সংঘাত থামাতে তেল আবিবে যুক্তরাষ্ট্রের দূত
jugantor
সংঘাত থামাতে তেল আবিবে যুক্তরাষ্ট্রের দূত

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৫ মে ২০২১, ১৪:১৪:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সংঘাত থামাতে তেল আবিবে যুক্তরাষ্ট্রের দূত

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর অব্যাহত তাণ্ডবের মধ্যে তেল আবিবে পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের দূত হাদি আমর।

বিবিসি জানিয়েছে, সঙ্কট নিরসনে যুক্তরাষ্ট্র ও আরব বিশ্বের কূটনীতিকদের আহ্বানের মধ্যেই শনিবার তেল আবিবে পৌঁছান তিনি।

দুই পক্ষকে অস্ত্র বিরতিতে রাজি করাতে ইসরাইল, ফিলিস্তিন ও জাতিসংঘের দূতের সঙ্গে আলোচনা করবেন হাদি আমর। রোববার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে তার এই সফর ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলে মনে করছেন কূটনীতিকরা।

ইসরাইলে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জানিয়েছে, হাদি আমরের এই সফরের লক্ষ্য হল ‘একটি টেকসই শান্তির লক্ষ্যে চলমান আলোচনাকে শক্তিশালী করা।’

বিবিসি জানিয়েছে, হাদি আমর একজন মধ্যম-পর্যায়ের কূটনীতিক, যিনি মর্যাদায় যুক্তরাষ্ট্রের আগের প্রশাসনের বিশেষ দূতের সমপর্যায়ের নন।

যদিও ফিলিস্তিন ইস্যুতে ইসরাইলের পক্ষে সরাসরি বিবৃতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

ফিলিস্তিনে বিমান হামলা প্রসঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, আমি আশা ও প্রত্যাশা হলো দ্রুত এটি বন্ধ হবে। কিন্তু ইসরাইলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে।

হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে বলা হয়, নেতানিয়াহুর সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন ইসরাইলে হামাস ও অন্যান্য গ্রুপের রকেট হামলার নিন্দা জানান।

ইসরাইলের নিরাপত্তায় বাইডেন তার সমর্থনে অটল রয়েছেন। ইসরাইল তার জনগণের সুরক্ষায় তার আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে এক ফোনালাপের পর তিনি এসব কথা বলেছেন।

এদিকে ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলি বাহিনীর হামলার ৬ষ্ঠ দিন চলছে। এ হামলা আরো জোরদার করেছে দখলদার বাহিনী।

গত সোমবার থেকে গাজা সীমান্তে ইসরাইলি বাহিনীর বিমান হামলার পর এখন ভূমি থেকে আর্টিলারি ফায়ার ও ট্যাংক দিয়ে গোলা ছোড়া হয়েছে।

শুক্রবার রাতে ৪০ মিনিটে গাজার ১৫০টি লক্ষ্যবস্তুতে ৪৫০টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে তারা। ইসরাইলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্র আভিচায় আদ্রায়ি শুক্রবার টুইটারে এ তথ্য জানিয়েছেন।


সংঘাত থামাতে তেল আবিবে যুক্তরাষ্ট্রের দূত

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৫ মে ২০২১, ০২:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সংঘাত থামাতে তেল আবিবে যুক্তরাষ্ট্রের দূত
অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর অব্যাহত তাণ্ডব চলছে।

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর অব্যাহত তাণ্ডবের মধ্যে তেল আবিবে পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের দূত হাদি আমর।

বিবিসি জানিয়েছে, সঙ্কট নিরসনে যুক্তরাষ্ট্র ও আরব বিশ্বের কূটনীতিকদের আহ্বানের মধ্যেই শনিবার তেল আবিবে পৌঁছান তিনি। 

দুই পক্ষকে অস্ত্র বিরতিতে রাজি করাতে ইসরাইল, ফিলিস্তিন ও জাতিসংঘের দূতের সঙ্গে আলোচনা করবেন হাদি আমর। রোববার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে তার এই সফর ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলে মনে করছেন কূটনীতিকরা।

ইসরাইলে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জানিয়েছে, হাদি আমরের এই সফরের লক্ষ্য হল ‘একটি টেকসই শান্তির লক্ষ্যে চলমান আলোচনাকে শক্তিশালী করা।’  

বিবিসি জানিয়েছে, হাদি আমর একজন মধ্যম-পর্যায়ের কূটনীতিক, যিনি মর্যাদায় যুক্তরাষ্ট্রের আগের প্রশাসনের বিশেষ দূতের সমপর্যায়ের নন। 

যদিও ফিলিস্তিন ইস্যুতে ইসরাইলের পক্ষে সরাসরি বিবৃতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। 

ফিলিস্তিনে বিমান হামলা প্রসঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, আমি আশা ও প্রত্যাশা হলো দ্রুত এটি বন্ধ হবে। কিন্তু ইসরাইলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে।

হোয়াইট হাউজের বিবৃতিতে বলা হয়, নেতানিয়াহুর সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন ইসরাইলে হামাস ও অন্যান্য গ্রুপের রকেট হামলার নিন্দা জানান।

ইসরাইলের নিরাপত্তায় বাইডেন তার সমর্থনে অটল রয়েছেন। ইসরাইল তার জনগণের সুরক্ষায় তার আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে। 

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে এক ফোনালাপের পর তিনি এসব কথা বলেছেন।

এদিকে ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলি বাহিনীর হামলার ৬ষ্ঠ দিন চলছে। এ হামলা আরো জোরদার করেছে দখলদার বাহিনী। 

গত সোমবার থেকে গাজা সীমান্তে ইসরাইলি বাহিনীর বিমান হামলার পর এখন ভূমি থেকে আর্টিলারি ফায়ার ও ট্যাংক দিয়ে গোলা ছোড়া হয়েছে।

শুক্রবার রাতে ৪০ মিনিটে গাজার ১৫০টি লক্ষ্যবস্তুতে ৪৫০টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে তারা। ইসরাইলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্র আভিচায় আদ্রায়ি শুক্রবার টুইটারে এ তথ্য জানিয়েছেন।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফিলিস্তিনিদের ঘরে ফেরার বিক্ষোভ