেব। 

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ২ লাখ ৯৫ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একদিনে আক্রান্তের হিসাবে এই সংখ্যা শুধুমাত্র ভারতে নয় বিশ্বেও সর্বোচ্চ। 

এ বছর ৮ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে আক্রান্ত হয়েছিলেন ২ লাখ ৮৯ হাজার ১৯৫ জন। দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে বুধবার নতুন রের্কড গড়ল ভারত।

দৈনিক মৃত্যুর নিরিখেও দেশটিতে বুধবার তৈরি হল নতুন রের্কড। দেশে এই প্রথম একদিনে মৃত্যু ২ হাজার ছাড়িয়ে গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ২৩ জনের। করোনাভাইরাসের ছোবলে দেশে এখনও অবধি প্রাণ হারিয়েছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ৫৫৩ জন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন