মুসলমানদের নাগরিকত্ব নিয়ে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টে প্রশ্ন
jugantor
মুসলমানদের নাগরিকত্ব নিয়ে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টে প্রশ্ন

  অনলাইন ডেস্ক  

০১ জুন ২০২১, ২০:০৫:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

অমুসলিমরাই কেন ভারতের নাগরিকত্ব পাবে? মুসলমানদের কেন নাগরিকত্ব দেয়া হবে না এমন প্রশ্ন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

গত শুক্রবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়- আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে আসা অমুসলিমদের (হিন্দু, শিখ, জৈন এবং বৌদ্ধ) ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। গুজরাট, রাজস্থান, ছত্তিসগড়, হরিয়ানা, পাঞ্জাবের মতো রাজ্যে বসবাসকারীরা এ সুযোগ পাবেন।

ওই বিজ্ঞপ্তির বিরোধিতা করে মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ (IUML)।

ইতিমধ্যে ওই অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। কেন মুসলিম দেশ থেকে আসা অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে, কেন মুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে না তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়।

প্রসঙ্গত, নাগরিকত্ব আইন ১৯৫৫ এবং ২০০৯ সালে প্রণীত নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের (CAA) অধীনে এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। ২০১৯ এর নাগরিকত্ব আইন পাসের পর থেকেই উত্তাল হয়েছে ভারত। ওই দুটি আইনই মুসলমানদের অধিকার খর্ব করেছে। উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি সরকারের প্রণীত এ আইনটি নিয়ে ভারতের বিভিন্ন মহলেও ব্যাপক সমালোচিত হয়েছে। ওই আইনটির প্রতিক্রিয়ায় দেশটির প্রতিটি কোণে ছড়িয়ে পড়িয়েছিল বিক্ষোভ।

মুসলমানদের নাগরিকত্ব নিয়ে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টে প্রশ্ন

 অনলাইন ডেস্ক 
০১ জুন ২০২১, ০৮:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি
ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

অমুসলিমরাই কেন ভারতের নাগরিকত্ব পাবে? মুসলমানদের কেন নাগরিকত্ব দেয়া হবে না এমন প্রশ্ন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

গত শুক্রবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়- আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে আসা অমুসলিমদের (হিন্দু, শিখ, জৈন এবং বৌদ্ধ) ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হবে।  গুজরাট, রাজস্থান, ছত্তিসগড়, হরিয়ানা, পাঞ্জাবের মতো রাজ্যে বসবাসকারীরা এ সুযোগ পাবেন। 

ওই বিজ্ঞপ্তির বিরোধিতা করে মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ (IUML)।

ইতিমধ্যে ওই অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। কেন মুসলিম দেশ থেকে আসা অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে, কেন মুসলিমদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে না তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়।

প্রসঙ্গত, নাগরিকত্ব আইন ১৯৫৫ এবং ২০০৯ সালে প্রণীত নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের (CAA) অধীনে এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। ২০১৯ এর নাগরিকত্ব আইন পাসের পর থেকেই উত্তাল হয়েছে ভারত। ওই দুটি আইনই মুসলমানদের অধিকার খর্ব করেছে। উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি সরকারের প্রণীত এ আইনটি নিয়ে ভারতের বিভিন্ন মহলেও ব্যাপক সমালোচিত হয়েছে। ওই আইনটির প্রতিক্রিয়ায় দেশটির প্রতিটি কোণে ছড়িয়ে পড়িয়েছিল বিক্ষোভ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বিতর্ক