ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট দিলেন খামেনি
jugantor
ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট দিলেন খামেনি

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ জুন ২০২১, ১২:৫৭:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। শুরুর দিকে ভোট দিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি।

শুক্রবার তেহরানের একটি কেন্দ্রে তিনি ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। খবর বিবিসির।

টিকে থাকা চার প্রার্থীর একজন বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির স্থলাভিষিক্ত হবেন। তবে জনমত জরিপে এগিয়ে রাখা হচ্ছে ইব্রাহিম রয়িসিকে।

নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে লড়াইয়ের জন্য নিবন্ধন করেছিলেন ৫২৯ জন।

এর মধ্যে চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে অনুমোদন পেয়েছিলেন সাতজন।

একেবারে শেষ সময়ে এসে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিন প্রার্থী।

স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় ইরানের জনগণের উদ্দেশে লেখা এক বিবৃতিতে ইব্রাহিম রায়িসির প্রতি সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন সাবেক সুপ্রিম সিকিউরিটি কাউন্সিল সেক্রেটারি সাঈদ জালিলি।

তার প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে মূলত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আব্দুল নাসের হেমমাতীর সঙ্গে।

তেহরানের একটি কেন্দ্রে সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি ভোট দেওয়ার পর বলেন, প্রতিটি ভোটই গুরুত্বপূর্ণ। আসুন ভোটের মাধ্যমে নিজের পছন্দের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করুন। এটি আমাদের ভবিষ্যতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

দুবারের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় প্রার্থী হননি বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। ২০১৩ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট দিলেন খামেনি

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ জুন ২০২১, ১২:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। শুরুর দিকে ভোট দিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি।

শুক্রবার তেহরানের একটি কেন্দ্রে তিনি ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। খবর বিবিসির।

টিকে থাকা চার প্রার্থীর একজন বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির স্থলাভিষিক্ত হবেন। তবে জনমত জরিপে এগিয়ে রাখা হচ্ছে ইব্রাহিম রয়িসিকে।

নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে লড়াইয়ের জন্য নিবন্ধন করেছিলেন ৫২৯ জন। 

এর মধ্যে চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে অনুমোদন পেয়েছিলেন সাতজন। 

একেবারে শেষ সময়ে এসে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিন প্রার্থী। 

স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় ইরানের জনগণের উদ্দেশে লেখা এক বিবৃতিতে ইব্রাহিম রায়িসির প্রতি সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন সাবেক সুপ্রিম সিকিউরিটি কাউন্সিল সেক্রেটারি সাঈদ জালিলি। 

তার প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে মূলত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আব্দুল নাসের হেমমাতীর সঙ্গে।

তেহরানের একটি কেন্দ্রে সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি ভোট দেওয়ার পর বলেন, প্রতিটি ভোটই গুরুত্বপূর্ণ। আসুন ভোটের মাধ্যমে নিজের পছন্দের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করুন। এটি আমাদের ভবিষ্যতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

দুবারের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় প্রার্থী হননি বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।  ২০১৩ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর