ইসরাইলের পক্ষ নিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট!
jugantor
ইসরাইলের পক্ষ নিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট!

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ মে ২০২১, ২২:৫২:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

নেতানিয়াহু ও ম্যাঁক্রো

গাজায় টানা পঞ্চম দিনের মতো সংঘাত নিয়ে ইসরাইলের পক্ষ নিয়ে বিবৃতি দিয়েছন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো। সংঘাত নিয়ে তিনি বলেন, ইসরাইলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে।

শুক্রবার কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

তিনি গাজার পরিস্থিতি নিয়ে তিনি ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলেছেন। এই অঞ্চলে শান্তি ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা করেছেন।

এর আগে এক বিবৃতিতে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেছেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলি নিপীড়নের বিষয়টি সারা বিশ্ব এড়িয়ে গেলেও তুরস্ক চুপ থাকবে না। এমন মন্তব্যের পরই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের এমন বিবৃতি এলো।

সোমবার থেকে শুরু হওয়া ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় অন্তত ১১৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। প্রায় হাজার খানেক আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৩১ শিশু রয়েছে। এ ছাড়া ৪ শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করেছে ইসরাইলি বাহিনী। অন্যদিকে ইসরাইলের এক সেনাসদস্যসহ ৭ জন নিহত হয়েছে। সেখানে ফিলিস্তিনের হামাসের সঙ্গে ইসরাইলি বাহিনীর গোলাগুলি চলছে। ইসরাইল আর্টিলারি ফায়ার, ট্যাংক থেকে গোলাবর্ষণ ও আকাশ থেকে বোমা নিক্ষেপ করছে।

ইসরাইলের পক্ষ নিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট!

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ মে ২০২১, ১০:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নেতানিয়াহু ও ম্যাঁক্রো
নেতানিয়াহু ও ম্যাঁক্রো। ফাইল ছবি

গাজায় টানা পঞ্চম দিনের মতো সংঘাত নিয়ে ইসরাইলের পক্ষ নিয়ে বিবৃতি দিয়েছন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো। সংঘাত নিয়ে তিনি বলেন, ইসরাইলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে।

শুক্রবার কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

তিনি গাজার পরিস্থিতি নিয়ে তিনি ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলেছেন। এই অঞ্চলে শান্তি ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা করেছেন।

এর আগে এক বিবৃতিতে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেছেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলি নিপীড়নের বিষয়টি সারা বিশ্ব এড়িয়ে গেলেও তুরস্ক চুপ থাকবে না। এমন মন্তব্যের পরই ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের এমন বিবৃতি এলো।

সোমবার থেকে শুরু হওয়া ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় অন্তত ১১৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। প্রায় হাজার খানেক আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৩১ শিশু রয়েছে। এ ছাড়া ৪ শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করেছে ইসরাইলি বাহিনী। অন্যদিকে ইসরাইলের এক সেনাসদস্যসহ ৭ জন নিহত হয়েছে। সেখানে ফিলিস্তিনের হামাসের সঙ্গে ইসরাইলি বাহিনীর গোলাগুলি চলছে। ইসরাইল আর্টিলারি ফায়ার, ট্যাংক থেকে গোলাবর্ষণ ও আকাশ থেকে বোমা নিক্ষেপ করছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ