ফেসবুকে মিলল ৪৬ বছর আগের হারানো আংটির খোঁজ
jugantor
ফেসবুকে মিলল ৪৬ বছর আগের হারানো আংটির খোঁজ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১১ জুন ২০২১, ০৪:১১:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

৪৬ বছর আগে হাইস্কুলের ছাত্রী থাকাকালে প্রিয় আংটি হারিয়ে ফেলেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের মেরি গেজেল-ব্রেডসলি। আবার কখনো সেই আংটি ফিরে পাবেন ভাবেননি তিনি। তবে সম্প্রতি তার ফেসবুকে আসা একটি বার্তায় খোঁজ মিলল সেই আংটির।

ভারতের এনডিটিভি বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মেরির ফেসবুকে ক্রিস নর্ড নামের এক ব্যক্তির বার্তা আসে। সেখানে বলা হয়, আমার কাছে এমন একটা জিনিস আসে যেটা আপনার হতে পারে। পরে বার্তার সঙ্গে থাকা ছবিটি দেখে চমকে যান মেরি।ছবিটি তার সেই আংটির যা ৪৬ বছর আগে হারিয়ে ফেলেছিলেন তিনি।

মেরি জানান, নর্ড তার ফেসবুকে আংটির একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন। মুহূর্তে তা শেয়ার করে অনেক মানুষ। পরে মেরি যে স্কুলের ছাত্রী ছিলেন, সেই পাওয়ার ক্যাথলিক হাইস্কুলের পেজ থেকে পোস্ট করে জানানো হয় আংটিটি তাদের এক ছাত্রীর হতে পারে। স্কুল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমেই মেরিকে খুঁজে পান নর্ড।

আংটি পাওয়ার পর মেরি তার স্কুলের ওই পোস্টের নিচে ধন্যবাদ জানিয়ে মন্তব্য করেছেন।

নর্ডের ভাই ২০ বছর আগে ময়লার ফেলার জায়গায় থাকা এক বাক্সের ভেতরে আংটিটি পেয়েছিলেন। তখন থেকে আংটিটি নর্ডের কাছেই ছিল। সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করে আংটির মালিককে খুঁজে বের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন নর্ড। আংটির মালিককে খুঁজে পেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ইতিবাচক দিক আরেকবার চোখ আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন নর্ড।

ফেসবুকে মিলল ৪৬ বছর আগের হারানো আংটির খোঁজ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১১ জুন ২০২১, ০৪:১১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

৪৬ বছর আগে হাইস্কুলের ছাত্রী থাকাকালে প্রিয় আংটি হারিয়ে ফেলেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের মেরি গেজেল-ব্রেডসলি। আবার কখনো সেই আংটি ফিরে পাবেন ভাবেননি তিনি। তবে সম্প্রতি তার ফেসবুকে আসা একটি বার্তায় খোঁজ মিলল সেই আংটির।

ভারতের এনডিটিভি বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মেরির ফেসবুকে ক্রিস নর্ড নামের এক ব্যক্তির বার্তা আসে। সেখানে বলা হয়, আমার কাছে এমন একটা জিনিস আসে যেটা আপনার হতে পারে। পরে বার্তার সঙ্গে থাকা ছবিটি দেখে চমকে যান মেরি।ছবিটি তার সেই আংটির যা ৪৬ বছর আগে হারিয়ে ফেলেছিলেন তিনি।

মেরি জানান, নর্ড তার ফেসবুকে আংটির একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন। মুহূর্তে তা শেয়ার করে অনেক মানুষ। পরে মেরি যে স্কুলের ছাত্রী ছিলেন, সেই পাওয়ার ক্যাথলিক হাইস্কুলের পেজ থেকে পোস্ট করে জানানো হয় আংটিটি তাদের এক ছাত্রীর হতে পারে। স্কুল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমেই মেরিকে খুঁজে পান নর্ড।

আংটি পাওয়ার পর মেরি তার স্কুলের ওই পোস্টের নিচে ধন্যবাদ জানিয়ে মন্তব্য করেছেন।

নর্ডের ভাই ২০ বছর আগে ময়লার ফেলার জায়গায় থাকা এক বাক্সের ভেতরে আংটিটি পেয়েছিলেন। তখন থেকে আংটিটি নর্ডের কাছেই ছিল। সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার করে আংটির মালিককে খুঁজে বের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন নর্ড। আংটির মালিককে খুঁজে পেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ইতিবাচক দিক আরেকবার চোখ আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন নর্ড।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর