যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গাজায় দ্বিতীয় দফা হামলা ইসরাইলের
jugantor
যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গাজায় দ্বিতীয় দফা হামলা ইসরাইলের

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ জুন ২০২১, ১০:৩৩:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো গাজায় হামলা চালিয়েছে ইসরাইল।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে— ইসরাইলি বাহিনী বৃহস্পতিবার গাজার উত্তর-পশ্চিমে এবং উত্তরে বেইত লাহিয়ার বিভিন্ন স্থানে সশস্ত্র সংগঠনগুলোর অবস্থানে বিমান হামলা চালায়।

এ নিয়ে ২১ মে থেকে কার্যকর হওয়া যুদ্ধবিরতির পর দ্বিতীয়বারের মতো গাজায় হামলা চালাল ইসরাইল। এর আগে বুধবার গাজায় হামলা চালায় বর্বর ইসরাইল।

জাবালিয়ায় অবস্থিত একটি প্রশাসনিক ভবন লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়। এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

হামাসের মুখপাত্র ফাউজি বারহৌম এক বিবৃতিতে বলেন, প্রতিরোধ সংগঠনগুলোর অবস্থানে হামলা নতুন ইসরাইলি সরকারের চরিত্র উন্মোচিত করেছে। আমাদের জনগণ এবং পবিত্র মসজিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রতিরোধ অব্যাহত থাকবে।

আল আকসা টিভি জানিয়েছে, গাজার পশ্চিমাঞ্চলে একটি ইসরাইলি ড্রোন ভূপাতিত করা হয়েছে।

ইসরাইলের হামলার পর হামাসের সদস্যরা মেশিনগান থেকে গুলি ছুড়েছে। ফলে সতর্ক সংকেত হিসেবে সাইরেন বাজাতে হয়েছে ইসরাইলের বাহিনীকে।

ফিলিস্তিন থেকে ছোড়া এসব আগ্নেয় বেলুনের কারণে ইসরাইলের বিভিন্ন খামারে এবং জঙ্গলে আগুন লেগেছে।

ইসরাইলের দাবি, ফিলিস্তিন থেকে আগ্নেয় বেলুন ছোড়ার কারণে হামলা চালানো হয়েছে।

যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গাজায় দ্বিতীয় দফা হামলা ইসরাইলের

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ জুন ২০২১, ১০:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো গাজায় হামলা চালিয়েছে ইসরাইল।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে— ইসরাইলি বাহিনী বৃহস্পতিবার গাজার উত্তর-পশ্চিমে এবং উত্তরে বেইত লাহিয়ার বিভিন্ন স্থানে সশস্ত্র সংগঠনগুলোর অবস্থানে বিমান হামলা চালায়।

এ নিয়ে ২১ মে থেকে কার্যকর হওয়া যুদ্ধবিরতির পর দ্বিতীয়বারের মতো গাজায় হামলা চালাল ইসরাইল। এর আগে বুধবার গাজায় হামলা চালায় বর্বর ইসরাইল।

জাবালিয়ায় অবস্থিত একটি প্রশাসনিক ভবন লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়। এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

হামাসের মুখপাত্র ফাউজি বারহৌম এক বিবৃতিতে বলেন, প্রতিরোধ সংগঠনগুলোর অবস্থানে হামলা নতুন ইসরাইলি সরকারের চরিত্র উন্মোচিত করেছে। আমাদের জনগণ এবং পবিত্র মসজিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রতিরোধ অব্যাহত থাকবে।

আল আকসা টিভি জানিয়েছে, গাজার পশ্চিমাঞ্চলে একটি ইসরাইলি ড্রোন ভূপাতিত করা হয়েছে।

ইসরাইলের হামলার পর হামাসের সদস্যরা মেশিনগান থেকে গুলি ছুড়েছে। ফলে সতর্ক সংকেত হিসেবে সাইরেন বাজাতে হয়েছে ইসরাইলের বাহিনীকে।

ফিলিস্তিন থেকে ছোড়া এসব আগ্নেয় বেলুনের কারণে ইসরাইলের বিভিন্ন খামারে এবং জঙ্গলে আগুন লেগেছে।

ইসরাইলের দাবি, ফিলিস্তিন থেকে আগ্নেয় বেলুন ছোড়ার কারণে হামলা চালানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন