‘শুভেন্দুর কী হল? উনিও আমার থেকে টাকা নিয়েছিলেন’
jugantor
‘শুভেন্দুর কী হল? উনিও আমার থেকে টাকা নিয়েছিলেন’

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ মে ২০২১, ১৪:১৪:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল। 

তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নারদ মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন। একই অভিযোগ সত্ত্বেও কেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে গ্রেফতার করা হল না?-এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল।

সাংবাদিক ম্যাথু বলেন, আমার প্রশ্ন হল, শুভেন্দু অধিকারীর কী হল? উনিও আমার থেকে টাকা নিয়েছিলেন। সেটা রেকর্ড করা হয়েছিল। তা সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। তাঁর কী হল? সুবিচার সর্বত্র সমতার সঙ্গে যেতে হবে।

সোমবার তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের গ্রেফতারের পর ভিডিওবার্তায় সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল বলেন, ‘দীর্ঘদিনের অপেক্ষা ফলপ্রসূ হয়েছে। আমি সবে জানতে পারলাম যে নারদ মামলায় সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ববি হাকিমসহ তৃণমূল কংগ্রেসের কয়েকজন শীর্ষনেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এটা দীর্ঘদিনের বিচার। এটা আমি নিজে করেছিলেন এবং ২০১৬ সালে আমি জনসমক্ষে এনেছিলাম। অবশেষে আমি ফল পেলাম। এটা দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই।’

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, ২০১৪ সালে ব্যবসায়ীর ছদ্মবেশে কয়েকজন নেতাকে টাকা তুলে দিয়েছিলেন ম্যাথু। পুরোটাই গোপন ক্যামেরায় রেকর্ড করে রেখেছিলেন। ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটের আগে সেই রেকর্ডিং ফাঁস করেছিলেন। তা নিয়ে রাজনীতিতে তোলপাড় হয়েছিল। সেই ভিডিওতে একাধিক তৃণমূল নেতাকে টাকা নিতে দেখা গিয়েছিল। তৎকালীন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমানে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধেও টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু সোমবার তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। সেই ঘটনায় সিবিআইয়ের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস।


‘শুভেন্দুর কী হল? উনিও আমার থেকে টাকা নিয়েছিলেন’

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ মে ২০২১, ০২:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল। 
সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল। ফাইল ছবি

তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নারদ মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন। একই অভিযোগ সত্ত্বেও কেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে গ্রেফতার করা হল না?-এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল। 

সাংবাদিক ম্যাথু বলেন, আমার প্রশ্ন হল, শুভেন্দু অধিকারীর কী হল? উনিও আমার থেকে টাকা নিয়েছিলেন। সেটা রেকর্ড করা হয়েছিল। তা সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। তাঁর কী হল? সুবিচার সর্বত্র সমতার সঙ্গে যেতে হবে।
 
সোমবার তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের গ্রেফতারের পর ভিডিওবার্তায় সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েল বলেন, ‘দীর্ঘদিনের অপেক্ষা ফলপ্রসূ হয়েছে। আমি সবে জানতে পারলাম যে নারদ মামলায় সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ববি হাকিমসহ তৃণমূল কংগ্রেসের কয়েকজন শীর্ষনেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এটা দীর্ঘদিনের বিচার। এটা আমি নিজে করেছিলেন এবং ২০১৬ সালে আমি জনসমক্ষে এনেছিলাম। অবশেষে আমি ফল পেলাম। এটা দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই।’

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, ২০১৪ সালে ব্যবসায়ীর ছদ্মবেশে কয়েকজন নেতাকে টাকা তুলে দিয়েছিলেন ম্যাথু। পুরোটাই গোপন ক্যামেরায় রেকর্ড করে রেখেছিলেন। ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটের আগে সেই রেকর্ডিং ফাঁস করেছিলেন। তা নিয়ে রাজনীতিতে তোলপাড় হয়েছিল। সেই ভিডিওতে একাধিক তৃণমূল নেতাকে টাকা নিতে দেখা গিয়েছিল। তৎকালীন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমানে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধেও টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু সোমবার তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। সেই ঘটনায় সিবিআইয়ের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। 


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন