মিয়ানমারের দুই বিমান ঘাঁটিতে হামলা!
jugantor
মিয়ানমারের দুই বিমান ঘাঁটিতে হামলা!

  অনলাইন ডেস্ক  

২৯ এপ্রিল ২০২১, ১৪:১২:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মিয়ানমারের দুটি বিমান ঘাঁটিতে অজ্ঞাত হামলাকারীরা আক্রমণ চালিয়েছে। একটি ঘাঁটি থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে ও অপর ঘাঁটিতে রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে।

মিয়ানমারের দুটি বিমান ঘাঁটিতে অজ্ঞাত হামলাকারীরা আক্রমণ চালিয়েছে। একটি ঘাঁটি থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে ও অপর ঘাঁটিতে রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোররাতে মধ্যাঞ্চলীয় শহর মাগওয়ের নিকটবর্তী বিমান ঘাঁটিতে প্রথম হামলার ঘটনাটি ঘটে।

বার্তা সংস্থা ডেল্টার ফেইসবুক পোস্টের প্রতিবেদনের বরাতে রয়টার্স এমন খবর জানিয়েছে।

এ সময় এই ঘাঁটিটিতে তিনটি বিস্ফোরণ ঘটে বলে জানিয়েছে তারা।

এর কিছুক্ষণ পর মাগওয়ের উত্তরপূর্বে দেশটির প্রধান বিমান ঘাঁটিগুলোর অন্যতম মেইকতিলায় পাঁচটি রকেট ছোড়া হয়।

১ ফেব্রুয়ারির সামরিক অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারে তিন মাস ধরে চলা অস্থিরতার মধ্যে এসব হামলার খবর এল।

কোনো পক্ষ হামলার দায় স্বীকার করেনি এবং হতাহতের নিশ্চিত কোনো তথ্যও পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানার জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্রকে ফোন করা হলেও তিনি জবাব দেননি বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

মিয়ানমারের দুই বিমান ঘাঁটিতে হামলা!

 অনলাইন ডেস্ক 
২৯ এপ্রিল ২০২১, ০২:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মিয়ানমারের দুটি বিমান ঘাঁটিতে অজ্ঞাত হামলাকারীরা আক্রমণ চালিয়েছে। একটি ঘাঁটি থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে ও অপর ঘাঁটিতে রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে।
ছবি: সংগৃহীত

মিয়ানমারের দুটি বিমান ঘাঁটিতে অজ্ঞাত হামলাকারীরা আক্রমণ চালিয়েছে। একটি ঘাঁটি থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে ও অপর ঘাঁটিতে রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোররাতে মধ্যাঞ্চলীয় শহর মাগওয়ের নিকটবর্তী বিমান ঘাঁটিতে প্রথম হামলার ঘটনাটি ঘটে।

বার্তা সংস্থা ডেল্টার ফেইসবুক পোস্টের প্রতিবেদনের বরাতে রয়টার্স এমন খবর জানিয়েছে।

এ সময় এই ঘাঁটিটিতে তিনটি বিস্ফোরণ ঘটে বলে জানিয়েছে তারা।

এর কিছুক্ষণ পর মাগওয়ের উত্তরপূর্বে দেশটির প্রধান বিমান ঘাঁটিগুলোর অন্যতম মেইকতিলায় পাঁচটি রকেট ছোড়া হয়।

১ ফেব্রুয়ারির সামরিক অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারে তিন মাস ধরে চলা অস্থিরতার মধ্যে এসব হামলার খবর এল। 

কোনো পক্ষ হামলার দায় স্বীকার করেনি এবং হতাহতের নিশ্চিত কোনো তথ্যও পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানার জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্রকে ফোন করা হলেও তিনি জবাব দেননি বলে রয়টার্স জানিয়েছে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর