পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি
jugantor
পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি

  অনলাইন ডেস্ক  

০৭ মে ২০২১, ১৭:৪৯:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় দেশটির কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সাংবাদিকদের সঙ্গে অপ্রীতিকর ঘটনার জেরে শুক্রবার এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, বিধানসভা নির্বাচনের সময় থেকে অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। এমনকি বৃহস্পতিবার একটি অপ্রীতিকর ঘটনার জন্যও অভিযোগ উঠেছে তাঁদের বিরুদ্ধে। তারপরই বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বিধানসভায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিধানসভা চত্বরে আজ শুক্রবার (৭ মে) থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কোনও সদস্যকে ঢুকতে দেওয়া হবে না। ৬ মে বিধানসভা চত্বরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনীর বাদানুবাদ ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। তার প্রেক্ষিতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা নির্বাচনের সময় থেকেই খারাপ ব্যবহার করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি তাদের গুলিতেই শীতলকুচিতে ৪ মুসলিম ভোটার নিহত হন।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে আরও বলা হয়, বৃহস্পতিবার বিধানসভায় শপথ নিতে পৌঁছান বিজেপির নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। শপথের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। শুভেন্দু বিধানসভা ছেড়ে বেরোচ্ছেন যখন ঠিক তখনই শুভেন্দুর নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে সাংবাদিকদের ধস্তাধস্তি বেঁধে যায়। এমনকি তারা সাংবাদিকদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

বিক্ষুদ্ধ সাংবাদিকরা এ নিয়ে বিধানসভায় লিখিত অভিযোগও জানান। সাংবাদিকদের ওপর এমন আক্রমণের ঘটনার কথা শুনে প্রচণ্ড ক্ষুদ্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরেই সিদ্ধান্ত হয় বিধানসভায় ঢুকতে পারবে না কেন্দ্রীয় বাহিনী। সকালেই বিধানসভা কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি

 অনলাইন ডেস্ক 
০৭ মে ২০২১, ০৫:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় দেশটির কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।  সাংবাদিকদের সঙ্গে অপ্রীতিকর ঘটনার জেরে শুক্রবার এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, বিধানসভা নির্বাচনের সময় থেকে অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে।  এমনকি বৃহস্পতিবার একটি অপ্রীতিকর ঘটনার জন্যও অভিযোগ উঠেছে তাঁদের বিরুদ্ধে।  তারপরই বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বিধানসভায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিধানসভা চত্বরে আজ শুক্রবার (৭ মে) থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কোনও সদস্যকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।  ৬ মে বিধানসভা চত্বরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনীর বাদানুবাদ ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। তার প্রেক্ষিতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়,  কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা নির্বাচনের সময় থেকেই খারাপ ব্যবহার করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।  এমনকি তাদের গুলিতেই শীতলকুচিতে ৪ মুসলিম ভোটার নিহত হন।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে আরও বলা হয়,  বৃহস্পতিবার বিধানসভায় শপথ নিতে পৌঁছান বিজেপির নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী।  শপথের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি।  শুভেন্দু বিধানসভা ছেড়ে বেরোচ্ছেন যখন ঠিক তখনই শুভেন্দুর নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে সাংবাদিকদের ধস্তাধস্তি বেঁধে যায়।  এমনকি তারা সাংবাদিকদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

বিক্ষুদ্ধ সাংবাদিকরা এ নিয়ে বিধানসভায় লিখিত অভিযোগও জানান।  সাংবাদিকদের ওপর এমন আক্রমণের ঘটনার কথা শুনে প্রচণ্ড ক্ষুদ্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  তারপরেই সিদ্ধান্ত হয় বিধানসভায় ঢুকতে পারবে না কেন্দ্রীয় বাহিনী।  সকালেই বিধানসভা কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১