কংগ্রেসের স্পিকার হতে চান ট্রাম্প, যুক্তরাষ্ট্রে তোলপাড়
jugantor
কংগ্রেসের স্পিকার হতে চান ট্রাম্প, যুক্তরাষ্ট্রে তোলপাড়

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৫ জুন ২০২১, ১৯:৫১:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কংগ্রেসের স্পিকার হতে চান ট্রাম্প, যুক্তরাষ্ট্রে তোলপাড়

২০২০ সালের নির্বাচনে হারের প্রতিশোধ নিতে ২০২৪ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চান না মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২০২২ সালে অনুষ্ঠিতব্য কংগ্রেসের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ফ্লোরিডার একটি আসন থেকে কংগ্রেসম্যান হতে চান তিনি।

এরপর কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার হয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ইমপিচ করার তদন্ত শুরু করতে চান। এমনই এক মিশনে নেমেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর দ্য হিন্দুস্তান টাইমস।

চরম ডানপন্থি হোস্ট ওয়েইন এলিন রুটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প এই আভাস দেন এবং তা রেডিওতে প্রচারের পরই পুরো আমেরিকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। এমনই এক সময়ে ট্রাম্প তার প্রতিহিংসাপরায়ণ মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ ঘটালেন- যখন ফেসবুক তাকে দুবছরের জন্যে নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দেয়।

কংগ্রেসে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের জন্যে মধ্যবর্তী নির্বাচনে ট্রাম্পকে প্রার্থী হওয়ার সর্বপ্রথম প্রস্তাব বোস্টন রিপাবলিকানদের এক অনুষ্ঠানে উত্থাপন করেন ট্রাম্পের সাবেক উপদেষ্টা স্টিভ ব্যানোন।

স্টিভের যুক্তি অনুযায়ী ট্রাম্প ফ্লোরিডা থেকে রিপাবলিকান প্রার্থী হলে বিজয় কেউ ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না। শুধু তাই নয়, ট্রাম্পের কারণে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থীরা বিজয়ও ত্বরান্বিত হবে বলে উল্লেখ করেছেন ব্যানোন।

আসলে ট্রাম্পের মগজে এমন পরিকল্পনার কথা স্টিভ ব্যানোন ঢোকালেও সেই দুরভিসন্ধিকে উসকে দেন রেডিওর হোস্ট রুট। তিনি বিষয়টি মনে করিয়ে দেওয়ার পরই ট্রাম্পের চোখে-মুখে ফুটে উঠল হাসির ঝিলিক। তিনি বললেন, ‘তাই নাকি? ব্যাপারটা তো বেশ মজার!’

এই সাক্ষাৎকারে ফেসবুকে নিষিদ্ধের বিষয়েও তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল। তিনি ঝটপট জবাব দিলেন, ‘এরপর আমি যখন আবার হোয়াইট হাউজে প্রবেশ করব, তখন মার্ক জাকারবার্গ আর তার স্ত্রীর অনুরোধে তাদের সঙ্গে আমার ডিনার করা সম্ভব হবে না। তবে তাদের সঙ্গে শুধু ব্যবসাই হতে পারে।’

কংগ্রেসের স্পিকার হতে চান ট্রাম্প, যুক্তরাষ্ট্রে তোলপাড়

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৫ জুন ২০২১, ০৭:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কংগ্রেসের স্পিকার হতে চান ট্রাম্প, যুক্তরাষ্ট্রে তোলপাড়
ফাইল ছবি

২০২০ সালের নির্বাচনে হারের প্রতিশোধ নিতে ২০২৪ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চান না মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

২০২২ সালে অনুষ্ঠিতব্য কংগ্রেসের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ফ্লোরিডার একটি আসন থেকে কংগ্রেসম্যান হতে চান তিনি। 

এরপর কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার হয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ইমপিচ করার তদন্ত শুরু করতে চান। এমনই এক মিশনে নেমেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর দ্য হিন্দুস্তান টাইমস।

চরম ডানপন্থি হোস্ট ওয়েইন এলিন রুটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প এই আভাস দেন এবং তা রেডিওতে প্রচারের পরই পুরো আমেরিকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। এমনই এক সময়ে ট্রাম্প তার প্রতিহিংসাপরায়ণ মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ ঘটালেন- যখন ফেসবুক তাকে দুবছরের জন্যে নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দেয়। 

কংগ্রেসে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের জন্যে মধ্যবর্তী নির্বাচনে ট্রাম্পকে প্রার্থী হওয়ার সর্বপ্রথম প্রস্তাব বোস্টন রিপাবলিকানদের এক অনুষ্ঠানে উত্থাপন করেন ট্রাম্পের সাবেক উপদেষ্টা স্টিভ ব্যানোন। 

স্টিভের যুক্তি অনুযায়ী ট্রাম্প ফ্লোরিডা থেকে রিপাবলিকান প্রার্থী হলে বিজয় কেউ ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না। শুধু তাই নয়, ট্রাম্পের কারণে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থীরা বিজয়ও ত্বরান্বিত হবে বলে উল্লেখ করেছেন ব্যানোন। 

আসলে ট্রাম্পের মগজে এমন পরিকল্পনার কথা স্টিভ ব্যানোন ঢোকালেও সেই দুরভিসন্ধিকে উসকে দেন রেডিওর হোস্ট রুট। তিনি বিষয়টি মনে করিয়ে দেওয়ার পরই ট্রাম্পের চোখে-মুখে ফুটে উঠল হাসির ঝিলিক। তিনি বললেন, ‘তাই নাকি? ব্যাপারটা তো বেশ মজার!’ 

এই সাক্ষাৎকারে ফেসবুকে নিষিদ্ধের বিষয়েও তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল। তিনি ঝটপট জবাব দিলেন, ‘এরপর আমি যখন আবার হোয়াইট হাউজে প্রবেশ করব, তখন মার্ক জাকারবার্গ আর তার স্ত্রীর অনুরোধে তাদের সঙ্গে আমার ডিনার করা সম্ভব হবে না। তবে তাদের সঙ্গে শুধু ব্যবসাই হতে পারে।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন