সু চির জন্মদিনে চুলে ফুল গুঁজলেন আন্দোলনকারীরা!
jugantor
সু চির জন্মদিনে চুলে ফুল গুঁজলেন আন্দোলনকারীরা!

  অনলাইন ডেস্ক  

২০ জুন ২০২১, ০৯:৪৫:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

খোঁপায় ফুল গোঁজাতে ভালোবাসেন মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চি। বরাবর এই সাজেই দেখা গেছে তাকে।

তার জন্মদিনে শনিবার তাই চুলে ফুল গুঁজেই দিনটি পালন করতে দেখা গেল তার সমর্থকদেরও। খবর রয়টার্সের।

১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের শুরুর দিন থেকেই নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী এ নেত্রীকে গৃহবন্দি করেছে জান্তা সরকার। ইতোমধ্যে তার বিরুদ্ধে মোট পাঁচটি গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে। সম্প্রতি শুরু হয়েছে বিচার প্রক্রিয়া। আগামী সপ্তাহে ফের আদালতে তোলা হতে পারে সু চিকে।

শনিবার ছিল সু চির ৭৬তম জন্মদিন। সোশ্যাল মিডিয়ায় সু চির মতো করে ফুল দিয়ে করা কেশসজ্জার ছবি এদিন ট্রেন্ডিং ছিল মিয়ানমার জুড়ে।

এতে গা ভাসান মিয়ানমারের মিস ইউনিভার্স খেতাবজয়ী থুজার উইন্ট লুইনও। লাল ফুল দিয়ে চুল সাজিয়ে ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন— ‘আমাদের নেত্রী যেন সুস্থ থাকেন।’

ইয়াঙ্গুনে রীতিমতো পোস্টার টাঙিয়ে নেত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান সেনাশাসনবিরোধী আন্দোলনকারীরা। পাশাপাশি নেত্রীর পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন তারা। কেউ কেউ আবার কালো ছাতা মাথায় দিয়ে শামিল হন পদযাত্রায়।

তাদের সবার হাতেই ছিল সু চির মুখ আঁকা ব্যানার। যাতে লেখা— ‘ভয় থেকে মুক্তি’। সীমান্ত লাগোয়া কারেন প্রদেশে কয়েকজন বন্দুকধারী আন্দোলনকারীর ছবি ভাইরাল হয়েছে। তাদের এক হাতে বন্দুক থাকলেও অন্য হাতে ছিল নানা রঙের ফুলের তোড়া। আর সবাই কানের পেছনে গুঁজেছিলেন একটি করে ফুল। মিয়ানমারের দক্ষিণ-পূর্বে দাওয়েই শহরে গোলাপি রঙের বিশালাকার কেক কেটে নেত্রীর জন্মদিন পালন করেন তার সমর্থকরা।

সু চির জন্মদিনে চুলে ফুল গুঁজলেন আন্দোলনকারীরা!

 অনলাইন ডেস্ক 
২০ জুন ২০২১, ০৯:৪৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

খোঁপায় ফুল গোঁজাতে ভালোবাসেন মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চি। বরাবর এই সাজেই দেখা গেছে তাকে।

তার জন্মদিনে শনিবার তাই চুলে ফুল গুঁজেই দিনটি পালন করতে দেখা গেল তার সমর্থকদেরও। খবর রয়টার্সের।

১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের শুরুর দিন থেকেই নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী এ নেত্রীকে গৃহবন্দি করেছে জান্তা সরকার। ইতোমধ্যে তার বিরুদ্ধে মোট পাঁচটি গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে। সম্প্রতি শুরু হয়েছে বিচার প্রক্রিয়া। আগামী সপ্তাহে ফের আদালতে তোলা হতে পারে সু চিকে।

শনিবার ছিল সু চির ৭৬তম জন্মদিন। সোশ্যাল মিডিয়ায় সু চির মতো করে ফুল দিয়ে করা কেশসজ্জার ছবি এদিন ট্রেন্ডিং ছিল মিয়ানমার জুড়ে।

এতে গা ভাসান মিয়ানমারের মিস ইউনিভার্স খেতাবজয়ী থুজার উইন্ট লুইনও। লাল ফুল দিয়ে চুল সাজিয়ে ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন— ‘আমাদের নেত্রী যেন সুস্থ থাকেন।’

ইয়াঙ্গুনে রীতিমতো পোস্টার টাঙিয়ে নেত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান সেনাশাসনবিরোধী আন্দোলনকারীরা। পাশাপাশি নেত্রীর পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন তারা। কেউ কেউ আবার কালো ছাতা মাথায় দিয়ে শামিল হন পদযাত্রায়।

তাদের সবার হাতেই ছিল সু চির মুখ আঁকা ব্যানার। যাতে লেখা— ‘ভয় থেকে মুক্তি’। সীমান্ত লাগোয়া কারেন প্রদেশে কয়েকজন বন্দুকধারী আন্দোলনকারীর ছবি ভাইরাল হয়েছে। তাদের এক হাতে বন্দুক থাকলেও অন্য হাতে ছিল নানা রঙের ফুলের তোড়া। আর সবাই কানের পেছনে গুঁজেছিলেন একটি করে ফুল। মিয়ানমারের দক্ষিণ-পূর্বে দাওয়েই শহরে গোলাপি রঙের বিশালাকার কেক কেটে নেত্রীর জন্মদিন পালন করেন তার সমর্থকরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : অং সান সু চি আটক