প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে বাবাকে খুন, ইউটিউবে স্বীকারোক্তি কিশোরীর
jugantor
প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে বাবাকে খুন, ইউটিউবে স্বীকারোক্তি কিশোরীর

  অনলাইন ডেস্ক  

১৩ জুন ২০২১, ০০:৫৬:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে বাবাকে খুন করার পর সেই ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক এক ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করেছে এক কিশোরী।

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে চলতি বছরের এপ্রিলে এই ঘটনা ঘটেছে বলে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে, সিয়েরা হালসেট (১৬) নামে ওই কিশোরী আর তার প্রেমিক অ্যারন গুরেরো (১৮) মিলে সিয়েরার বাবা ড্যানিয়েল হালসেটকে (৪৫) খুন করার পর তা স্বীকার করে একটি ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, খুন করার পর আলমত নষ্ট করতে ওই প্রেমিক যুগল বাড়িতে আগুন ধরিয়ে লাশ পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ লাশের পাশ থেকে একটি রক্তাক্ত করাত উদ্ধার করেছে। করাতটির সাহায্যেই হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

ড্যানিয়েলকে হত্যা করার তিনদিন পর ইউটিউবের ভিডিও পোস্ট করে ওই প্রেমিক যুগল। ভিডিওতে দু‘জনকে দেখা গেছে হাসতে হাসতে একসঙ্গে সেই ঘটনার বিবরণ দিতে৷

ভিডিওতে তারা বলেছে কীভাবে সিয়েরার বাবাকে মেরে ফেলার পর ৩ দিন হয়ে গেছে আর এটা বোঝাতে ক্যামেরায় তিনটি আঙুল দেখায় তারা৷

ভিডিওতে তাদের একটি তাঁবুর মধ্যে দেখা যায়৷ এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটানোর জন্য তাদের মধ্যে কোনো অনুতাপ ছিল না বলে ভিডিওতে দেখা গেছে।

হত্যার অভিযোগে এরই মধ্যে এই প্রেমিক যুগলকে আটক করেছে পুলিশ। মার্কিন আইন অনুযায়ী সিয়েরার বয়স ১৬ বছরের হওয়ায় তার কোনো সাজা হবে না৷ তবে অ্যারনের বয়স ১৮ হওয়ায় সাজার হাত থেকে তিনি বাঁচতে পারবেন না বলে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে বাবাকে খুন, ইউটিউবে স্বীকারোক্তি কিশোরীর

 অনলাইন ডেস্ক 
১৩ জুন ২০২১, ১২:৫৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে বাবাকে খুন করার পর সেই ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক এক ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করেছে এক কিশোরী।

যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে চলতি বছরের এপ্রিলে এই ঘটনা ঘটেছে বলে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে, সিয়েরা হালসেট (১৬) নামে ওই কিশোরী আর তার প্রেমিক অ্যারন গুরেরো (১৮) মিলে সিয়েরার বাবা ড্যানিয়েল হালসেটকে (৪৫) খুন করার পর তা স্বীকার করে একটি ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, খুন করার পর আলমত নষ্ট করতে ওই প্রেমিক যুগল বাড়িতে আগুন ধরিয়ে লাশ পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ লাশের পাশ থেকে একটি রক্তাক্ত করাত উদ্ধার করেছে। করাতটির সাহায্যেই হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। 

ড্যানিয়েলকে হত্যা করার তিনদিন পর ইউটিউবের ভিডিও পোস্ট করে ওই প্রেমিক যুগল। ভিডিওতে দু‘জনকে দেখা গেছে হাসতে হাসতে একসঙ্গে সেই ঘটনার বিবরণ দিতে৷ 

ভিডিওতে তারা বলেছে কীভাবে সিয়েরার বাবাকে মেরে ফেলার পর ৩ দিন হয়ে গেছে আর এটা বোঝাতে ক্যামেরায় তিনটি আঙুল দেখায় তারা৷ 

ভিডিওতে তাদের একটি তাঁবুর মধ্যে দেখা যায়৷ এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটানোর জন্য তাদের মধ্যে কোনো অনুতাপ ছিল না বলে ভিডিওতে দেখা গেছে।

হত্যার অভিযোগে এরই মধ্যে এই প্রেমিক যুগলকে আটক করেছে পুলিশ। মার্কিন আইন অনুযায়ী সিয়েরার বয়স ১৬ বছরের হওয়ায় তার কোনো সাজা হবে না৷ তবে অ্যারনের বয়স ১৮ হওয়ায় সাজার হাত থেকে তিনি বাঁচতে পারবেন না বলে জানিয়েছে পুলিশ।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন