প্রতিবেশী দেশগুলো তুরস্ক নিয়ে স্বপ্ন দেখে: এরদোগান
jugantor
প্রতিবেশী দেশগুলো তুরস্ক নিয়ে স্বপ্ন দেখে: এরদোগান

  অনলাইন ডেস্ক  

১১ জুন ২০২১, ২২:৩৪:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

২০০৩ সালে প্রথম ক্ষমতায় আসেন তুরস্কের একেপি পার্টির নেতা রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান

প্রতিবেশি দেশগুলো তুরস্ক নিয়ে স্বপ্ন দেখে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

শুক্রবার তুরস্কের দক্ষিণ প্রদেশ কিলিসের এক খাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এরদোগান এ কথা বলেন।

তুরস্কের এই প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাদেরকে গ্রেট এবং শক্তিশালী’ তুরস্ক নির্মাণের প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করতে হবে। বন্ধু দেশ এবং প্রতিবেশি দেশগুলো আমাদের নিয়ে স্বপ্ন দেখে।

তুরস্ক ২০২৩ সালের টার্গেট বাস্তবায়নের সন্নিকটে রয়েছে উল্লেখ করে এরদোগান বলেন, আমাদের সরকার এখন পর্যন্ত যত গুরুত্বপূর্ণ কাজ করেছে তার মধ্যে অন্যতম সেরা কাজ হলো-‘উত্তম বোঝাপড়া’।

২০০৩ সালে প্রথম ক্ষমতায় আসেন তুরস্কের একেপি পার্টির নেতা রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। সম্প্রতি এরদোগানের নেতৃত্বে তুরস্ক ব্যাপক সফলতা পেয়েছে।

আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার যুদ্ধে তুরস্ক সরাসরি আজারবাইজানের পক্ষ নিয়ে তাদেরকে বিজয়ী করেছে। সিরিয়া ও ইরাকে কখনো আসাদ বাহিনী, কখনো কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়ছে তুরস্ক। লিবিয়ায় তারা থামিয়ে দিয়েছে ফ্রান্স ও রাশিয়া-সমর্থিত বিদ্রোহী জেনারেল হাফতারের বাহিনীকে। এছাড়া তুর্কি সেনারা গ্রিস, গ্রিক-সাইপ্রাস ও মিসর এবং ইরাকি কুর্দিদের বিরুদ্ধেও সফলতা পেয়েছে।

প্রতিবেশী দেশগুলো তুরস্ক নিয়ে স্বপ্ন দেখে: এরদোগান

 অনলাইন ডেস্ক 
১১ জুন ২০২১, ১০:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
২০০৩ সালে প্রথম ক্ষমতায় আসেন তুরস্কের একেপি পার্টির নেতা রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান
এরদোগানের নেতৃত্বে তুরস্ক ব্যাপক সফলতা পেয়েছে। ফাইল ফটো

প্রতিবেশি দেশগুলো তুরস্ক নিয়ে স্বপ্ন দেখে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।  

শুক্রবার তুরস্কের দক্ষিণ প্রদেশ কিলিসের এক খাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এরদোগান এ কথা বলেন। 

তুরস্কের এই প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাদেরকে গ্রেট এবং শক্তিশালী’ তুরস্ক নির্মাণের প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করতে হবে। বন্ধু দেশ এবং প্রতিবেশি দেশগুলো আমাদের নিয়ে স্বপ্ন দেখে। 

তুরস্ক ২০২৩ সালের টার্গেট বাস্তবায়নের সন্নিকটে রয়েছে উল্লেখ করে এরদোগান বলেন, আমাদের সরকার এখন পর্যন্ত যত গুরুত্বপূর্ণ কাজ করেছে তার মধ্যে অন্যতম সেরা কাজ হলো-‘উত্তম বোঝাপড়া’।

২০০৩ সালে প্রথম ক্ষমতায় আসেন তুরস্কের একেপি পার্টির নেতা রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।  সম্প্রতি এরদোগানের নেতৃত্বে তুরস্ক ব্যাপক সফলতা পেয়েছে। 

আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার যুদ্ধে  তুরস্ক সরাসরি  আজারবাইজানের পক্ষ নিয়ে তাদেরকে বিজয়ী করেছে। সিরিয়া ও ইরাকে কখনো আসাদ বাহিনী, কখনো কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়ছে তুরস্ক। লিবিয়ায় তারা থামিয়ে দিয়েছে ফ্রান্স ও রাশিয়া-সমর্থিত বিদ্রোহী জেনারেল হাফতারের বাহিনীকে। এছাড়া তুর্কি সেনারা গ্রিস, গ্রিক-সাইপ্রাস ও মিসর এবং  ইরাকি কুর্দিদের বিরুদ্ধেও সফলতা পেয়েছে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন