৫ বছরের আউস জর্ডানের সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ শিক্ষক!
jugantor
৫ বছরের আউস জর্ডানের সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ শিক্ষক!

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৭ জুন ২০২১, ১৩:৫১:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

জর্ডানের শিশু আউস ওউদাহর বয়স ৫ বছর। এরমধ্যে সে যোগাযোগের জন্য সাইন ল্যাঙ্গুয়েজে পারদর্শিতা অর্জন করেছে। পাঁচ বছরের এ শিশু এখন দেশটির সর্বকনিষ্ঠ সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ শিক্ষক।

আউস এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজের তার নিজস্ব ধরন তরুণ জর্ডানিয়ানদের মধ্যে ছড়িয়ে দিচ্ছে।
প্রথমে বাবার কাছ থেকে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ রপ্ত করে জর্ডানের এ শিশু। এরপর সে শিক্ষামূলক ভিডিও তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়, যা তার ইউটিউট চ্যানেলে পোস্ট করা হয়।

তরুণ এ প্রশিক্ষক এসব ভিডিও তৈরি করছে যাদের শ্রবণ প্রতিবন্ধকতা রয়েছে তারা যেন সহজে একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।

আউস ওউদাহর বাবা আশরাফ ওউদাহ। তিন সন্তানের জনক তিনি। গর্বিত এ বাবা আউসকে অভিহিত করছেন ‘সেলিব্রেটি’ হিসেবে।
অনুসরণকারী এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে যে পরিমাণ মনযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে এটাই আউসের অনুপ্রেরণার মূল উৎস বলে মনে করেন আশরাফ ওউদাহ।

জর্ডানের সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ এন্টারপ্রেটারদের একজন আশরাফ ওউদাহ বলেন, কথ্য এবং সাইন ল্যাঙ্গুয়েজে দক্ষ হওয়ার জন্য আউসের প্রচেষ্টা আমাকে শৈশবের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়।

তিনি আশা করেন, সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ ইন্টারপ্রিটেশনের ক্ষেত্রে তার সন্তানের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল। কেননা, তার এমনসব আত্মীয় রয়েছে যাদের কাছ থেকে আউস শিখতে পারে এবং তাদের সঙ্গে অনুশীল করতে পারে।

৫ বছরের আউস জর্ডানের সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ শিক্ষক!

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৭ জুন ২০২১, ০১:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জর্ডানের শিশু আউস ওউদাহর বয়স ৫ বছর। এরমধ্যে সে যোগাযোগের জন্য সাইন ল্যাঙ্গুয়েজে পারদর্শিতা অর্জন করেছে। পাঁচ বছরের এ শিশু এখন দেশটির সর্বকনিষ্ঠ সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ শিক্ষক।

আউস এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজের তার নিজস্ব ধরন তরুণ জর্ডানিয়ানদের মধ্যে ছড়িয়ে দিচ্ছে।
প্রথমে বাবার কাছ থেকে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ রপ্ত করে জর্ডানের এ শিশু।  এরপর সে শিক্ষামূলক ভিডিও তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়, যা তার ইউটিউট চ্যানেলে পোস্ট করা হয়। 

তরুণ এ প্রশিক্ষক এসব ভিডিও তৈরি করছে যাদের শ্রবণ প্রতিবন্ধকতা রয়েছে তারা যেন সহজে একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। 

আউস ওউদাহর বাবা আশরাফ ওউদাহ।  তিন সন্তানের জনক তিনি। গর্বিত এ বাবা আউসকে অভিহিত করছেন ‘সেলিব্রেটি’ হিসেবে। 
অনুসরণকারী এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে যে পরিমাণ মনযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে এটাই আউসের অনুপ্রেরণার মূল উৎস বলে মনে করেন আশরাফ ওউদাহ।

জর্ডানের সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ এন্টারপ্রেটারদের একজন আশরাফ ওউদাহ বলেন, কথ্য এবং সাইন ল্যাঙ্গুয়েজে দক্ষ হওয়ার জন্য আউসের প্রচেষ্টা আমাকে শৈশবের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়।

তিনি আশা করেন, সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ ইন্টারপ্রিটেশনের ক্ষেত্রে তার সন্তানের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল। কেননা, তার এমনসব আত্মীয় রয়েছে যাদের কাছ থেকে আউস শিখতে পারে এবং তাদের সঙ্গে অনুশীল করতে পারে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন