মিডিয়ার মুখোমুখি হতে পারবেন না পশ্চিমবঙ্গের সেই ৪ নেতা
jugantor
মিডিয়ার মুখোমুখি হতে পারবেন না পশ্চিমবঙ্গের সেই ৪ নেতা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ মে ২০২১, ১৪:৪৭:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দুই মন্ত্রীসহ ৪ নেতাকে মিডিয়ার মুখোমুখি হওয়ার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার জামিন আদেশে এ শর্তারোপ করা হয়। খবর ইন্ডিয়ান টাইমস, এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, নারদ মামলায় শর্তসাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় নেতা ও পরিবহন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, সাবেক মন্ত্রী মদন মিত্র ও তৃণমূলের সাবেক নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাদেরকে দুই লাখ টাকা ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের ৫ সদস্যের বৃহত্তর বেঞ্চ তাদের জামিন মঞ্জুর করে।

ভারতের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম জি নিউজের খবরে বলা হয়, আপাতত শর্তসাপেক্ষে ওই চার নেতা-মন্ত্রীকে জামিন দেওয়া হয়েছে। শর্তের মধ্যে রয়েছে রয়েছে মামলা সংক্রন্ত কোনও বিষয় নিয়ে মিডিয়ার মুখোমুখি হওয়া যাবে না। মামলার তথ্যপ্রমাণ বিকৃত করা যাবে না। প্রসঙ্গত, এই আদেশ হল অন্তর্বর্তীকালীন। পরবর্তীক্ষেত্রে শুনানির সময়ে জামিন নাকচও হতে পারে।

মিডিয়ার মুখোমুখি হতে পারবেন না পশ্চিমবঙ্গের সেই ৪ নেতা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ মে ২০২১, ০২:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দুই মন্ত্রীসহ ৪ নেতাকে মিডিয়ার মুখোমুখি হওয়ার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার জামিন আদেশে এ শর্তারোপ করা হয়। খবর ইন্ডিয়ান টাইমস, এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমসের। 

খবরে বলা হয়, নারদ মামলায় শর্তসাপেক্ষে জামিন পেয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় নেতা ও পরিবহন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, সাবেক মন্ত্রী মদন মিত্র ও তৃণমূলের সাবেক নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাদেরকে দুই লাখ টাকা ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন দেওয়া হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের ৫ সদস্যের বৃহত্তর বেঞ্চ তাদের জামিন মঞ্জুর করে। 

ভারতের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম জি নিউজের খবরে বলা হয়, আপাতত শর্তসাপেক্ষে ওই চার নেতা-মন্ত্রীকে জামিন দেওয়া হয়েছে। শর্তের মধ্যে রয়েছে রয়েছে মামলা সংক্রন্ত কোনও বিষয় নিয়ে মিডিয়ার মুখোমুখি হওয়া যাবে না। মামলার তথ্যপ্রমাণ বিকৃত করা যাবে না। প্রসঙ্গত, এই আদেশ হল অন্তর্বর্তীকালীন। পরবর্তীক্ষেত্রে শুনানির সময়ে জামিন নাকচও হতে পারে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন