বিদেশি শত্রুরা নির্বাচন বানচাল করতে চায়: খামেনি
jugantor
বিদেশি শত্রুরা নির্বাচন বানচাল করতে চায়: খামেনি

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ জুন ২০২১, ১৪:০৯:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আগামীকাল ১৮ জুন ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে যেন সর্বোচ্চসংখ্যক ভোট পড়ে সে লক্ষ্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশটির প্রশাসন। এর মধ্যে দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি ভোট দিতে কেন্দ্রে আসার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার তিনি এ আহ্বান জানান। খবর আনাদোলুর।

এক টেলিভিশন বক্তৃতায় আলি খামেনি বলেন, জনগণ সরকার গঠন করে। তাই নির্বাচনে জনগণের অংশ নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শত্রুরা নির্বাচন বানচাল করতে চায়।

অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে ভোট কম পড়তে পারে- এমন আশঙ্কা থেকেই দেশটির সর্বোচ্চ নেতা জনগণের প্রতি এ আহ্বান জানান।

দেশটির সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ভোটের মাধ্যমে আপনারা এমন কাউকে নির্বাচন করুন, যিনি ইরানের সমস্যাগুলোর সমাধান করবেন।

ইরানের এই সর্বোচ্চ নেতা ‘গরিব মানুষের দিকে নজর’ দেওয়ার জন্য পরবর্তী সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

ইরানের ভেতরে ও বাইরের শত্রুরা নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে জানিয়ে খামেনি বলেন, যদি জনগণ ভোট দিতে না যায়, তবে আমাদের শত্রুরা ইরানের ওপর চাপ সৃষ্টির সুযোগ পেয়ে যাবে।

এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মিডিয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, এসব মিডিয়া সরকারের সঙ্গে জনগণের সম্পর্কে ফাটল ধরানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে।

বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির মেয়াদ শেষ হবে ৩ আগস্ট। এর পর নতুন সরকার দায়িত্ব নেবে।

সৌদি আরবের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা এবং ভিয়েনায় পরমাণু চুক্তি নিয়ে আলোচনার মধ্যে এ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ইরানের জন্য।

বিদেশি শত্রুরা নির্বাচন বানচাল করতে চায়: খামেনি

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ জুন ২০২১, ০২:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আগামীকাল ১৮ জুন ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে যেন সর্বোচ্চসংখ্যক ভোট পড়ে সে লক্ষ্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশটির প্রশাসন। এর মধ্যে দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি ভোট দিতে কেন্দ্রে আসার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার তিনি এ আহ্বান জানান। খবর আনাদোলুর।

এক টেলিভিশন বক্তৃতায় আলি খামেনি বলেন, জনগণ সরকার গঠন করে। তাই নির্বাচনে জনগণের অংশ নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শত্রুরা নির্বাচন বানচাল করতে চায়।

অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে ভোট কম পড়তে পারে- এমন আশঙ্কা থেকেই দেশটির সর্বোচ্চ নেতা জনগণের প্রতি এ আহ্বান জানান।

দেশটির সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ভোটের মাধ্যমে আপনারা এমন কাউকে নির্বাচন করুন, যিনি ইরানের সমস্যাগুলোর সমাধান করবেন।

ইরানের এই সর্বোচ্চ নেতা ‘গরিব মানুষের দিকে নজর’ দেওয়ার জন্য পরবর্তী সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

ইরানের ভেতরে ও বাইরের শত্রুরা নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে জানিয়ে খামেনি বলেন, যদি জনগণ ভোট দিতে না যায়, তবে আমাদের শত্রুরা ইরানের ওপর চাপ সৃষ্টির সুযোগ পেয়ে যাবে।

এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মিডিয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, এসব মিডিয়া সরকারের সঙ্গে জনগণের সম্পর্কে ফাটল ধরানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে।

বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির মেয়াদ শেষ হবে ৩ আগস্ট। এর পর নতুন সরকার দায়িত্ব নেবে।

সৌদি আরবের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা এবং ভিয়েনায় পরমাণু চুক্তি নিয়ে আলোচনার মধ্যে এ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ইরানের জন্য।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন