কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতির বক্তব্যে ক্ষুব্ধ ভারত
jugantor
কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতির বক্তব্যে ক্ষুব্ধ ভারত

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৯ মে ২০২১, ১৬:৪৩:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকার

কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকারের দেওয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত।

বৃহস্পতিবারই কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের আরও বেশি জোর গলায় সরব হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছিলেন ভোলকান। জম্মু ও কাশ্মীরের অবস্থান যাতে পরিবর্তন না হয়, এ জন্য সব পক্ষকেই পদক্ষেপ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

এর জবাবে এবার ভারত জানিয়েছে, কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভাপতির মন্তব্য অযৌক্তিক এবং দুঃখজনক।

ভোলকানের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েন মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, পাকিস্তান সফরকালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকারের কাশ্মীর নিয়ে করা এই অযৌক্তিক মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করছি আমরা। ভোলকান বলেছেন যে পাকিস্তানের উচিত কাশ্মীর ইস্যু জাতিসংঘে উত্থাপন করা, এই মন্তব্য গ্রহণযোগ্য নয়।

এর আগে কাশ্মীরের পরিস্থিতিকে ফিলিস্তিনের সঙ্গে তুলনা টেনেছিলেন ভোলকান। যা ভালো চোখে দেখেনি ভারত। ইসলামাবাদে পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশির সঙ্গে বৈঠকের পরে তুর্কি এ কূটনীতিক কাশ্মীর নিয়ে এমন মন্তব্য করেছিলেন।

২০১৯ সালে সংবিধানের ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে ভারত জম্মু ও কাশ্মীরকে দুই ভাগে ভাগ করে লাদাখকে পৃথক কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের মর্যাদা দেয়। যা নিয়ে আপত্তি তুলেছিল পাকিস্তান। যদিও ভারত এই বিষয়টিকে নিজেদের অভ্যন্তরীণ ইস্যু বলে দাবি করে এসেছে।

কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতির বক্তব্যে ক্ষুব্ধ ভারত

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৯ মে ২০২১, ০৪:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকার
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকার। ছবি: সংগৃহীত

কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকারের দেওয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। 

বৃহস্পতিবারই  কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের আরও বেশি জোর গলায় সরব হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছিলেন ভোলকান।  জম্মু ও কাশ্মীরের অবস্থান যাতে পরিবর্তন না হয়, এ জন্য সব পক্ষকেই পদক্ষেপ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। 

এর জবাবে এবার ভারত জানিয়েছে, কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভাপতির মন্তব্য অযৌক্তিক এবং দুঃখজনক।

ভোলকানের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েন মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, পাকিস্তান সফরকালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভাপতি ভোলকান বোজকারের কাশ্মীর নিয়ে করা এই অযৌক্তিক মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করছি আমরা। ভোলকান বলেছেন যে পাকিস্তানের উচিত কাশ্মীর ইস্যু জাতিসংঘে উত্থাপন করা, এই মন্তব্য গ্রহণযোগ্য নয়।

এর আগে কাশ্মীরের পরিস্থিতিকে ফিলিস্তিনের সঙ্গে তুলনা টেনেছিলেন ভোলকান। যা ভালো চোখে দেখেনি ভারত। ইসলামাবাদে পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশির সঙ্গে বৈঠকের পরে তুর্কি এ কূটনীতিক  কাশ্মীর নিয়ে এমন মন্তব্য করেছিলেন। 

২০১৯ সালে সংবিধানের ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে ভারত জম্মু ও কাশ্মীরকে দুই ভাগে ভাগ করে লাদাখকে পৃথক কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের মর্যাদা দেয়। যা নিয়ে আপত্তি তুলেছিল পাকিস্তান। যদিও ভারত এই বিষয়টিকে নিজেদের অভ্যন্তরীণ ইস্যু বলে দাবি করে এসেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট