ইতালির মিলান কনস্যুলেটে ৩ জনের পাসপোর্ট আটকে রাখার অভিযোগ
jugantor
ইতালির মিলান কনস্যুলেটে ৩ জনের পাসপোর্ট আটকে রাখার অভিযোগ

  ইতালি প্রতিনিধি  

১০ জুন ২০২১, ১৩:০৩:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ইতালির মিলান কনস্যুলেট অফিসের বিরুদ্ধে একই পরিবারের দুই শিশুসহ তিনজনের পাসপোর্ট আটকে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১০ মাস আগে কনস্যুলেট অফিসে নবায়ন করার জন্য পাসপোর্ট তিনটি জমা দেওয়া হয়েছিল।

এ ব্যাপারে পাসপোর্ট নবায়নের জন্য আবেদনকারী ভুক্তভোগী মো. সোহেল আলম মজুমদার শিপন জানান, গত বছরের ১২ আগস্ট আমার নিজের এবং দুই শিশুসন্তান সানজা মজুমদার ও শাবিব মজুমদারের পাসপোর্ট নবায়ন করতে কনস্যুলেট অফিসে আবেদন করি। ১০ মাস হয়ে গেলেও তারা এখন পর্যন্ত পাসপোর্ট নবায়ন করেননি। আবেদন করা পাসপোর্টগুলোর সিরিয়াল নম্বর আইটিএ ৭৪৭৫৫, ৭৪৭৫৬ ও ৭৪৭৫৭।

জানা গেছে, গত বছরের ২২ আগস্ট মিলানে অবস্থিত বাংলাদেশের একমাত্র কনস্যুলেট অফিসের দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করে অনলাইন পোর্টাল ‘দেশপ্রিয় নিউজ’। ওই পোর্টালের সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল আলম মজুমদার শিপন।

সংবাদ প্রকাশের জেরেই তার এবং পরিবারের সদস্যদের পাসপোর্ট আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করছেন শিপনসহ স্থানীয় আরও অনেক প্রবাসী।

শিপন বলেন, গত বছর ২২ আগস্ট সংবাদটি প্রকাশের পর ইতালি ও মিলান আওয়ামী লীগের দুই নেতা সংবাদটি মুছে ফেলতে অনুরোধ জানান এবং বিভিন্ন প্রলোভনও দেখান। এর পরও সংবাদটি সরিয়ে না নেওয়ার কারণে প্রতিশোধ নিতে আমাদের পাসপোর্ট সময়মতো নবায়ন না করে হয়রানি করা হচ্ছে। এর জন্য খোদ মিলান কনস্যুলেট জেনারেল ইকবাল আহমেদকে দায়ী করেন তিনি।

শিপন আরও বলেন, পাসপোর্ট নবায়ন না করার কারণ জানতে ইতোমধ্যে মিলান কনস্যুলেট অফিসের ইমেইলে বার্তা পাঠিয়েছি। কিন্তু কোনো জবাব আসেনি। পাসপোর্ট নবায়ন না হওয়ার কোনো কারণও জানাননি তারা।

এ ব্যাপারে ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শামীম আহসানের সঙ্গে কথা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এর আগে ডয়েচে ভেলের বাংলা বিভাগের প্রধান খালিদ মহিউদ্দিনের সঙ্গে এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে প্রবাসীরা মিলান কনস্যুলেট অফিসের সেবা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তখন কনস্যুলেট জেনারেল ইকবাল আহমেদ সমস্যার ব্যাখ্যা করেন ডয়েচে ভেলের কাছে। তিনি সেবার মান বৃদ্ধিরও আশ্বাস দেন।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মিলান লম্বারদিয়া আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেন, পাসপোর্ট আটকে রাখার কথা শুনেছি। আমি মনে করি, কারও বিরুদ্ধে যদি রাষ্ট্রবিরোধী কোনো কাজের সংশ্লিষ্টতা না পাওয়া যায়, তা হলে তার পাসপোর্ট আটকে রাখা যায় না।

এ ব্যাপারে জানতে মিলান কনস্যুলেট জেনারেল ইকবাল আহমেদকে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, প্রবাসী সাংবাদিক মো. সোহেল আলম মজুমদার শিপন ২০০৩ সালে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন।

ইতালির মিলান কনস্যুলেটে ৩ জনের পাসপোর্ট আটকে রাখার অভিযোগ

 ইতালি প্রতিনিধি 
১০ জুন ২০২১, ০১:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইতালির মিলান কনস্যুলেট অফিসের বিরুদ্ধে একই পরিবারের দুই শিশুসহ তিনজনের পাসপোর্ট আটকে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১০ মাস আগে কনস্যুলেট অফিসে নবায়ন করার জন্য পাসপোর্ট তিনটি জমা দেওয়া হয়েছিল।

এ ব্যাপারে পাসপোর্ট নবায়নের জন্য আবেদনকারী ভুক্তভোগী মো. সোহেল আলম মজুমদার শিপন জানান, গত বছরের ১২ আগস্ট আমার নিজের এবং দুই শিশুসন্তান সানজা মজুমদার ও শাবিব মজুমদারের পাসপোর্ট নবায়ন করতে কনস্যুলেট অফিসে আবেদন করি। ১০ মাস হয়ে গেলেও তারা এখন পর্যন্ত পাসপোর্ট নবায়ন করেননি। আবেদন করা পাসপোর্টগুলোর সিরিয়াল নম্বর আইটিএ ৭৪৭৫৫, ৭৪৭৫৬ ও ৭৪৭৫৭।

জানা গেছে, গত বছরের ২২ আগস্ট মিলানে অবস্থিত বাংলাদেশের একমাত্র কনস্যুলেট অফিসের দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করে অনলাইন পোর্টাল ‘দেশপ্রিয় নিউজ’। ওই পোর্টালের সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল আলম মজুমদার শিপন।

সংবাদ প্রকাশের জেরেই তার এবং পরিবারের সদস্যদের পাসপোর্ট আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করছেন শিপনসহ স্থানীয় আরও অনেক প্রবাসী।

শিপন বলেন, গত বছর ২২ আগস্ট সংবাদটি প্রকাশের পর ইতালি ও মিলান আওয়ামী লীগের দুই নেতা সংবাদটি মুছে ফেলতে অনুরোধ জানান এবং বিভিন্ন প্রলোভনও দেখান। এর পরও সংবাদটি সরিয়ে না নেওয়ার কারণে প্রতিশোধ নিতে আমাদের পাসপোর্ট সময়মতো নবায়ন না করে হয়রানি করা হচ্ছে। এর জন্য খোদ মিলান কনস্যুলেট জেনারেল ইকবাল আহমেদকে দায়ী করেন তিনি।

শিপন আরও বলেন, পাসপোর্ট নবায়ন না করার কারণ জানতে ইতোমধ্যে মিলান কনস্যুলেট অফিসের ইমেইলে বার্তা পাঠিয়েছি। কিন্তু কোনো জবাব আসেনি। পাসপোর্ট নবায়ন না হওয়ার কোনো কারণও জানাননি তারা।

এ ব্যাপারে ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শামীম আহসানের সঙ্গে কথা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এর আগে ডয়েচে ভেলের বাংলা বিভাগের প্রধান খালিদ মহিউদ্দিনের সঙ্গে এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে প্রবাসীরা মিলান কনস্যুলেট অফিসের সেবা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তখন কনস্যুলেট জেনারেল ইকবাল আহমেদ সমস্যার ব্যাখ্যা করেন ডয়েচে ভেলের কাছে। তিনি সেবার মান বৃদ্ধিরও আশ্বাস দেন।

এ ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মিলান লম্বারদিয়া আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেন, পাসপোর্ট আটকে রাখার কথা শুনেছি। আমি মনে করি, কারও বিরুদ্ধে যদি রাষ্ট্রবিরোধী কোনো কাজের সংশ্লিষ্টতা না পাওয়া যায়, তা হলে তার পাসপোর্ট আটকে রাখা যায় না।

এ ব্যাপারে জানতে মিলান কনস্যুলেট জেনারেল ইকবাল আহমেদকে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, প্রবাসী সাংবাদিক মো. সোহেল আলম মজুমদার শিপন ২০০৩ সালে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর