পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন যে মুসলিম প্রার্থী
jugantor
পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন যে মুসলিম প্রার্থী

  অনলাইন ডেস্ক  

০৪ মে ২০২১, ১৭:২৫:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

আব্দুল গনি

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার ভোটের চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে সোমবার। ভোটে সবচেয়ে বেশি আসন পেয়ে বিজয়ী হয়েছে মমতার নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস। এ নির্বাচনে তৃণমূলের হয়ে মালদহ জেলার সুজাপুরের প্রার্থী আব্দুল গনি সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

তিনি ১ লাখ ৩০ হাজার ১৬৩ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের প্রার্থী ইশা খান চৌধুরীকে।বিজেপি প্রার্থী এসকে জিয়া উদ্দিন পেয়েছেন ১৪ হাজার ৭৮৯ ভোট।

নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী, আব্দুল গনি পেয়েছেন ১ লাখ ৫২ হাজার ৪৪৫ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ইশা খান পেয়েছেন ২২ হাজার ২৮২ ভোট।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোটে জিতেছেন কলকাতার মেটিয়াব্রুজের তৃণমূল প্রার্থী আব্দুল খালেক মোল্লা। তিনি বিজেপির প্রার্থী রামজি প্রসাদকে ১ লাখ ১৯ হাজার ৬০৪ ভোটের ব্যবধানে হারিয়েছেন।

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার নির্বাচনের আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার হিড়িক পড়েছিল।কিন্তু বিজেপিতে যোগ দেওয়া ১০৭ প্রার্থীর মধ্যে ৭৬ জনই পরাজিত হয়েছেন। এই হার ৭১ শতাংশ।

যদিও দলবদলকারীদের স্বাগত জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, কেউ ফিরে এলে তাকে স্বাগত জানাবেন। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, যেভাবে একাই তিনি নির্বাচন করেছেন এতে দলবদলকারীদের আবার গ্রহণ করেন কিনা তা দেখার বিষয়। হয়ত মমতা বলার জন্যই বলেছেন।

অপরদিকে দল বদলে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্যই দলের এত বড় পরাজয় হয়েছে বলে মনে করছেন রাজনীতিকরা। দলবদলকারীদের কড়া বার্তাও দিয়েছে বিজেপি। তারা ঘোষণা দিয়েছে, এভাবে হুট করে বিজেপিতে যোগ দিলেই কাউকে আর বড় জায়গা দেওয়া হবে না। বিজেপিতে এসে একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে কাজ করতে হবে। কাজের মাধ্যমে নিজেকে প্রমাণ করতে পারলে যোগ্য পদে বসানো হবে।

পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন যে মুসলিম প্রার্থী

 অনলাইন ডেস্ক 
০৪ মে ২০২১, ০৫:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আব্দুল গনি
ছবি: সংগৃহীত

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার ভোটের চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে সোমবার। ভোটে সবচেয়ে বেশি আসন পেয়ে বিজয়ী হয়েছে মমতার নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস। এ নির্বাচনে তৃণমূলের হয়ে মালদহ জেলার সুজাপুরের প্রার্থী আব্দুল গনি সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। 

তিনি ১ লাখ ৩০ হাজার ১৬৩ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের প্রার্থী ইশা খান চৌধুরীকে।বিজেপি প্রার্থী এসকে জিয়া উদ্দিন পেয়েছেন ১৪ হাজার ৭৮৯ ভোট।

নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী, আব্দুল গনি পেয়েছেন ১ লাখ ৫২ হাজার ৪৪৫ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ইশা খান পেয়েছেন ২২ হাজার ২৮২ ভোট।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোটে জিতেছেন কলকাতার মেটিয়াব্রুজের তৃণমূল প্রার্থী আব্দুল খালেক মোল্লা। তিনি বিজেপির প্রার্থী রামজি প্রসাদকে ১ লাখ ১৯ হাজার ৬০৪ ভোটের ব্যবধানে হারিয়েছেন।
 
পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার নির্বাচনের আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার হিড়িক পড়েছিল। কিন্তু বিজেপিতে যোগ দেওয়া ১০৭ প্রার্থীর মধ্যে ৭৬ জনই পরাজিত হয়েছেন। এই হার ৭১ শতাংশ। 

যদিও দলবদলকারীদের স্বাগত জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, কেউ ফিরে এলে তাকে স্বাগত জানাবেন। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, যেভাবে একাই তিনি নির্বাচন করেছেন এতে দলবদলকারীদের আবার গ্রহণ করেন কিনা তা দেখার বিষয়। হয়ত মমতা বলার জন্যই বলেছেন। 

অপরদিকে দল বদলে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্যই দলের এত বড় পরাজয় হয়েছে বলে মনে করছেন রাজনীতিকরা। দলবদলকারীদের কড়া বার্তাও দিয়েছে বিজেপি। তারা ঘোষণা দিয়েছে, এভাবে হুট করে বিজেপিতে যোগ দিলেই কাউকে আর বড় জায়গা দেওয়া হবে না। বিজেপিতে এসে একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে কাজ করতে হবে। কাজের মাধ্যমে নিজেকে প্রমাণ করতে পারলে যোগ্য পদে বসানো হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১