বাবাকে দেখতে মাঝরাতে সিবিআই কার্যালয়ে ফিরহাদ হাকিমের মেয়ে
jugantor
বাবাকে দেখতে মাঝরাতে সিবিআই কার্যালয়ে ফিরহাদ হাকিমের মেয়ে

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ মে ২০২১, ১০:৩৮:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আদালতের জামিন সত্ত্বেও ছাড়া পাননি কলকাতার মেয়র পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বরং অন্তর্বর্তী জামিন স্থগিত করেছেন কলকাতা হাইকোর্ট।

ফলে সোমবার গভীর রাতে প্রেসিডেন্সি জেলে যেতে হয়েছে নারদকাণ্ডে গ্রেফতার ফিরহাদ হাকিমসহ তৃণমূলের চার নেতা মন্ত্রীকে।

তবে জেলে নিয়ে যাওয়ার আগে বাবাকে দেখতে মাঝরাতেই নিজাম প্যালেসে সিবিআইয়ের কার্যালয়ে ছুটে গেলেন ফিরহাদ হাকিমের বড় মেয়ে প্রিয়দর্শিনী হাকিম। সঙ্গে ছিলেন তার স্বামী ইয়াসির হায়দারও। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত ফিরহাদসহ সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতার নিয়ে সোমবার সারা দিন ধরেই উত্তাল বাংলা।

তবে নিয়ে তৃণমূল এবং বিজেপির রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের মধ্যে মাঝরাতে নিজাম প্যালেসে তৈরি হলো চরম নাটকীয় মুহূর্ত! ফিরহাদের এখনই বাড়ি ফেরা অসম্ভব জেনেও তাকে দেখতে গেলেন প্রিয়দর্শিনী।

তবে তার চোখের সামনে দিয়ে ফিরহাদদের প্রেসিডেন্সি জেলে নিয়ে যায় সিবিআই। রাত গড়ালেও বাবার টানে এবার নিজাম প্যালেস থেকে প্রেসিডেন্সির জেলের দিকে পা বাড়ান প্রিয়দর্শিনী। সেখানে ব্যারিকেডের ওপার থেকেই বাবার জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায় তাকে।

বুধবার হাইকোর্টে পরবর্তী শুনানি পর্যন্ত আপাতত প্রেসিডেন্সি জেলেই থাকবেন ফিরহাদ-সুব্রত-শোভন-মদন। তবে জেলের বাইরে অপেক্ষা ফুরায়নি প্রিয়দর্শিনীর।

সংবাদমাধ্যমের কাছে ফিরহাদদের গ্রেফতারিকেবিজেপির যড়যন্ত্রবলে দাবি করে তৃণমূলকর্মী, সমর্থকসহ গোটা বাংলার মানুষের কাছে শান্ত থাকার আবেদনও করেছেন তিনি।

সেই সঙ্গে দাবি করেছেন, বিধানসভা ভোটে হারার পর বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করতেই বিজেপির অপরানীতি। তবে আইনের পথ ধরেই বাবাকে ঘরে ফিরিয়ে আনতে বদ্ধপরিকর কন্যা প্রিয়দর্শিনী।

বাবাকে দেখতে মাঝরাতে সিবিআই কার্যালয়ে ফিরহাদ হাকিমের মেয়ে

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ মে ২০২১, ১০:৩৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আদালতের জামিন সত্ত্বেও ছাড়া পাননি কলকাতার মেয়র পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বরং অন্তর্বর্তী জামিন স্থগিত করেছেন কলকাতা হাইকোর্ট।

ফলে সোমবার গভীর রাতে প্রেসিডেন্সি জেলে যেতে হয়েছে নারদকাণ্ডে গ্রেফতার ফিরহাদ হাকিমসহ তৃণমূলের চার নেতা মন্ত্রীকে।

তবে জেলে নিয়ে যাওয়ার আগে বাবাকে দেখতে মাঝরাতেই নিজাম প্যালেসে সিবিআইয়ের কার্যালয়ে ছুটে গেলেন ফিরহাদ হাকিমের বড় মেয়ে প্রিয়দর্শিনী হাকিম। সঙ্গে ছিলেন তার স্বামী ইয়াসির হায়দারও। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

 

নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত ফিরহাদসহ সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতার নিয়ে সোমবার সারা দিন ধরেই উত্তাল বাংলা।

 

তবে নিয়ে তৃণমূল এবং বিজেপির রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের মধ্যে মাঝরাতে নিজাম প্যালেসে তৈরি হলো চরম নাটকীয় মুহূর্ত! ফিরহাদের এখনই বাড়ি ফেরা অসম্ভব জেনেও তাকে দেখতে গেলেন প্রিয়দর্শিনী।

 

তবে তার চোখের সামনে দিয়ে ফিরহাদদের প্রেসিডেন্সি জেলে নিয়ে যায় সিবিআই। রাত গড়ালেও বাবার টানে এবার নিজাম প্যালেস থেকে প্রেসিডেন্সির জেলের দিকে পা বাড়ান প্রিয়দর্শিনী। সেখানে ব্যারিকেডের ওপার থেকেই বাবার জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায় তাকে।

বুধবার হাইকোর্টে পরবর্তী শুনানি পর্যন্ত আপাতত প্রেসিডেন্সি জেলেই থাকবেন ফিরহাদ-সুব্রত-শোভন-মদন। তবে জেলের বাইরে অপেক্ষা ফুরায়নি প্রিয়দর্শিনীর।

 

সংবাদমাধ্যমের কাছে ফিরহাদদের গ্রেফতারিকেবিজেপির যড়যন্ত্রবলে দাবি করে তৃণমূলকর্মী, সমর্থকসহ গোটা বাংলার মানুষের কাছে শান্ত থাকার আবেদনও করেছেন তিনি।

সেই সঙ্গে দাবি করেছেন, বিধানসভা ভোটে হারার পর বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করতেই বিজেপির অপরানীতি। তবে আইনের পথ ধরেই বাবাকে ঘরে ফিরিয়ে আনতে বদ্ধপরিকর কন্যা প্রিয়দর্শিনী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন